রূপরাম চক্রবর্তীর ধর্মমঙ্গল কাব্য
কবি রূপরাম চক্রবর্তীর ধর্মমঙ্গলের পরিচিতির পাতায় . . .
রূপরামের ধর্মমঙ্গল কাব্যের সূচি
কান্দিতে কান্দিতে দেয় ধর্ম্মের উপর |
পরাণে কাতর হয়্যা মাগে পুত্রবর ||
এক মনে শুন সভে ধর্ম্মশাস্ত্র-বাণী  |
সন্ন্যাস করিল কত রঞ্জাবতী রানী ||
তপস্যা করিতে তনু হৈল অবশেষ |
তবু না পাইল রানী ধর্ম্মের উদ্দেশ ||
কেমন দেবতা ধর্ম্ম না দেখি নয়নে |
কার্য্যসিদ্ধি না হইল চাঁপায়ের বনে ||
আমি খন্ড-কপালিনী তোমার দোষ কি |
এতদিন পোড়াইনু মাথার ধুনা ঘি ||
দশ দিন বৈ হইল কালি একাদশী |
তপস্যার দুঃখ হৈল শশী বিন্দু নিশি ||
চারিবিন্দু চক্রবাণ বুকে কৈল চুর  |
তবু দেখা নাঞী দিলা শ্রীধর্ম্ম ঠাকুর ||
নতুবা বাড়িকে চল দিয়া বিসর্জ্জন |
সদাই ভরসা মনে তোমার চরণ  ||
দুঃখ পাইল সন্ন্যাসী ভকিতা অচিরাৎ  |
কত আর মাথার উপর দিব হাত  ||
বচন বলিতে রানীর অঙ্গে নাহি বল  |
দয়া না করিলা ধর্ম্ম ভকতবৎসল ||
কোথা কো দেবতা দুরন্ত হয়্যা আছে |
কত আর করুণা করিব তব কাছে ||
তুমি বল্যাছিলে বলি চাঁপাই নদী যাবে |
অষ্টদিনে সেখানে ধর্ম্মের দেখা পাবে  ||
বল্যাছিলে আপনি সন্ন্যাস দিলা সব |
দুঃখদশা হৈল দূর তোমার গৌরব ||
ভারথে মহিনা শুনি ব্যাসের লিখন |
কো গুণে সে জন দিবেক দরশন ||
বর দিবে অনাদ্য প্রত্যয় নাঞী মনে |
ললাট-লিখিত দুঃখ না যায় খন্ডনে ||
কাতরে করণা বাণী রঞ্জাবতী কয় |
শুন্যাছে সদাই ঘরে পান্ডববিজয় ||
কত মুনি মব়্যাছে তপস্যা যার জোর  |
তথাপি ধর্ম্মের কেহ না পাইল ওর  ||
কোনখানে বৈসে ধর্ম্ম থাকে কোন ঠাঞী |
কলিযুগে একথা বলিতে কেহ নাঞী ||
কেবা দেখ্যাছিলা ধর্ম্ম কেমত আকার |
জলে না স্থলে আছে নানা অবতার ||
পস্যাতে পাবে ধর্ম্ম যোগে লেখা আছে |
কত যুগ তপস্যা করিলে পাই কাছে ||
দিন কত সন্ন্যাস করিলে সভে তুমি  |
সাত জন্ম তপ কৈল পরাণেতে শুনি  ||
আর কথা বলি রানী শুন সাবধানে |
তবে তুমি নিয়মে পূজিবে নিরঞ্জনে  ||
উতঙ্ক আমার  (? )গুরু বসিষ্ঠের বরে |
এক জন্ম হয়্যাছিল কিরাতের ঘরে ||
অনাদ্য পূজেন বলি নর্ম্মদার তীরে |
দেবতা সকল যত তাহার ভিতরে ||
বরুণ বিধাতা ইন্দ্র দেব ত্রিলোচন  |
একে একে সন্ন্যাস করিল দেবগণ ||
সকলে আসিয়া সেবে ধর্ম্মের চরণ  |
তবু নাঞী দয়া করে দেব নিরঞ্জন ||
বসুমতী ভাগীরথী জয়দূর্গা দেবী   |
সাবিত্রী আমিনী হৈল যত দেব-সেবি ||
নিয়ম ধরিয়া কত সন্ন্যাস করিল |
ধর্ম্ম দরশন তারা তবু না পাইল ||
তিনবার মরুত করিল ঘরভরা |
বর্ত্তমান দেখ ধর্ম্ম পুরাণ দেহারা ||
সীতা মন্দোদরী তারা সত্যের আমিনী |
এখানে পূজিল ধর্ম্ম দেখ্যাছি আপনি ||
সভাকার সিদ্ধ হইল মনের বাসনা |
মরুত বিধতা হৈল ইন্দ্র দিন তানা ||
সত্যে পূজা কব়্যাছিল ইন্দ্রের ইন্দ্রাণী |
গরুড়-বাহনে দেখা দিল চক্রপাণি ||
মানব দেবতা যত জীবজন্তু আছে  |
আগুনের সনে পোড়ে কেহই না বাঁচে ||
ইত্যাদি অনেক আছে নানা প্রেত ভুত |
কব়্যা দিল এ সব ধর্ম্মের যত দূত ||
অনন্ত হইতে সাধ নিত্য করি মনে |
ধর্ম্মের মহিমা যেন গাই রাত্রি দিনে ||
জলে স্থলে ধর্ম্মরাজ ধর্ম্ম বিষ্ণুময়  |
ধর্ম্মের নিয়মে বনি সর্বজন রয় ||
তুমি সত্য পূজা বনি দিলে নিরঞ্জনে |
তথাপি ধর্ম্মের দেখা না পাইল স্বপনে ||
মরুত সমান বনি তোর মন দড়  |
পতিব্রতা সতী তুমি সভা হৈতে বড়  ||
কালরূপী হল্যা হরি ফলের কারণ |
নতুবা কলুষহরা লিখে সর্ব্বজন ||
কেহ বলে শাল-কাঁটা কেহ বলে কাল  |
হিমালয়ে পূজা দিল পন্ডিত বেতাল  ||
ভূত প্রেত পিচাশ সভাই হৈল জড়  |
তোমা হৈতে মুক্তি যে পায়্যাছে সব দড়  ||
আমি বড় অভাগিনী নহ প্রতিকূল  |
নম নম বলিয়া বিস্তর দিল ফুল  ||
দন্ডবৎ অনেক করিল জেড়হাথে |
তখন সামুলা বলে রঞ্জার সাক্ষাতে ||
ভয় নাঞী অর্জ্জুনসারথি মনে কর  |
রাম কৃষ্ণ বলিয়া শালেতে দেহ ভর  ||
জগৎমন্ডলে যদি কীর্ত্তি যশ রয়   |
পরকাল অবশ্য তাহার কার্য্য হয় ||




.                                                   
শালেভর পালার পরের পৃষ্ঠায় . . .  
.                                                                 
এই পাতার উপরে . . .     


মিলনসাগর
১    বন্দনা  পালা     
.          
গনেশ বন্দনা    
.          
ধর্ম্ম বন্দনা    
.          
ঠাকুরাণী বন্দনা     
.          
চৈতন্য বন্দনা    
.          
সরস্বতী বন্দনা     
.          
বিপ্র বন্দনা      
.          
দিগ্ বন্দনা    
২   
আত্মকাহিনী    
৩   
স্থাপনা পালা    
৪    
আদ্য ঢেকু পালা    
.           
গজেন্দ্র মোক্ষণ    
৫    
রঞ্জার বিবাহপালা     
৬   
লুইচন্দ্র পালা     
৭   
শালেভর পালা    
৮   
লাউসেনের জন্মপালা      
.            
পরিশিষ্ট, জন্মপালা      
৯   
লাউসেন চুরিপালা    
১০
আখড়া পালা     
১১
ফলানির্মাণ পালা     
১২
মল্লবধ পালা      
১৩
বাঘজন্মপালা     
১৪
বাঘবধ পালা      
১৫
জামতি পালা      
১৬
গোলাহাটপালা      
১৭
হস্তিবধপালা      
১৮
কাঙুরযাত্রাপালা      
১৯
কলিঙ্গাবিভাপালা     
২০
লৌহগন্ডারপালা       
২১
কানড়াবিভাপালা      
২২
অনুমৃতাপালা     
২৩
ইছাইবধপালা     
২৪
অঘোরবাদলপালা     
২৫
জাগরণপালা     
২৬
স্বর্গারোহণপালা     
রূপরামের ধর্ম্মমঙ্গল
|| শালে-ভর পালা ||
পৃষ্ঠা               
শালেভর পালার আগের পৃষ্ঠায় . . .