রূপরাম চক্রবর্তীর ধর্মমঙ্গল কাব্য
কবি রূপরাম চক্রবর্তীর ধর্মমঙ্গলের পরিচিতির পাতায় . . .
রূপরামের ধর্মমঙ্গল কাব্যের সূচি
তাহার দক্ষিণে লেখা আছে পক্ষগণ |
সারস কোকিলী কাক খঞ্জনী খঞ্জন ||
চটকা চটকী ফিঙ্গা ডাহুকা টেঠারী |
কৃষ্ণবর্ণ রাতুলবরণ সারি সারি ||
ধাতুকা ধাতুকী চিল রঘু কালমুখী |
আড়াই বুড়ি ডিম কোলে ফুকরে ডাহুকী ||
সরল করল কাক মণিময় ভাষা |
দল-পিপী ডাকে দলবনে তার বাসা ||
গোদা ভারুই গগনে গোবিন্দগুণ গায়
ধাগা ভারুই উড়ি উড়ি ধুলায় লোটায়
বাদুড় তপস্যা করে ঊর্দ্ধ দুই পা
ময়ূর পেখম ধরে পাইয়া মেঘ-রা
খয়রা খুঙ্গুর লেখা আছে বুড়ি ছয়
রায়মুনি শালকি ভারত-কথা কয় || ]
নানা আভরণ অঙ্গে করে ঝলমলি |
কৌতুকে পরিল রঞ্জা অপূর্ব্ব কাঁচলি ||
অপূর্ব্ব কাঁচলিখানি হাসিয়া পরিল  |
কল্যানী মানিকী দেখি বিস্ময় হইল  ||
বিদ্যাধরী নাচন নাচিতে যেন চায়  |
সেইরূপে বাসঘরে চলে পায় পায় ||
জলঝারি হাতে পাছু গোড়াইল দাসী |
পানের সাঁপুড়া নিল মূর্ত্তিমান্ শশী ||
বড় সাধে শয়ন করিতে রামা যান  |
সহিতে না পারে আর মদনের বান ||
কুঞ্জরসমান চলে চরণে চরণে |
চলিল পবন বেগে স্বামী দরশনে ||
পানের সাঁপুড়া রানী বাড়াইয়া রাখে |
কপাট আড়াল দিয়া দুয়ারে বস্যা  দেখে ||
জীবন অধিক জ্বলে রতনের বাতি |
পতঙ্গ-উদয় যেন দুই যাম রাতি ||
পরম আনন্দ বড় রঞ্জাবতী মনে |
এক দন্ড বসিয়া স্বামীর বিদ্যমানে ||
কিবা জানি মায়ানিদ্রা যায় অচেতন  |
শিয়রে বসিয়া রামা ভাবে মনে মন ||
ঈষৎ ইঙ্গিত জানে অন্য মত আর |
নিরীক্ষণ সুন্দরী করিল তিনবার ||
মনে করে মব়্যাছে ময়নার তপোধন |
সূতার সঞ্চার বয় নাসার পবন  ||
মায়া অনুবব্ধ কৈল নূপুরের সাড়া |
বার চারি নাড়ে চাড়ে পানের সাঁপুড়া ||
ঝনঝন কঙ্কণ ঝঙ্কারে দুই কানে |
কত কলা চাতুরী চঞ্চল হল্য প্রাণে ||
গায়ে পদ্মহস্ত রানী ঈষৎ বুলায় |
গা তোল গা তোল বলি স্বামীকে চিয়ায় ||
পান হাতে কব়্যা রানী মুখপানে চায় |
কানে কানে ডাক্যে বলে গুয়াপান খাও ||
বদনে তাম্বুল দিয়্যা বলে খাও খাও |
রঞ্জার মাথাটি খায়্যা চক্ষু মেলি চাও ||
খাইয়া লাজের মাথা হাথে ধরে তোলে |
আকাশের পাথর পড়িতে যেন গলে ||
আপনার মনে রাজা ঐমনি ঘুমায়  |
গা তোল গা তোল বলি স্বামীকে চিয়ায় ||
গায়ে দিল কস্তুরী চন্দন কুম্ কুম |
কদাচিৎ নাহি ভাঙ্গে বুড়া রাজার ঘুম ||
বাসঘরে রঞ্জাবতী দিল দরশন |
দ্বিজ রূপরাম গান দৈমন্তীনন্দন ||

বাসঘরে রঞ্জাবতী দিল দরশন |
দূরে হৈতে স্বামী দেখে যেন নারায়ণ ||
খল খল হাসেন ঘরের শোভা দেখি |
গৌরব পাইল বড় কল্যাণী মানিকী  ||
ধৈরজ ধরিতে নারে স্বামীকে দেখিয়া |
আগু হল্য রঞ্জাবতী ঈষৎ হাসিয়া ||
হরষিত হয়্যা রানী অঙ্গে দিলা হাত |
নয়ান ভরিয়া রানী দেখে প্রাণনাথ  ||
গঙ্গার জীবন দিল বদনকমলে |
না দেহ উত্তর কেন ঘন ঘন বলে ||
ভ্রমর ঝঙ্কারে গায় সহা নাঞী যায় |
দুজনে খেলিব পাশা উঠে বস রায়  ||
নিদ্রায় অবশ হয়্যা নাঞী পরিজ্ঞান |
রাণী বলে রাজা মোর জীবন পরাণ  ||
কল্যাণী মানিকী দাসী এস্যা দিল দেখা |
হরি হরি বিধাতা কপালে এই লেখা ||
কল্যাণী মানিকী কোথা বিষ দেও খাই |
বাসঘরে স্বামীর সঙ্গে যমঘরে যাই ||
কোন লাজে সকালে দেখাব আর মুখ  |
ভাগ্যহীন জনার কোথাও নাঞী সুখ  ||
নাসহে বিলম্বে আর বিধাতার জো |
রাত্রি পোহাইলে আর নাঞী হব পো ||
বল গো প্রাণের দাসী কি হবে ঊপায় |
পবনপয়ান নিশি পোহাইয়া যায় ||
আমি যদি এই বেশে বাসরে বঞ্চিত |
তবে পুত্র কোলে মোর হব কদাচিত ||
এত বলি ঘন ঘন ঘর-বারি করে |
পুনরপি বৈসে গিয়া স্বামীর শিয়রে ||
ক্রোধে রানী বলে রাজা [ রাতি ]  পার হল্য |
যতেক মনের আশা বিফল হইল  ||
পতি বিনে গতি নাঞী রাজ্য বিনা রাজা |
বিদ্যা বিনা ব্রাহ্মণের নাঞী কভু পূজা ||
বিদগধ সুন্দরী বহুত দুঃখ মনে |
লজ্জা খায়্যা স্বামীকে চিয়ায় প্রাণপণে ||
নিবেদন করি রাজা তুমি শুন নাঞী  |
কানে কানে ডাক্যা বলে গা তোল গোসাঞী ||




.                                             
লাউসেন-জন্ম পালার পরের পৃষ্ঠায় . . .  
.                                                                 
এই পাতার উপরে . . .     


মিলনসাগর
১    বন্দনা  পালা     
.          
গনেশ বন্দনা    
.          
ধর্ম্ম বন্দনা    
.          
ঠাকুরাণী বন্দনা     
.          
চৈতন্য বন্দনা    
.          
সরস্বতী বন্দনা     
.          
বিপ্র বন্দনা      
.          
দিগ্ বন্দনা    
২   
আত্মকাহিনী    
৩   
স্থাপনা পালা    
৪    
আদ্য ঢেকু পালা    
.           
গজেন্দ্র মোক্ষণ    
৫    
রঞ্জার বিবাহপালা     
৬   
লুইচন্দ্র পালা     
৭   
শালেভর পালা    
৮   
লাউসেনের জন্মপালা      
.            
পরিশিষ্ট, জন্মপালা      
৯   
লাউসেন চুরিপালা    
১০
আখড়া পালা     
১১
ফলানির্মাণ পালা     
১২
মল্লবধ পালা      
১৩
বাঘজন্মপালা     
১৪
বাঘবধ পালা      
১৫
জামতি পালা      
১৬
গোলাহাটপালা      
১৭
হস্তিবধপালা      
১৮
কাঙুরযাত্রাপালা      
১৯
কলিঙ্গাবিভাপালা     
২০
লৌহগন্ডারপালা       
২১
কানড়াবিভাপালা      
২২
অনুমৃতাপালা     
২৩
ইছাইবধপালা     
২৪
অঘোরবাদলপালা     
২৫
জাগরণপালা     
২৬
স্বর্গারোহণপালা     
লাউসেন-জন্ম পালার আগের পৃষ্ঠায় . . .
রূপরামের ধর্ম্মমঙ্গল
||   লাউসেন-জন্ম পালা ||
পৃষ্ঠা