জনগণতান্ত্রিক কবিতার ইশতেহার : সাত    
জয়দেব বসু

গন্ধক মাখানো শব্দ :  
প্রথমে দাঁড়াও শূন্যে         
উড়ন্ত গালিচা থেকে
লুয়ান্ডা শহর জুড়ে অ

সংসদবিরোধী শব্দ :
ছেড়োনা আমার হাত
মুম্বই শহরের বোবা
তাদের বেষ্টন করে জে

আক্রান্ত মরীয়া শব্দ :
কমরেডদের কষ্ট দাও

.                ******************     
.                                                                                                   
সুচিতে...   


মিলনসাগর
কবি জয়দেব বসুর কবিতা
যে কোন গানের উপর ক্লিক করলেই সেই গানটি আপনার সামনে চলে আসবে।
*
রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর, শ্রদ্ধাস্পদেষু---    
জয়দেব বসু



আমার            
.                   
আমি              

.                   
যে                 
সে তো            

.                   
আমি              


.           ******************     
.                                                                                   
সুচিতে...   


মিলনসাগর
*
জয়দেব বসুকে সফদর হাশমির চিঠি    
জয়দেব বসু

যে দেশে থাক সেখানে
কুয়াশা হয়, লিখেছ তা
লিখেছ, কেন জলের ফোঁ
পড়লে হয় আগুনবিক্রি
ফলে এবার হিরন্ময় শী
নষ্ট হল কারণহীন কাজে

লিখেছ, কেন নিন্দুকের
বিষলালায় সিক্ত হয়ে থা
কীভাবে, পথে বেরিয়ে
অতর্কিতে কামড়ে ধরে
ফলে এবার কাজপাগল
নষ্ট হল মনের পক্ষাঘাতে

ঠোঁটের পাতা অল্প মেলে
তৈরি করে নগর-মহান
সান্ত্রী যার প্রতিটি ইন্দ্রি
কেমন আছে শরীর-মন

লেখনি কিছু তেমন ইতি
লেখনি, কোনো মানুষ

.          ******************     
.                                                                                   
সুচিতে...   


মিলনসাগর
*

.                      ******************     
.                                                                                                   
সুচিতে...   


মিলনসাগর
*
*

ভালোই তো হয়, বদলে গদীর গা
চুমকি বসানো কিংখাব যায় ঢেকে

এবং পুরাণে সোনার আখরে নাম,
ছেলেমেয়ে যাতে এরকম হতে শেখে

শেখে অনেকেই, শেখেওনা কেউ-কেউ
দূর থেকে ঠোকে ভালোমান্ ষিকে পেন্নাম

রাজার পড়োশী হতে চান যিনি আজ
আমাদের সেই দালালের প্রতি ঘেন্না  |

.             ******************     
.                                                                                
সুচিতে...   


মিলনসাগর
জনগণতান্ত্রিক কবিতার ইশতেহার : এক    
জয়দেব বসু
কাব্য হোক, চাঁদ আর মেয়েদের কলস্বরে ভরে গেছে এপার বঙ্গাল ;
কবিদের চরিত্র তো সর্বলোকে জানে, আর তাদের কথায় ভুলে
. দেখি চাঁদ বা মেয়ের দিকে ফাঁক পেলে আরেঠারে চান |
.ভাবে কবিতা বানানো যাক--- এসো, লেখাপড়া করো,
.খার দু’বছর পোস্টার সেঁটে নেওয়া ভালো,
মের ফলে বিষয় মজবুত হয়----- এবং,সমান ভালো
, জল তোলা, মানুষের কাছাকাছি থাকা |
র থেকে বিশল্যকরণী আর কিছুই নেই কবির জীবনে, আমি
. থেকে  এই পরামর্শ দিয়ে যেতে পারি |
কাব্য করো, বুদ্ধিমান রকবাজ কবিতা বানাও,
পাকস্থলী সেরকম দুর্বল হলে মুখ বুজে সহ্য করো সব,
উপেক্ষার শীতঝড়, নেতাদের উপদেশবাণী,
চেপে থাকো, সহৃদয়-বুদ্ধিমান হও, তবু
রোনা সেই কথামৃত | মার্কস পড়ো, সাংখ্যও পড়ো,
দের মত সরিয়ে রেখোনা পাশে হিমেনেথ, তবু
ন কোরো প্লাতেরোর নাম | ঐ আগামী শতক থেকে
ছে টাটকা তরুণ, তুমি এইভাবে কবিতা লিখবে ?
মুখুজ্যের প্রতি    
জয়দেব বসু