রূপরাম চক্রবর্তীর ধর্মমঙ্গল কাব্য
কবি রূপরাম চক্রবর্তীর ধর্মমঙ্গলের পরিচিতির পাতায় . . .
রূপরামের ধর্মমঙ্গল কাব্যের সূচি
উপলক্ষ ধুমসী ভবানী রণ যুঝে |
দীঘল দশনা ঘোর ঢাল খড়্গ ভুজে ||
সংগ্রামে ঊরিল অষ্ট নায়িকা সকল |
দন্ত কড়মড়ি ঘন রসনা দীঘল ||
কার্তিকেয়ী মউরে ইন্দ্রানী ঐরাবতে |
ব্রহ্মাণী হংসের পিঠে কমন্ডুল হাথে ||
বৃষপৃষ্ঠে শিবানী ত্রিশুল শোভা করে |
গরুড়ে বৈষ্ণবী যুঝে বিপদ সাগরে ||
রক্তবস্ত্র পরিধান রক্ত লোচনা |
লল্লাটে তিলক রক্ত কেহ বিবসনা ||
কেহ বা মড়ার বুকে দিয়া ডানি পা |
কেহ মুখ তুলিয়া কুচ্ছিত কাড়ে রা ||
কেহ মানুষের মুন্ড দশ বিশ গিলে |
পতঙ্গ-বিমানে কেহ ফুক দিয়া পেলে ||
প্রেত ভূত পিশাচী পবন অবতার |
বারভূঞা রণমদ্যে বলে মার মার ||
হান হান বলিয়া বারণে বলে ভূপ |
অশ্ব হাথি রণমধ্যে পড়ে ঝুপঝুপ ||
কাটা মুন্ড মানুষের ধাওাধাই বুলে |
মালা গাঁথি ডাকিনী যুগিনী দেই গলে ||
আচম্বিতে রণমধ্যে পড়ি গেল ভঙ্গ |
রূপরাম গীত গান বিধাতার রঙ্গ ||

গুলি সব ফুরাইল শেষ হৈল রণ |
অবশেষে পালায় যতেক সেনাগণ ||
ভঙ্গ দিল কালিদাস আর গজপতি |
রাজা পাত্র গুঁড়ি গুঁড়ি তাহার সংহতি ||
পাত্র বলে সূতা ফেল রাজা গৌড়েশ্বর |
কি জানি ধুমসী দাসী পাছে বলে বর ||
এত বলি বেনাবনে গুঁড়ি গুঁড়ি যায় |
রাজা পাত্র ধাওাধাই গোউড়ে পালায় ||
ভাগ্যে পুণ্যে গেল রাজা আপনার ঘর |
ভবানী বসিলা হেথা গড়ের ভিতর ||
রণ জিনি ধুমসী মারিছে মালসাট |
না জানি কতেক হাথি রণে গেল কাট ||
পর্বতীয়া ঘোড়া সব রণে গেল হানা |
ধানুকী পড়িল রণে যার কানে সোনা ||
সিফাই পড়িল রণে কে করে অবধি |
বহিল আঠার গন্ডা রুধিরের নদী ||
রাউতের রক্তে মুন্ড ভাস্যা ভাস্যা উঠে |
দীঘি সরোবরে যেন পদ্মফুল ফুটে ||
একাকার ষোল কোশ যুগিনীর ঠাট |
ভুত প্রেত পিশাচ পাতিল গোলাহাট ||
ফিব়্যা ফিব়্যা পাক দেই পিশাচীর বেটা |
মানুষের মুন্ড ধরি কেহ খেলে ভাঁটা ||
কেহ পেলে গগনে দশনে কেহ ধরে |
কুঞ্জরের মুন্ড কেহ পেলাপেলি করে ||
ডাক ছাড়ে শুকিনি গিধিনি রক্ত খায় |
মড়া কোলে করিয়া জম্বুকী গীত গায় ||
চারি দন্ড ধুমসী দেখিল রণকলা |
সিমুলের দক্ষ গড়ে দিল মুন্ডমালা ||
ঘর যাত্যে পরম আনন্দ বড় মন |
মধ্যরণে নিলেক রণের নিদর্শন ||
ধনুকে বান্ধিয়া নিল মানুষের মুন্ড |
বাম হাথে নিলেক দাঁতাল হস্তিশুন্ড ||
সমর জিনিঞা দাসী করিল গমন |
কানড়া সমুখে গিয়া দিল দরশন ||
ডগমগি রুধির বসন বায়্যা পড়ে |
জোড়হাত করি বলে কানড়া নিয়ড়ে ||
পড়িল রাজার সৈন্য বারভূঞাগণ |
সর্দার রাউত পড়ে কে করে গমন ||
অবতীর্ণ সংগ্রামে আপনি সর্বজয়া |
দশভূজা সেইখানে দেখি আর ছায়া ||
শিবানী দেখিলু রণে আর কাত্যায়নী |
গণপতি সরস্বতী সমুদ্রনন্দিনী ||
বৈষ্ণবী গরুড়পৃষ্ঠে দেখিলু লোচনে |
নিধন রাউত সঙঘ প্রথম যৌবনে ||
নব লক্ষ নষ্ট হৈল নাই অবশেষ |
রাজা পাত্র কি জানি পালায়্যা গেল দেশ ||
সত্য বাণী বলিনু সংগ্রাম হৈল জয় |
এত শুনি কানড়া কুমারী কিছু কয় ||
দেবীর সমরে পারা মৈল প্রাণনাথ |
ঘন ঘন হানে রামা কপালে আঘাত ||
ভবানী দিলেন বর বাণী ব্যর্থ হৈল |
অকালে দেবীর রণে প্রাণনাথ মৈল ||
রাউতের কন্ধ মুন্ড আনি দেহ মোরে |
অনুমৃতা হব নদী বিমলার তীরে ||
এত বলি কান্দে রামা যায় গড়াগড়ি |
কিবা ছিল কপালে উপায় বল চেড়ী ||
না দেখিনু নয়নে কেমন প্রাণধন |
এত বলি কান্দে কন্যা করুণ বচন ||
হেনবেলা দেখা দিল গণেশজননী |
কানড়ার কাছে বসি বলেন আপনি ||
আমি তোরে বল্যাছি সেকথা নাই মনে |
যদি মৈল লাউসেন আপনি যাহ রণে ||
আমি জানি লাউসেন রণে নাহি মরে |
তবে কেন তার হেতু তোর প্রাণ ঝরে ||
তবে যদি লাউসেন যমঘর যায় |
পুনর্বার প্রাণ দিব কত বড় দায় ||
এই অভিমানে তুমি অনুমৃতা হবে |
চারিদন্ড বউ বেটী লাউসেন পাবে ||
তবে যদি লাউসেন মৈল তোর স্বামী |
কন্ধ মুন্ড আন গিয়া প্রাণ দিব আমি ||
সদাই করুণা তোর না পারি শুনিতে |
কানড়া কুমারী যায় কান্দিতে কান্দিতে ||
চলিল ধুমসী দাসী সঙ্গে গোড়াইয়া |
রণস্থলে রাজকন্যা উত্তরিল গিয়া ||
প্রলয় রুধির গঙ্গা কত ঠাঞি বয় |
তায় ভাসে মনুষ্য কুঞ্জর আর হয়
কানড়া ধুমসী খুঁজে লাউসেন রাউত
নেহালিয়া যায় যত সর্দারের সূত ||
জম্বুকীর ঘটা ঘন গাঙ্গচিল উড়ে |
বীর কালু বস্যা দেখে বাঁশডিহার গড়ে ||
জোড়হাতে বলে বীর লাউসেনের পায় |
সিমুল্যার গড় পানে চায়্যা দেখ রায় ||

.      ******************      

.                                                 
কানড়াবিভা পালার পরের পৃষ্ঠায় . . .  
.                                                                      
পাতার উপরে . . .   


মিলনসাগর
১    বন্দনা  পালা     
.          
গনেশ বন্দনা    
.          
ধর্ম্ম বন্দনা    
.          
ঠাকুরাণী বন্দনা     
.          
চৈতন্য বন্দনা    
.          
সরস্বতী বন্দনা     
.          
বিপ্র বন্দনা      
.          
দিগ্ বন্দনা    
২   
আত্মকাহিনী    
৩   
স্থাপনা পালা    
৪    
আদ্য ঢেকু পালা    
.           
গজেন্দ্র মোক্ষণ    
৫    
রঞ্জার বিবাহপালা     
৬   
লুইচন্দ্র পালা     
৭   
শালেভর পালা    
৮   
লাউসেনের জন্মপালা      
.            
পরিশিষ্ট, জন্মপালা      
৯   
লাউসেন চুরিপালা    
১০
আখড়া পালা     
১১
ফলানির্মাণ পালা     
১২
মল্লবধ পালা      
১৩
বাঘজন্মপালা     
১৪
বাঘবধ পালা      
১৫
জামতি পালা      
১৬
গোলাহাটপালা      
১৭
হস্তিবধপালা      
১৮
কাঙুরযাত্রাপালা      
১৯
কলিঙ্গাবিভাপালা     
২০
লৌহগন্ডারপালা       
২১
কানড়াবিভাপালা      
২২
অনুমৃতাপালা     
২৩
ইছাইবধপালা     
২৪
অঘোরবাদলপালা     
২৫
জাগরণপালা     
২৬
স্বর্গারোহণপালা     
কানড়াবিভা পালার আগের পৃষ্ঠায় . . .
রূপরামের ধর্ম্মমঙ্গল
কানড়াবিভা পালা
পৃষ্ঠা -