রূপরাম চক্রবর্তীর ধর্মমঙ্গল কাব্য
কবি রূপরাম চক্রবর্তীর ধর্মমঙ্গলের পরিচিতির পাতায় . . .
রূপরামের ধর্মমঙ্গল কাব্যের সূচি
বিস্তর সঙ্কটে ধর্ম্ম দিল দরশন |
চম্পক-ধরণী বনি ধর্ম্মের গাজন ||
পুরদত্ত বারুই উসতপুরে ঘর |
এখানে পূজিয়া ধর্ম্ম পাইলা পুত্রবর ||
তুমি একমনে পূজা কর নিরঞ্জন  |
তীর্থ-চূড়ামণি এই চাম্পাই ভুবন ||
তবে যদি মরে ইথে শালে দিয়া ভর |
সাক্ষাৎ আপুনি হব সেই মায়াধর  ||
পশ্চাৎ বলিব ধর্ম্মপূজার বারতা |
মনে কর সাহস কিসের মন ব্যথা ||
দূর কর জঙ্গল পূজার কর স্থল |
অল্পদিনে জানিব ধর্ম্মের বলাবল  ||
বার দিন নিয়ম বারমতী পূজাবিধি |
এহাতে অনাদ্য পাবে মনে কর যদি ||
তবে সে ত্রিলোক্যবিজয়ী হব ধ্বনি |
তপ কব়্যা এখানে মরিল কত মুনি  ||
এত শুনি রঞ্জাবতী অঝোর-নয়ান |
ইছারানা হাড়িকে ডাকিয়া দিলা পান  ||
পান-ফুল দিয়া বলে বিনয় বচন |
স্থান কর সত্বর আপনি কাট বন ||
এত শুনি ইছারানা নিল পান-ফুল |
বামদিগে বন কাটে চাম্পায়ের কূল ||
হৈতাল দরন্ত কাটে দূর করে মূল  |
শাল পেয়া-শাল কাটে কাটে আঁকড় বকুল ||
লবঙ্গ সোদালী কাটে আর বাকসোনা |
রাখিল শুখান কাষ্ঠ পোড়াতে ধুনা ||
বিশেষে বদরী কাটে খাজুর রঙ্গন |
সত্যের সমুখে রাখে তুলসীর বন ||
গর্জ্জন আসন রাখে দক্ষিণের কূল  |
কেতকী কুড়চি কাটে কদম্ব শিমূল ||
মার্জ্জনা করিলা স্থান মরকত মতি |
দেখিয়া হরিষ তবে হৈল রঞ্জাবতী ||
করুণা-সাগরে ভাসে কমলবদনী |
কহিতে লাগিল শুন সানুলা বহিনী ||
বন কাট্যা ইছারানা বান্ধিল জগদি |
যাহাকে করিব পূজা ধর্ম্ম গুণনিধি ||
কপিলার গোমঞে পবিত্র কৈলা মাটি |
তিনবার দিলেক চন্দনের ছড়া-ঝাঁটি ||
টাঙ্গল্য আলম-চান্দা করে ঝলমল  |
পরিপাটি সুন্দর পূজার কৈল স্থল  ||
চারিদিকে রাখিল পূজার আয়োজন |
রবি জবা সমান সিন্দুর আশী মণ ||
সন্ন্যাসী ভকিতা ডাকে ধর্ম্ম জয় জয়  |
রঞ্জাবতী কান্দিয়া করুণা কিছু কয় ||
স্নান কর চম্পক সমুখে চন্ডমুখী |
যার পূজা সাধিলে শঙ্কর বড় সুখী  ||
তবে যদি কার্য্য সিদ্ধ হয় কদাচিৎ  |
কানে সোনা দিব গজ-মুকুতা সহিত ||
প্রতিজনে  পরাইব পুরটের বালা |
তবে যেন দিবসে তিমির হয় আলা ||
আইস ভাই ভকিতা চম্পক নদী যাব |
জল পরশিলে পার পরলোকে পাব ||
শুন্যাছি পন্ডিত-মুখে সাক্ষাৎ সামুলা |
কত লক্ষকের সূতা হয়্যাছে হে তুলা ||
স্থল-গুণে শুন্যাছি সজাগ শাস্ত্র পড়ে  |
সেই অবতীর্ণ মায়া চম্পকের তড়ে ||
কাজ নাঞী বিলম্বে সকাল কর স্নান |
তপস্যা করিলে মহী-ধন-পুত্রবান্ ||
এত শুনি চাঁপাই চলিলা সর্ব্বজন |
রূপরাম গীত গান দৈমন্তী-নন্দন ||

অবধানে শুন সভে ধর্ম্ম ইতিহাস  |
দু-মন করিলে হয় ধনপুত্রনাশ  ||
দু-হাতে বেতের বাড়ি নাচে রঞ্জাবতী |
বিষাদ-বরনা বাদ্য বাজায় বায়তি ||
ডাল ভাঙ্গ্যা নিল হাতে হনুমান পোতা |
সামুলা আমিনী নাচে জয়পাল-সুতা ||
বাক্য পড়ে পন্ডিত ভট্ট বেদ গান |
চম্পকে করিতে স্নান রঞ্জাবতী যান ||
চাঁপাই নদীর ঘাটে দিলা দরশন  |
রায়টী পাথরে বান্ধা ঘাট বিলক্ষণ ||
পলাশের বন যেন পরিপূর্ণ পানা |
ঘাট মুক্ত আপনি কব়্যাছে ইছারানা ||




.                                                   
শালেভর পালার পরের পৃষ্ঠায় . . .  
.                                                                 
এই পাতার উপরে . . .     


মিলনসাগর
১    বন্দনা  পালা     
.          
গনেশ বন্দনা    
.          
ধর্ম্ম বন্দনা    
.          
ঠাকুরাণী বন্দনা     
.          
চৈতন্য বন্দনা    
.          
সরস্বতী বন্দনা     
.          
বিপ্র বন্দনা      
.          
দিগ্ বন্দনা    
২   
আত্মকাহিনী    
৩   
স্থাপনা পালা    
৪    
আদ্য ঢেকু পালা    
.           
গজেন্দ্র মোক্ষণ    
৫    
রঞ্জার বিবাহপালা     
৬   
লুইচন্দ্র পালা     
৭   
শালেভর পালা    
৮   
লাউসেনের জন্মপালা      
.            
পরিশিষ্ট, জন্মপালা      
৯   
লাউসেন চুরিপালা    
১০
আখড়া পালা     
১১
ফলানির্মাণ পালা     
১২
মল্লবধ পালা      
১৩
বাঘজন্মপালা     
১৪
বাঘবধ পালা      
১৫
জামতি পালা      
১৬
গোলাহাটপালা      
১৭
হস্তিবধপালা      
১৮
কাঙুরযাত্রাপালা      
১৯
কলিঙ্গাবিভাপালা     
২০
লৌহগন্ডারপালা       
২১
কানড়াবিভাপালা      
২২
অনুমৃতাপালা     
২৩
ইছাইবধপালা     
২৪
অঘোরবাদলপালা     
২৫
জাগরণপালা     
২৬
স্বর্গারোহণপালা     
রূপরামের ধর্ম্মমঙ্গল
|| শালে-ভর পালা ||
পৃষ্ঠা               
শালেভর পালার আগের পৃষ্ঠায় . . .