কবি হাসনে আরা সিরাজ – জন্মগ্রহণ করেন মুর্শিদাবাদের লালবাগ শহরে। তাঁর পৈতৃক ভিটে ছিল
গোকর্ণে।

শৈশব থেকেই হাসনে আরা সিরাজের সাহিত্য ও সংস্কৃতির প্রতি আগ্রহ ছিল। ১৯৫৬ সালের জুন মাসে,
প্রখ্যাত সাহিত্যিক সৈয়দ মুজতবা সিরাজের সঙ্গে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হবার পরে তিনি কাব্যচর্চার দিকে
বেশী আগ্রহী হয়ে পড়েন। অন্যান্য পত্র-পত্রিকা সহ সেই সময়কার দৈনিক পত্রিকা “স্বধীনতা”র ছোটদের
বিভাগে তাঁর কবিতা প্রকাশিত হয়। তিনি যুগান্তর পত্রিকায় “হাসনুহেনা” নামে ফীচার লিখতেন।
“নবকল্লোল”, “অমৃত” প্রভৃতি কলকাতার বিভিন্ন পত্র-পত্রিকাতেও তাঁর কবিতা নিয়মিত প্রকাশিত হয়েছে।

তাঁর প্রকাশিত কাব্যগ্রন্থের মধ্যে রয়েছে “লাল শিমুলের দিন”।

৪ঠা সেপ্টেম্বর ২০১২ তারিখে স্বামী সৈয়দ মুজতবা সিরাজের পরলোক গমনের পর থেকেই তিনি অসুস্থ হয়ে
পড়েছিলেন। বেঁচে থাকার আগ্রহই ক্রমশঃ তিনি হারিয়ে ফেলছিলেন স্বামীশোকে। শেষ পর্যন্ত স্বামীর মৃত্যুর
মাত্র ন’মাসের মধ্যেই তিনি ইহলোক ত্যাগ করেন চিত্তরঞ্জন ন্যাশনাল মেডিক্যাল কলেজে।
তাঁকে মুর্শিদাবাদের খোশবাসপুরে, তাঁর স্বামী সৈয়দ মুজতবা সিরাজের সমাধির পাশেই সমাহিত করা হয়।

আমরা প্রধানত "প্রগতি" ও "নবকল্লোল"-এর বিভিন্ন সংখ্যা থেকে এই কবিতাগুলি সংগ্রহ করেছি।  
মিলনসাগরে  কবি হাসনে আরা  সিরাজের  কবিতা তুলে আগামী প্রজন্মের কাছে পৌঁছে দিতে পারলে এই
প্রচেষ্টার সার্থকতা।

উত্স – শেখ মহম্মদ আলী, সম্পাদক “প্রগতি” পত্রিকা, ৫২ তম বর্ষ।
.        সৌমিত্র দস্তিদার, সমান্তরাল, হাসনে আরা সিরাজ।


কবি হাসনে আরা সিরাজের মূল পাতায় যেতে এখানে ক্লিক করুন।            

আমাদের ই-মেল -
srimilansengupta@yahoo.co.in     

এই পাতার প্রথম প্রকাশ - ৩০.০৮.২০১৩
...