কবি অমর ভট্টাচার্য - জন্ম গ্রহণ করেন কলকাতার আগরপাড়ায়। পিতা দুর্গেশ ভট্টাচার্য ও মাতা
মানদা দেবী।

কবি স্কুল পাশ করেন সাগর দত্ত উচ্চমাধ্যমিক বিদ্যালয়, কামারহাটি, থেকে ১৯৭০ সালে। এর পর ভর্ত্তি হন
কলকাতার স্কটিশ চার্চ কলেজে। পড়া শেষ করতে পারেন নি কমিউনিস্ট ভাবধারার রাজনৈতিক আন্দোলনে
ঝাঁপিয়ে পড়েছিলেন বলে।
CPIML ভাগ হলে তিনি Central Bureau of CPIML এর মুখপত্র “ইস্তেহার” এর
সম্পাদক হন ১৯৭৫ এর শেষ দিক থেকে।

১৯৭৮ সালের ডিসেম্বর মাসে বিবাহ করেন ডরথী ভট্টাচার্যকে। তাঁদের এক মেয়ে।

তাঁর রাজনৈতিক আন্দোলনের মধ্যে তাঁকে দু-দুবার কারাবাসে কাটাতে হয়। ১৯৮৫ সালের কুখ্যাত "বেহালা
ষড়যন্ত্র মামলার" তিনিই ছিলেন মূল অভিযুক্ত।  তাঁর  বিরুদ্ধে রাষ্ট্রের বিরুদ্ধে যুদ্ধের অভিযোগ আনা
হয়েছিল। কিন্তু সরকার পক্ষ কিছুই প্রমাণ করতে পারেন নি।  আমাদের, কবি দিয়েছেন সেই জেলবন্দী
অবস্থায় লেখা কবিতা। কবি আমাদের অনুমতি দিয়েছেন সর্বসমক্ষে একথা জানাতে যে ১৯৭৫ সালে তিনি
"লাসা"-র ভিতর দিয়ে চীনের রাজধানী বেজিং শহরে গিয়ে তাঁর পার্টির হয়ে কিছু বিশেষ আলোচনা করে
এসেছিলেন চীনের কমিউনিস্ট পার্টির নেতাদের সঙ্গে।

লেখালেখি শুরু করেন ১৯৭৪ সাল থেকেই। যে সব পত্র-পত্রিকায় তাঁর লেখা, কবিতা ও ছড়া ছাপা হয়েছে,
তার মধ্যে রয়েছে “শিশু সাগিত্য সংসদ” (ছড়া), “ভোরের আলোয়” (ছড়া), অমল রায় সম্পাদিত “অভিনয়”,
ডঃ রাসবিহারী দত্ত সম্পাদিত “প্রান্তিক”, সলিল চৌধুরী সম্পাদিত
“ISKRA” (ইস্ক্রা) প্রভৃতি। তিনি মূলত
প্রাবন্ধিক হিসেবে লেখেন “যুগান্তর”,
“News Times”, “The Statesman” প্রভৃতি পত্রিকায়। ১৯৮৬ থেকে তিনি
যুক্ত ছিলেন “নয়া ইস্তেহার” প্রকাশনীর সঙ্গে। বর্তমানে ত্রিভাষী পত্রিকা (বাংলা, ইংরেজী ও নরওয়েজিয়ান)
“পূর্বাশা এখন” এর সম্পাদক পদে রয়েছেন।

তাঁর উল্লখযোগ্য গ্রন্থের মধ্যে রয়েছে “নকশালবাড়ী আন্দোলনের প্রামাণ্য তথ্য সংকলন”, “দ্রোহে বিদ্রোহে”
(প্রতিবাদী কবিতা সংকলন), “অন্বেষণ” (তিন দশকের প্রতিবাদী কবিতা) প্রভৃতি। তিনিই প্রথম প্রকাশনা
করেন চারু মজুমদারের রচনা সংকলন।


কবি শ্বাসকষ্টের কঠিন ব্যাধিতে ভুগে ০৫.০৯.২০১৪ তারিখে পরলোক গমন করেন।


আমরা
মিলনসাগরে  কবি অমর ভট্টাচার্যর কাছেই তাঁর কবিতা তোলার অনুমতি পেয়েছিলাম


কবি অমর ভট্টাচার্যর মূল পাতায় যেতে এখানে ক্লিক করুন

উত্সঃ  কবি অমর ভট্টাচার্যর সঙ্গে ১৮.০৩.২০১২ তারিখে, তাঁর আগরপাড়ার, ইলিয়াস রোডের বাসভবনে
.         একটি সাক্ষাত্কার। মিলনসাগরের পক্ষে সাক্ষাত্কারটি নিয়েছিলেন মিলন সেনগুপ্ত।               


আমাদের ই-মেল -
srimilansengupta@yahoo.co.in     


এই পাতা প্রকাশ - ২৫.০৪.২০১২
...