রূপরাম চক্রবর্তীর ধর্মমঙ্গল কাব্য
কবি রূপরাম চক্রবর্তীর ধর্মমঙ্গলের পরিচিতির পাতায় . . .
রূপরামের ধর্মমঙ্গল কাব্যের সূচি
পাটশালে বসিয়াছে গৌড়ের পাতর |
মল্লগুরু দেখা দিল তার বরাবর ||
জোহার করিল মহাপাত্রের চরণে  |
জোড়হাথে রহিল তাহার বিদ্যমানে  ||
সারি সারি সমুখে সাক্ষাত সিংহরথ |
প্রণাম করিতে পারি মলয় পর্বত  ||
পাত্র মহামদ বলে শুন সারেঙ্গধল  |
কিবা কাজ বিলম্বে ময়না মহী চল ||
পুত্রবতী হৈল রঞ্জা শালে দিয়া ভর |
সরণ শিখিবে তার লাউসেন কুঙর ||
জামাজোড়া বিস্তরপাইবে পুরস্কার |
তোমা বই সংসারে সারথি নাই আর ||
এই বোল বলিল সভার সন্নিধানে |
পরিণাম বলিল মল্লের কানে কানে ||
আমার ভাগিনা বলি না করিহ ভয় |
বন্য রঞ্জাবতী যেন আঁটকুড়ি হয় ||
তবে যদিসাৎ মরে লাউসেন ভাগিনা |
দুহাথে টোড়র দিব দুই কানে সোনা ||
যাত্রা কর ময়না বিলম্ব নাই সয়  |
অবশ্য করিবে বধ রঞ্জার তনয় ||
এত বলি পান দিল পঞ্চাশ মোহর |
সারেঙ্গধল যাত্রা করে ময়না নগর ||
পত্রবাক্য শুনি মল্ল করিল গমন  |
দ্বিজ রূপরাম গান দৈমন্তী-নন্দন ||

ময়না করিল যাত্রা সারেঙ্গধল মাল  |
লাউসেন উদ্দিশে চলিল যেন কাল  ||
ভৈরবী গঙ্গার জল নাএ পার হয়্যা  |
শীতলপুর বালিঘাটা উত্তরিল গিয়া ||
বামদিগে তারাদীঘি বেউশ্যা-শাসন  |
কালুত্তকে আসিয়া দিলেক দরশন  ||
কর্জনা সরাইখানা করি পাছুয়ান |
দেখাদেখি ছড়াইল শ্রীবর্দ্ধমান ||
সত্যের গঙ্গা দামুদর নাএ পার হয়্যা  |
উড়ের গড় কামালপুর দক্ষিণে রাখিয়া  ||
বন্দিল দব়্যার পীর করিয়া সালাম  |
বারবাকপুর রাখি সৈয়দ মোকাম  ||
আমিল্যা মগলমারি পশ্চাত করিয়া |
উচালন দীঘির পশ্চিম পাড় দিয়া ||
রাঙ্গামাটি সুরধুনী সমুখে নিয়ড়  |
ডানিদিগে মান্দারণ পীরসাহেবের গড় ||
চৌবেড়ে প্রতাপপুর পশ্চাতে রাখিয়া |
ধুলাডাঙ্গা ব্রহ্মপুরে উত্তরিল গিয়া ||
মস্তকের উপর উড়য়ে ডোমচিল |
উভে ষোল কোশ রাখে পদুমার বিল  ||
কালিনী গঙ্গার জল নাএ পার হয়্যা |
ময়না নগরে বীর উত্তরিল গিয়া ||
নানা ধনে পরিপূর্ণ দেখিল ময়না |
লক্ষপতি নিবসে লঙ্কায় লেনাদেনা  ||
ঘরে ঘরে নাটো নাচে ভাটে গীত গায়  |
ধর্মের পিরিতে ধন কেহবা বিলায়  ||
দুই দিগে রাখ্যা যায় দ্রুম আওয়ারি |
হিঙ্গুলিয়া বকুল তমাল সারি সারি ||
সভাকার ঘরে ঘরে নেতের পতাকা |
রাকা সুধা মাঠে যেন উড়িছে বলাকা ||
বার দিয়া কর্ণসেন সহ রঞ্জাবতী |
হেন বেলা মল্ল গিয়া করিল প্রণতি ||
আস্য আস্য কর্ণসেন বলে তিনবার |
রঞ্জাবতী জিজ্ঞাসে রমতি সমাচার ||
রাজার কল্যাণ বল ভাই--এর কুশল |
বলিতে বলিতে বহে দুই চক্ষে জল ||
মল্লগুরু বলে রাণী কর অবধান |
তোমার কল্যানে ঘরে সবার কল্যাণ  ||
রঞ্জাবতী বলে ভাই শুন মন দিয়া |
বলিব বিশেষ কথা বিরলে বসিয়া ||
বেটার কারণে আমি শালে দিনু ভর  |
দিনে দশবার যাত্যে চায় দেশান্তর ||
আপনি করিবে ভাই এহার উপায়  |
দিনমধ্যে দশবার নিঃসরিয়া যায়  ||
কল্পনা করিয়া তারে শিখাবে সরণ  |
ভাঙ্গিবে দক্ষিণ হাত দক্ষিণ চরণ  ||
খোঁড়া করি লাউসেনে রাখিব নিকেতনে |
পুত্রমুখ সদা দেখি এই সাধ মনে ||
দিন প্রতি দিব রোজ পঞ্চাশ কাহন |
বিশেষিয়া কহিল সকল বিবরণ ||
এত বলি দক্ষিণ দলজে বাসা দিল |
নানা দ্রব্য মল্লের নিকট পাঠাইল ||
একজনে যুগল যুগল দিল খাসি |
বিস্তর দিবস মল্ল গৌড়নিবাসী ||
বাসায় বসিয়া মল্ল করে অনুমান |
লাউসেনে দেখিয়া করিবে জলপান ||
তার মধ্যে বিভাগ করিব আগে বল  |
তবে আমি বাসায় বসিয়া খাব জল ||
এই মত যুক্তি করে মল্ল ছয়জন |
লাউসেন দেখিতে সভে করিল গমন ||
আখড়া মন্দিরে গিয়া দিল দরশন |
আখড়ার শালেতে খেলেন দুইজন ||




.                                                   
ল্লবধ পালার পরের পৃষ্ঠায় . . .  
.                                                                 
এই পাতার উপরে . . .     


মিলনসাগর
১    বন্দনা  পালা     
.          
গনেশ বন্দনা    
.          
ধর্ম্ম বন্দনা    
.          
ঠাকুরাণী বন্দনা     
.          
চৈতন্য বন্দনা    
.          
সরস্বতী বন্দনা     
.          
বিপ্র বন্দনা      
.          
দিগ্ বন্দনা    
২   
আত্মকাহিনী    
৩   
স্থাপনা পালা    
৪    
আদ্য ঢেকু পালা    
.           
গজেন্দ্র মোক্ষণ    
৫    
রঞ্জার বিবাহপালা     
৬   
লুইচন্দ্র পালা     
৭   
শালেভর পালা    
৮   
লাউসেনের জন্মপালা      
.            
পরিশিষ্ট, জন্মপালা      
৯   
লাউসেন চুরিপালা    
১০
আখড়া পালা     
১১
ফলানির্মাণ পালা     
১২
মল্লবধ পালা      
১৩
বাঘজন্মপালা     
১৪
বাঘবধ পালা      
১৫
জামতি পালা      
১৬
গোলাহাটপালা      
১৭
হস্তিবধপালা      
১৮
কাঙুরযাত্রাপালা      
১৯
কলিঙ্গাবিভাপালা     
২০
লৌহগন্ডারপালা       
২১
কানড়াবিভাপালা      
২২
অনুমৃতাপালা     
২৩
ইছাইবধপালা     
২৪
অঘোরবাদলপালা     
২৫
জাগরণপালা     
২৬
স্বর্গারোহণপালা     
ল্লবধ পালার আগের পৃষ্ঠায় . . .
রূপরামের ধর্ম্মমঙ্গল
|| মল্লবধপালা ||
পৃষ্ঠা