কবি চাঁদ কাজী - হরেকৃষ্ণ মুখোপাধ্যায় সম্পাদিত "বৈষ্ণব পদাবলী" তে কবির ভণিতা সহ একটি বৈষ্ণব
পদ রয়েছে। তাঁর জীবনকাল ইত্যাদি নিয়ে তিনি কোনো তথ্য দিয়ে যান নি। ১৯৭৭ সালে প্রকাশিত দেবনাথ
বন্দ্যোপাধ্যায়, তাঁর সম্পাদিত বৈষ্ণব পদাবলী সংকলন “বৈষ্ণব পদসঙ্কলন” গ্রন্থে জানিয়েছেন যে চাঁজ কাজী
ষেড়শ শতকের শেষ ভাগের কবি।

শ্রীচৈতন্যের সন্ন্যাসগ্রহণের পূর্বে নদীয়া নগরের কাজীর নামও চাঁদকাজী, যিনি সেখানে কীর্তন বন্ধের আদেশ
দেন। ইনি কবি চাঁদকাজী কিনা তাও বলা যাচ্ছে না। যুধিষ্ঠির জানা (মালীবুড়ো) দ্বারা ১৯৮৫ এর পরে
প্রকাশিত, “শ্রীচৈতন্যের অন্তর্ধান রহস্য” গ্রন্থের শেষে সংক্ষিপ্ত পরিচিতিতে তিনি চাঁজকাজীর উল্লেখ করে
লিখেছেন . . .
হুসেন শাহের (গৌড়ের নবাব) আঠারোজন পুত্র কন্যা ছিল। চাঁদকাজী, হুসেন শাহের একজন দৌহিত্র।
চৈতন্যদেব যখন চাঁদকাজীর বাগান বাড়ী ভেঙে লণ্ডভণ্ড করেন, তখন হুসেন শাহ গৌড়ে ছিলেন না। তিনি
গিয়েছিলেন উড়িষ্যায় যুদ্ধ করতে। খুব সম্ভবত ১৫১০ খ্রীষ্টাব্দে মহাপ্রভু চাঁদকাজীর বাড়ী ভগ্ন করেছিলেন। এই
ঘটনার অব্যবহিত পরেই শ্রীচৈতন্যদেব সন্ন্যাস  গ্রহণ করেন। মৌলানা সিরাজুদ্দিন চাঁদকাজীর সমাধি
মায়াপুরে বামনপুকুর নামক স্থানে আজিও বিদ্যমান। এই স্থানের প্রাচীন নাম সিমূলিয়া
।”

ডঃ শিশির কুমার দাশের "সংসদ বাংলা সাহিত্য সঙ্গী" বইটিতে এক ত্রিপুরাবাসী কবি শেখ চাঁদ-এর উল্লেখ
পাই, যাঁর জীবনকাল ছিল সম্ভবত ১৫৬০ ~ ১৬২৫ খৃষ্টাব্দ। শেখ চাঁদের রচনার মধ্যে রয়েছে "রসুলবিজয়",
"কিয়ামৎনামা", "হরগৌরী সংবাদ" প্রভৃতি কাব্যগ্রন্থ। তিনি ধর্মশাস্ত্রে সুপণ্ডিত ব্যক্তি ছিলেন। কিন্তু এই শেখ
চাঁদই কবি চাঁদ কাজী কি না তা আমরা জানি না।

আমরা
মিলনসাগরে  কবি চাঁদ কাজী-র কবিতা তুলে আগামী প্রজন্মের কাছে পৌঁছে দিতে পারলে  এই
প্রচেষ্টাকে সফল মনে করবো।



কবি চাঁদ কাজী-র মূল পাতায় যেতে এখানে ক্লিক করুন

আমাদের ই-মেল -
srimilansengupta@yahoo.co.in     


এই পাতার প্রথম প্রকাশ - ২১.৬.২০১৪
পরিবর্ধিত সংস্করণ - ১.১১.২০১৭
...
চাঁদ কাজী
বৈষ্ণব পদাবলী
ষেড়শ শতকের শেষ ভাগের কবি
আমাদের কাছে
কবির  কোনো ছবি নেই | একটি ছবি
এবং আরও তথ্য আমাদের কাছে
পাঠালে আমরা কৃতজ্ঞতা স্বীকার করে  
প্রেরকের নাম এই পাতায় উল্লেখ করবো |
আমাদের ঠিকানা-
srimilansengupta@yahoo.co.in
বৈষ্ণব পদাবলী নিয়ে মিলনসাগরের ভূমিকা     
বৈষ্ণব পদাবলীর "রাগ"      
কৃতজ্ঞতা স্বীকার ও উত্স গ্রন্থাবলী     
মিলনসাগরে কেন বৈষ্ণব পদাবলী ?     
*

এই পাতার উপরে . . .
*

এই পাতার উপরে . . .
*

এই পাতার উপরে . . .
*

এই পাতার উপরে . . .