রূপরাম চক্রবর্তীর ধর্মমঙ্গল কাব্য
কবি রূপরাম চক্রবর্তীর ধর্মমঙ্গলের পরিচিতির পাতায় . . .
রূপরামের ধর্মমঙ্গল কাব্যের সূচি
ঘুরে ঘুরে ঐমনি উলঙ্গ হয়্যা নাচে |
শীঘ্র অকস্মাৎ শব্দ সূর্য্যদেব কাছে ||
আকাশপাতাল মুখ দেখি লাগে ত্রাস |
রথের উপরে রবি করিতে চায় গ্রাস  ||
বাম হস্ত তুল্যা নাচে দক্ষিণ হস্ত বুকে |
দন্ত-কড়মড়ি দেই সূর্য্যের সমুখে ||
থাক থাক সকল বচনে হায় হায় |
গুড়িগুড়ি স্ত্রীহত্যা আগুএ পাছয় ||
পূর্ণরাকা সদৃশ রথের ঝলমলি |
দেখিতে দেখিতে রথ হয়্যা গেল কালি ||
চূড়ায় চামর চারু ধ্বজা উড়ে তায়  |
আচম্বিতে ঐমনি যে রথ পুড়্যা যায়  ||
কালীবর্ণ রথ হৈল ঘোড়া আর রবি  |
অরুণ সারথি হৈল জলধর সারথি  ||
শালে ভর দিয়া মৈল রানী রঞ্জাবতী |
পুত্রের কারণএ মৈল চাঁপায়ের বনে ||
তার হত্যা তূর্ণগতি আগুলিল গনে |
নৃত্য করে সমুখে তুসিয়া দুই বাহু ||
বিমা হইল কালি তামার বরণ |
অনুমান করে পারা অকালে গ্রহণ ||
মহা অন্ধকার হৈল অপরঞ্চ কি |
এসব অনর্থ করে বেণুরায়ের ঝি  ||
অরুণের বচন শুনিঞা দিবাকর |
মনঃকথা মনে মনে চিন্তিলা বিস্তর ||
পুণ্যবান্ হয়্যা যেবা পাপকর্ম্ম করে |
কলিযুগে সে পাপ আমার সাথে ধরে ||
তুমি আমার সারথি অরুণ ছোট ভাই |
কিবা কাজ বিস্তর ধর্ম্মের সভা যাই ||
কেহ কেহ ইচ্ছাসুখে মরে গঙ্গাজলে |
তাহা দেখি তরাসে বিমান নাহি চলে  ||
বিমাতা সহিত কেহ বৈসে একাসনে |
কালি-বর্ণ রথখান হয় দিনে দিনে ||
ধিক ধিক এসব বিষয়ে নাহি কাজ |
এত বলি সূর্য্য চলে ধর্ম্মের সমাজ ||
একে সূর্য্য আগুন দ্বিগুণ দুঃখ মনে |
বিমান রাখিয়া যান বৈকুন্ঠভুবনে ||
সর্ব্বতনু সচঞ্চলে সর্ব্বলোকে দেখে |
বৈকুন্ঠে বসিয়া ধর্ম্ম মনের কৌতুকে ||
সারি সারি বস্যাছে উনকোটী দেবগণ |
কোণে কম্পমান সূর্য্যদেখিলা তখন ||
ব্রহ্মাদি দেবতাগণ হইল নিশব্দ |
আপনি ঠাকুর তবে পাঠাল্য নারদ  ||
ঢেঁকী চড়্যা চলিল নারদ মুনিবর  |
দ্বিজ রূপরাম গান শ্রীরামপুরে ঘর ||

ধর্ম্মের আদেশে নারদ মহামুনি  |
মায়ারূপে আইলেন সূর্য্যের সরণি ||
বেনা গাছে জট বান্ধ্যা গড়াগড়ি যায় |
কোপে কম্পমান সূর্য্য দেখিবারে পায়  ||
সূর্য্য মনে জানিল নারদ মহামতী  |
কিমর্থে না জানি তবে এতেক দুর্গতি  ||
দ্বিতীয় অসুখ নাঞী ধূলায় ধূসর |
দুর্গতি দেখিয়া দুঃখ ভাবে দিবাকর ||
দুই দন্ড নাঞী পাল্য নারদের সাড়া |
অসুরে বান্ধ্যাছে পারা দিয়া ঝুঁটি-নাড়া ||
যেখানে সেখানে বসি ভাবেন উপায় |
দেবতা দেখিয়া পথে পড়িলা মায়ায়  ||
মরিলা নারদ মুনি হইলা নিদান |
বন্ধন করিল চুল তনু হতজ্ঞান ||
দয়া কব়্যা আপনি অঙ্গের ঝাড়ে ধুলা |
নারদ চিন্তিলা মনে কন্দলের বেলা ||
কম্পমান মহামুনি বলে ডাক দিয়া |
তপস্যা ভাঙ্গিলি বেটা কিসের লাগিয়া  ||
বেনা গাছে চুল বেন্ধ্যা আমি তপ করি |
মনে মনে জপি আমি চতুর্ভুজ হরি  ||
তোমার উপরে আমি ব্রহ্মশাপ দিব |
আমি যে ব্রাহ্মণ তাহা সংসারে জানিব ||
এ বোল বলিয়া হাথে নিল গঙ্গাজল |
সূর্য্য সবিনয় করে মরমে বিকল  ||
ব্রহ্মশাঁপ বৈ পাপ নাঞী ত্রিভুবন |
ব্রহ্মশাঁপে মৈল সব সগরনন্দন ||
কৃষ্ণের দুয়ারী জয় বিজয় কুমার |
ব্রহ্মশাঁপে অসুর হয়্যাছে তিনবার ||
তপস্বী হৈলে গোসাঞী ক্ষমা দেহ মনে |
দু-জনে হৈল প্রীতি প্রেম-আলিঙ্গনে ||
দেবতা সমুখে গিয়া দিলা দরশন |
রবি দেখি উঠিলা যতেক দেবগণ ||
আপনি চঞ্চল প্রভু অনাথের নাথ |
দিবাকর বলেন শিরেতে তুলি হাত  ||
শালে ভর দিয়া রানী রঞ্জাবতী মৈল  |
প্রাণিগন্ধ অবতীর্ণ বাসি মড়া হৈল ||
পুত্রের কারণে মৈল এই তার পণ  |
পুত্রবর দিতে চল প্রভু নিরঞ্জন ||
তিন দিন নিধন জাম্বুকে পাছে নেই  |
সামুলা সেখানে থানা নিরবধি দেই ||
চল চল আপনি বিলম্বে নাহি কাজ  |
পিতামহ সঙ্গে নেহ আর দেবরাজ ||
লহ প্রভু বিশাই কামার এত দূর  |
তবে পুত্রবর দিতে চলিলা ঠাকুর ||
বৈকুন্ঠ রাখিয়া ধর্ম্ম চলিল চাঁপাই |
সুবর্ণ বিমানে বসি যান ধাত্তাধাই ||
পুত্রবর দিতে বড় হইল অভিলাষ |
দেখা দিলা উত্সপুরে রাখিলা আকাশ ||
উত্সপুর দেখিয়া চাঁপায়ে রথ যায়  |
কত গন্ডা কাঞ্চনকিঙ্কিণী বাজে তায়  ||
রুনুঝুনু রথখান পরিপূর্ণ বোলে |
মন্দমন্দ আপনি ধর্ম্মের রথ চলে ||
হেন বেলা ব্রাহ্মণ দরিদ্র মনোহর |
বড় অপমান পাইল সাত ভায়্যার ঘর ||
ব্রহ্মহত্যা ধর্ম্মের উপরে দিতে চায়  |
রথে বস্যা ধর্ম্মরাজ দেখিবারে পায়  ||
এক মহাপাতকে বলিতে নাহি স্থল |
ব্রহ্মহত্যা দিবি কেন তার কথা বল ||
কান্দিতে কান্দিতে দ্বিজ মনোহর কয়  |
সারাদিন ভিক্ষা মাগি তবু নাহি হয় ||
সাত ভায়্যার ঘরে বড় পাইনু অপমান  |
ভিক্ষা নাহি দিল ভাগ্যে এড়ানু পরাণ ||




.                                                   
শালেভর পালার পরের পৃষ্ঠায় . . .  
.                                                                 
এই পাতার উপরে . . .     


মিলনসাগর
১    বন্দনা  পালা     
.          
গনেশ বন্দনা    
.          
ধর্ম্ম বন্দনা    
.          
ঠাকুরাণী বন্দনা     
.          
চৈতন্য বন্দনা    
.          
সরস্বতী বন্দনা     
.          
বিপ্র বন্দনা      
.          
দিগ্ বন্দনা    
২   
আত্মকাহিনী    
৩   
স্থাপনা পালা    
৪    
আদ্য ঢেকু পালা    
.           
গজেন্দ্র মোক্ষণ    
৫    
রঞ্জার বিবাহপালা     
৬   
লুইচন্দ্র পালা     
৭   
শালেভর পালা    
৮   
লাউসেনের জন্মপালা      
.            
পরিশিষ্ট, জন্মপালা      
৯   
লাউসেন চুরিপালা    
১০
আখড়া পালা     
১১
ফলানির্মাণ পালা     
১২
মল্লবধ পালা      
১৩
বাঘজন্মপালা     
১৪
বাঘবধ পালা      
১৫
জামতি পালা      
১৬
গোলাহাটপালা      
১৭
হস্তিবধপালা      
১৮
কাঙুরযাত্রাপালা      
১৯
কলিঙ্গাবিভাপালা     
২০
লৌহগন্ডারপালা       
২১
কানড়াবিভাপালা      
২২
অনুমৃতাপালা     
২৩
ইছাইবধপালা     
২৪
অঘোরবাদলপালা     
২৫
জাগরণপালা     
২৬
স্বর্গারোহণপালা     
রূপরামের ধর্ম্মমঙ্গল
|| শালে-ভর পালা ||
পৃষ্ঠা               
শালেভর পালার আগের পৃষ্ঠায় . . .