রূপরাম চক্রবর্তীর ধর্মমঙ্গল কাব্য
কবি রূপরাম চক্রবর্তীর ধর্মমঙ্গলের পরিচিতির পাতায় . . .
রূপরামের ধর্মমঙ্গল কাব্যের সূচি
এই বাক্য শ্রবণে সম্পদ সুখ পায় |
মন দিবে অবধানে লাউসেন রায় ||
পূরবে গোউড়ে ছিল রাজা ধর্মপাল |
বড় সুখে অবনী পালিল চিরকাল ||
বল্লভা সুন্দরী সেই ভূপতির নারী |
সদা শুচি ধর্মপাল যেন ব্রহ্মচারী ||
দান ধ্যান পূজা বিনে নাই জলপান |
ভারথ পুরাণে রত সদা দ্বিজে দান ||
ব্রাহ্মণভোজন নিত্য যজ্ঞ দান পূজা |
এক দোষ অপুত্রক ধর্মপাল রাজা ||
সদাই মৃগয়া করে নাই থাকে ঘরে |
কোনদিন কাননে কৃষ্ণের পূজা করে ||
একদিন মহারাজা দৈবের কারণ |
মৃগয়া করিতে গেল বরজের বন ||
পড়িল দুন্দুভি বাদ্য বাজে উভরোলে |
বল্লভা রাণীর তরে ধর্মপাল বলে ||
আজি আমি মৃগয়া কারণে বন যাই |
ব্যাঘ্র-মৃগ-মহিষ যেখানে দেখা পাই ||
পুরুষ বনিতা ভেদ কভু নাহি শুনি |
আমার বদলে কৃষ্ণ পূজিবে আপনি ||
পুরাণ শুনিবে আজি আমার বদলে |
বসন কাঞ্চনদানা দিবে কুতূহলে ||
সকালে কৃষ্ণের পূজা সমুচিত ঠাঁই |
বিদায় হইল রাজা পড়িল তেঘাই ||
দলে বলে দেখা দিল দুর্গম কাননে |
রাজরাণী বল্লভা রহিল নিকেতনে ||
পাশায় উন্মত্ত রাণী আপনা পাসরে |
তোলা গঙ্গাজলে স্নান জলপান করে ||
পাসরিল কৃষ্ণপূজা স্বামীর বচন |
পাঁচরসে পরিপাটি করিল ভোজন ||
পুরটের পালঙ্কে বসিয়া পাশা নিল |
আচম্বিতে কৃষ্ণপূজা মরমে বাজিল ||
অচেতন ঐমনি পড়িল মহীতলে |
লঙ্ঘিলু কৃষ্ণের পূজা কি আছে কপালে ||
সখিগণে বলিল বাড়িল বড় দুখ |
এ কথা শুনিলে রাজা না দেখিব মুখ ||
স্বামীর সমুখে মিথ্যা বলিব কেমনে |
কপালে কঙ্কণ হানে করুণা বচনে ||
বল্লভা সুন্দরী কান্দে মনস্তাপ করে |
মৃগয়া করিয়া রাজা বাহড়িল ঘরে ||
জিজ্ঞাসিল আপনি রাণীর পাশে বসি |
কিবা ধনে কৃষ্ণপূজা করিলে রূপসী ||
কতক্ষণে কিবা ধনে কৃষ্ণপূজা দিলে |
কোন অধ্যা ভারথের শ্রবণ করিলে ||
ব্রাহ্মণ বৈষ্ণবে আর দান দিলে কি |
মুখ চায়্যা বাক্য বল মান্ধাতার ঝি ||
বেলা নাই আকাশে নহিল জলপান |
অনাদ্যমঙ্গল দ্বিজ রূপরাম গান ||

কান্দিতে লাগিল রামা বল্লভা যুবতী |
চরণে ধরিয়া বলে বিনয় ভারতী ||
পাসরিলু কৃষ্ণপূজা পাশার কারণে |
চরণকমলে মিথ্যা বলিব কেমনে ||
আমি বড় পাসন্ড পাতকী হৈল মন |
এহার উচিত শাস্তি দিবেক রাজন ||
ধর্মপাল বলে শুন মত্সর মাগী |
তোর পারা কেবা আছে এমন অভাগী ||
কৃষ্ণপূজা রাখিয়া উদরে অন্ন দিলে |
না দেখিব তোর মুখ ধর্মপাল বলে ||
আজ্ঞা দিল নরপতি বনবাস দিতে |
রাজার সাক্ষাতে রাণী লাগিল কান্দিতে ||
আল্যায় কবরীভার বসন বিচল |
ছলচল দুই চক্ষে বহে ধারা জল ||
রাজা বলে বল্লভা ছাড়িলু তোর আশ |
মুক্তি নাঞি তোমার চলহ বনবাস ||
দিব্য কর নৃপতি ছাড়িল রাজধানী |
সকল সংসার কান্দে গোউড় অবনী ||
কাননে পাঠাল্য রাজা পরম রূপসী |
শশিমুখী সংহতি চলিল দুই দাসী ||
দুই দাসী সঙ্গে রাণী প্রবেশিলা বনে |
অন্নজল নাই তথা ফলমূল বিনে ||
বাল্মীকের তপোবন যমুনা-নিকটে |
যেখানে আপনি কৃষ্ণ বধিল শকটে ||
যেখাবে আপনি কৃষ্ণ রাখিল বাছুর |
যেইখানে বধিলেক দুষ্ট বকাসুর ||
বাল্মীকের তপোবন যমুনা-নিয়ড়ে |
তথা রাণী কৃষ্ণপূজা  করে নিরন্তরে ||
কৃষ্ণপূজা করে রাণী সদা দিবানিশি |
মুনির আলয়ে আছে পরম তাপসী ||
অতি বৃদ্ধা ব্রাহ্মণী সকল বনে আছে  |
দাসীরূপে বল্লভা রহিল তার কাছে ||
অন্ন বিনু কাননে বিবিধ উপচার |
বিধি উপজিল যত মুনির আহার ||

.      ******************      

.                                                   
কাঙুরযাত্রা পালার পরের পৃষ্ঠায় . . .  
.                                                                      
পাতার উপরে . . .   


মিলনসাগর
১    বন্দনা  পালা     
.          
গনেশ বন্দনা    
.          
ধর্ম্ম বন্দনা    
.          
ঠাকুরাণী বন্দনা     
.          
চৈতন্য বন্দনা    
.          
সরস্বতী বন্দনা     
.          
বিপ্র বন্দনা      
.          
দিগ্ বন্দনা    
২   
আত্মকাহিনী    
৩   
স্থাপনা পালা    
৪    
আদ্য ঢেকু পালা    
.           
গজেন্দ্র মোক্ষণ    
৫    
রঞ্জার বিবাহপালা     
৬   
লুইচন্দ্র পালা     
৭   
শালেভর পালা    
৮   
লাউসেনের জন্মপালা      
.            
পরিশিষ্ট, জন্মপালা      
৯   
লাউসেন চুরিপালা    
১০
আখড়া পালা     
১১
ফলানির্মাণ পালা     
১২
মল্লবধ পালা      
১৩
বাঘজন্মপালা     
১৪
বাঘবধ পালা      
১৫
জামতি পালা      
১৬
গোলাহাটপালা      
১৭
হস্তিবধপালা      
১৮
কাঙুরযাত্রাপালা      
১৯
কলিঙ্গাবিভাপালা     
২০
লৌহগন্ডারপালা       
২১
কানড়াবিভাপালা      
২২
অনুমৃতাপালা     
২৩
ইছাইবধপালা     
২৪
অঘোরবাদলপালা     
২৫
জাগরণপালা     
২৬
স্বর্গারোহণপালা     
কাঙুরযাত্রা পালার আগের পৃষ্ঠায় . . .
রূপরামের ধর্ম্মমঙ্গল
কাঙুরযাত্রা পালা
পৃষ্ঠা -