রূপরাম চক্রবর্তীর ধর্মমঙ্গল কাব্য
কবি রূপরাম চক্রবর্তীর ধর্মমঙ্গলের পরিচিতির পাতায় . . .
রূপরামের ধর্মমঙ্গল কাব্যের সূচি
তুমি আমার বয়সে বিস্তর মহাগুরু |
কি বলিব তোমারে সাক্ষাত কল্পতরু ||
সম্প্রতি দুজনে আস্য করিব পিরিত |
পরিণামে হবে তুমি সংসারে পূজিত ||
রাজটীকা আপনি কপালে পরাইব |
কাগজ বুঝিয়া ঢেকুরের কর নিব ||
তোমা দিব মাথার পাগড়ি সরবন্ধ |
সুজনের মুখে বাণী সুধা মকরন্দ ||
নিরঞ্জনের মায়া কহনে নাঞি যায় |
ধর্মের মঙ্গল দ্বিজ রূপরাম গায় ||

এত শুনি ইছা ঘোষ বলে বিপরীত |
মরণের ডরে পারা করহ পিরিত ||
তোমার রুধিরে আমি নিব রাজটীকা |
সাক্ষাত হইয়া কালি বলিল চন্ডিকা ||
ত্রিভুবনে তোর পারা না দেখি বর্বর |
কোন বেটা নিতে পারে ঢেকুরের কর ||
গৌড়েশ্বর নব লক্ষে রণে ভঙ্গ দিল |
ভবানীকে পূজা দিতে মোর মনে ছিল ||
মহাপাত্র সমরে পালাল্য হাতে হাতে |
ইন্দ্র নাঞি কথা কয় আমার সাক্ষাতে ||
আজ্ঞাকারী বসন্ত বাতাস বারমাস |
ব্রহ্মার গলায় বেটা দিতে পারি ফাঁস ||
কহিতে বলিতে তবে ইছা ঘোষ কোপে |
অম্বরে ধনুক পেলি তিন বার লোফে ||
হান হান শবদে ঝঞ্ঝনা যেন পড়ে |
বিপাক অনর্থ হৈল ঢেকুরের গড়ে ||
দুই বীর রুষিল সাক্ষাত হুতাসন |
ধনুক ধরিয়া করে টঙ্কার সঘন ||
মার মার শব্দে দুই বীর শর বিন্ধে |
তাম্রলিত লোচনে হেরিল কালনিন্দে ||
শরাসন সমুখে সঘনে শর জুড়ে |
টঙ্কার শবদ শুনি মুনি তপ এড়ে ||
তীরে তীরে অবনী আকাশ অন্ধকার |
দুজনার অঙ্গে উঠে রুধিরের ধার ||
কবচ ভেদিয়া শর ঘন পড়ে গায় |
শিঞ্জিনীর শবদ অনেক দূর যায় ||
ইন্দ্রের উপরে পড়ে ইছাইর তীর |
তরাসে দেবতা হৈল গড়ের বাহির ||
লাউসেনের পাটনে পর্বত পরাজয় |
গোয়ালা গণিল মনে জীবন সংশয় ||
উল্কাপাত পারা রণে নিকলে পাটন |
ঈশানে জলদ যেন বরিষে শ্রাবণ ||
সমান বরিষে শর দুই ধনুর্ধর |
বিষম সন্ধানে অঙ্গ হৈল জরজর ||
অকাল আগুনি শরে পড়ে ঝনঝনা |
অবতার কবচে বিষম ঠনঠনা ||
শরাসন রাখিয়া ধরিল খান্ডা ঢাল |
অমর অসুর কাঁপে অষ্ট দিগপাল ||
দুই বীরে বিস্তর বাজিল গালাগালি |
নলের সমান বটে দুই বীর ঢালী ||
মেলাপাড়া জুড়িল সমরে শঙ্কা নাঞি |
ঐমনি উতারে অসি সঙরে গোসাঞি ||
হানাহানি আকুলি বিষম পরিণাম |
সদাই বদনে শুনি জয় জয় রাম ||
বিক্রম বিশাল যেন শার্দূল কেশরী |
উড়া পাক ঘন দেই চাকের ভাঙুরি ||
তাড়াতাড়ি ঢালের উপরে চোট হানে |
অসিমুখে আগুনি নিকলে চারিপানে ||
রণমদে মাতিল সমরে নাঞি ব্যথা |
ইছাই হানিতে চায় লাউসেনের মাথা ||
ফলা ধরি লাউসেন সারিল ফলঙ্গ |
কেশরী ঝঙ্কার যেন সমুখে মাতঙ্গ ||
লম্ফ দিয়া লাউসেন ইছাএ মারে চোট |
পড়িল ইছাই-মুন্ড ভূমে যায় লোট ||
গড়াগড়ি যায় মুন্ড দৈবের বিপাকে |
কাটা মুন্ড বাসুলি রঙ্কিণী বলি ডাকে ||
শ্যামরূপা রক্ষা কর বলে ঘনে ঘন |
রণ জিন্যা বসিল ময়নার তপোধন ||
নিরঞ্জনের মায়া কহনে নাঞি যায় |
ধর্মের মঙ্গল দ্বিজ রূপরাম গায় ||

জয়দূর্গা বলি মুন্ড ডাকে উচ্চস্বরে |
ঈশ্বরী শুনিল বস্যা দেউল ভিতরে ||
দেউল হইতে দেবী রণে দরশণ |
গোয়ালার মুন্ড হাথে ধরিল তখন ||
কাটা মুন্ড হাথে কব়্যা কান্দেন ভবানী |
নয়নযুগলে ধারা স্বর্গ মন্দাকিনী ||
কন্ধের উপর মুন্ড রাখিলা যতন |
জীবন্যাস দিতে তথি বসিল জীবন ||
পুনর্বার প্রাণ যদি পাইল ইছাই |
বর মাগ ইছাই বলেন মহামাই ||
যে বর মাগিবে ইছা সেই বর দিব |
মনের বাসনা তোর সফল করিব ||
বর মাগ বর মাগ বলেন বাসুলি |
স্তব করে ইছাই সমুখে কৃতাঞ্জলি ||
জয়মুনি জগতজয়া যশোদানন্দিনী |
কংসের নিধন হেতু কৃষ্ণের ভগিনী ||
দুঃখবিনাশিনী দেবী মাগি এই বর |
কাটা মুন্ড লাগে যেন কন্ধের উপর ||
ভবানী বলেন বাপু এই বর দিল |
এত বলি শ্যামরূপা কান্দিতে লাগিল ||
কান্দিতে কান্দিতে দেবী বলে ধীরে ধীরে |
রাবণের বিপত্ত পড়িয়া গেল তোরে ||
কোন ছার বর নিলে অভয় চরণে |
নহে সতন্তর হৈতে সহস্রলোচনে ||
কান্দেন করুণামই ভক্ত করি কোলে |
তথাপি করিব রক্ষা এই রণস্থলে ||
দশ ইন্দ্রজিত একা হইল ইছাই |
দেবাসুর তরাসে পালায় ধাত্তাধাই ||

.  ******************     

.                                                 
ছাইবধ পালার পরের পৃষ্ঠায় . . .  
.                                                                      
পাতার উপরে . . .   


মিলনসাগর
১    বন্দনা  পালা     
.          
গনেশ বন্দনা    
.          
ধর্ম্ম বন্দনা    
.          
ঠাকুরাণী বন্দনা     
.          
চৈতন্য বন্দনা    
.          
সরস্বতী বন্দনা     
.          
বিপ্র বন্দনা      
.          
দিগ্ বন্দনা    
২   
আত্মকাহিনী    
৩   
স্থাপনা পালা    
৪    
আদ্য ঢেকু পালা    
.           
গজেন্দ্র মোক্ষণ    
৫    
রঞ্জার বিবাহপালা     
৬   
লুইচন্দ্র পালা     
৭   
শালেভর পালা    
৮   
লাউসেনের জন্মপালা      
.            
পরিশিষ্ট, জন্মপালা      
৯   
লাউসেন চুরিপালা    
১০
আখড়া পালা     
১১
ফলানির্মাণ পালা     
১২
মল্লবধ পালা      
১৩
বাঘজন্মপালা     
১৪
বাঘবধ পালা      
১৫
জামতি পালা      
১৬
গোলাহাটপালা      
১৭
হস্তিবধপালা      
১৮
কাঙুরযাত্রাপালা      
১৯
কলিঙ্গাবিভাপালা     
২০
লৌহগন্ডারপালা       
২১
কানড়াবিভাপালা      
২২
অনুমৃতাপালা     
২৩
ইছাইবধপালা     
২৪
অঘোরবাদলপালা     
২৫
জাগরণপালা     
২৬
স্বর্গারোহণপালা     
ছাইবধ পালার আগের পৃষ্ঠায় . . .
রূপরামের ধর্ম্মমঙ্গল
ইছাইবধ পালা
পৃষ্ঠা -