রূপরাম চক্রবর্তীর ধর্মমঙ্গল কাব্য
কবি রূপরাম চক্রবর্তীর ধর্মমঙ্গলের পরিচিতির পাতায় . . .
রূপরামের ধর্মমঙ্গল কাব্যের সূচি
শহর লুটিতে আইল কাঙুর ভুপতি |
পালায় গৌড়ের প্রজা না দেখি পদ্ধতি ||
ডাকাডাকি বলে পাত্র শুনি শিঙ্গা কাড়া |
বচন বলিতে ভাঙ্গে বাহাত্তর পাড়া ||
দুরদুর লোক যত পালায় সত্বরে |
পালাইতে পথ খুঁজে রাজা গৌড়েশ্বর ||
ষোল পাত্র বারভূঞা হইল কম্পিত |
লঘু হৈল বলবুদ্ধি সমর পন্ডিত ||
রাজা বলে কোথা গেল পাত্র মহামদ |
কেহ নাই দূর করে বিষম আপদ ||
পাত্র আনিবারে রাজা পাঠান পালকি |
বেগে ধায় বেহারা বিপদ বড় দেখি ||
পালকি রাখিল মহাপাত্রের সমুখে |
রাজার হুকুম পায়্যা বসিল কৌতুকে ||
পুনর্বার রাজার দরবারে দরশন |
হাথে ধরি বলে তারে আপনি রাজন ||
কাগজ হিসাব তোরে বকশিস সকল |
রক্ষা কর জীবন আইল কর্পূরধল ||
পাত্রমহামদ বলে মনঃকথা নাঞি |
নফর পাঠায়্যা দিব কর্পূরধলের ঠাঞি ||
কাঙুরের ভূপতি আমার আজ্ঞাকারী |
অকাল অনর্থ শুরু নিবারিতে পারি ||
আশ্বাসিয়া বসিল রাজার বরাবর |
দরিয়ার মুখে ধায় পাত্রের নফর ||
নিষেধ বচনে বাদ্য হৈল নিবারণ |
সভা করি বৈসে পুন গোউড় রাজন ||
বারভূঞা বসিলেন আর দলবল |
দ্বিজ রূপরাম গান অনাদ্য মঙ্গল ||

দূর হৈল গৌড়ের দুরন্ত পরমাদ |
আনন্দে ভূপতি শুনে অক্রুর-সম্বাদ ||
অক্রুর আরোহি সুখে পুরট বিমান |
কৃষ্ণসঙ্গে লীলারঙ্গে মধুপুরে যান ||
বিমান যমুনাতীরে বিলম্ব করিল |
সিনান লাগিয়া ত্বরা জলেতে নাম্বিল ||
ডুব দিতে জলে দেখে বলরাম হরি |
পুনরপি বিমানে দেখিল কংস-ঐরী ||
অসম্ভব অক্রুর গণিল মনে মন |
মহাসুখী মথুরা নগরে দরশন ||
কুবলয়-নিধনে সভার লোক কান্দে |
অধ্যায় সমাপ্ত হৈল পাঠক পুথি বান্ধে ||
মনে যুক্তি করে তবে গৌড়ের নাবড় |
লাউসেন পাঠায়্যা দিব কাঙুরের গড় ||
ভাগিনা হইতে নষ্ট হৈল কংসাসুর |
এবার ভাগিনা দিব পাঠায়্যা কাঙুর ||
অবশ্য নিধন হব কর্পূরধলের রণে |
রঞ্জাবতী আটকুড়ি হৈল এতদিনে ||
মনে অনুমান এত করিল বিস্তর |
নিবেদন করিল রাজার বরাবর ||
দশবার কর্পূরধল আইল গোউড়ে |
লাউসেন পাঠায়্যা দেহ কাঙুরের গড়ে ||
অধিকার নাই তথি এ বার বত্সর |
কর্পূরধল নাঞি দেই কাঙুরের কর ||
বলবন্ত একি হৈল কর্পূরধল রাজা |
যার সখা আপনি অভয়া দশভূজা ||
ঘরে বস্যা লাউসেন ভাগিনা ক্ষেম খায় |
আজ্ঞা কর আপনি কাঙুর যেন যায় ||
ভাগিনার যোগ্যতা জানিব এইবার |
হস্তিবধ করিয়া পাইল পুরস্কার ||
পাত্রের বচন শুনি রাজা সায় দিল |
কাঙুর মহিম হেতু পরোনা লিখিল ||
রাজা বলে শুনরে কোটাল ইন্দ্রজাল |
আন গিয়া লাউসেন ময়নার মহীপাল ||
এক দন্ড কথার বিলম্ব নাঞি সয় |
বিদায় হইল বেগে দক্ষিণ বিজয় ||
প্রণাম করিয়া শিরে বান্ধিল পরোনা |
ধাতক বিদায় হৈল দক্ষিণ ময়না ||
নৌকায় হইল পার ভৈরবীর জল |
দিবস রজনী ধায় মাহিনার বল ||
কালিনী গঙ্গার জল নাএ পার হয়্যা |
ময়না নগরে দূত উত্তরিল গিয়া ||
অযোধ্যা-সমান দেখে ময়না নগর |
চালে চালে পুরট নেতক মনোহর ||
শহরে শহরে শুধু রণতুর কাড়া |
আশি বাজার ছাড়াইল বিশাশয় পাড়া ||
বার দিয়া বস্যাছে ময়নার তপোধন |
হেন বেলা ইন্দ্রজাল দিল দরশন ||
রাজার সমুখে গিয়া প্রণাম করিল |
আগু হয়্যা রাজার পরোনা হাথে দিল ||
তিনবার লাউসেন পরোনা বন্দি শিরে |
মোহর ভাঙ্গিয়া পত্র পড়ে ধীরে ধীরে ||

.      ******************      

.                                                   
কাঙুরযাত্রা পালার পরের পৃষ্ঠায় . . .  
.                                                                      
পাতার উপরে . . .   


মিলনসাগর
১    বন্দনা  পালা     
.          
গনেশ বন্দনা    
.          
ধর্ম্ম বন্দনা    
.          
ঠাকুরাণী বন্দনা     
.          
চৈতন্য বন্দনা    
.          
সরস্বতী বন্দনা     
.          
বিপ্র বন্দনা      
.          
দিগ্ বন্দনা    
২   
আত্মকাহিনী    
৩   
স্থাপনা পালা    
৪    
আদ্য ঢেকু পালা    
.           
গজেন্দ্র মোক্ষণ    
৫    
রঞ্জার বিবাহপালা     
৬   
লুইচন্দ্র পালা     
৭   
শালেভর পালা    
৮   
লাউসেনের জন্মপালা      
.            
পরিশিষ্ট, জন্মপালা      
৯   
লাউসেন চুরিপালা    
১০
আখড়া পালা     
১১
ফলানির্মাণ পালা     
১২
মল্লবধ পালা      
১৩
বাঘজন্মপালা     
১৪
বাঘবধ পালা      
১৫
জামতি পালা      
১৬
গোলাহাটপালা      
১৭
হস্তিবধপালা      
১৮
কাঙুরযাত্রাপালা      
১৯
কলিঙ্গাবিভাপালা     
২০
লৌহগন্ডারপালা       
২১
কানড়াবিভাপালা      
২২
অনুমৃতাপালা     
২৩
ইছাইবধপালা     
২৪
অঘোরবাদলপালা     
২৫
জাগরণপালা     
২৬
স্বর্গারোহণপালা     
কাঙুরযাত্রা পালার আগের পৃষ্ঠায় . . .
রূপরামের ধর্ম্মমঙ্গল
কাঙুরযাত্রা পালা
পৃষ্ঠা -