কবি কালীকৃষ্ণ গুহর কবিতা
যে কোন গানের উপর ক্লিক করলেই সেই গানটি আপনার সামনে চলে আসবে।

অথচ আমাদের মধ্য থেকে একজন হঠাৎ গন্ডার হয়ে গেলো এক সকালে
ব্যাপারটা বুঝতে চেষ্টা ক’রতে ক’রতে আরও একজন অবিশ্বাস্যভাবে
গন্ডার হ’য়ে গেলো |
তারপর আরও একজন, আরো আরও আরও একজন, তারপর অসংখ্য
আমাদের পরিচিত মাষ্টারমশাই, অধিকর্তা, নেতা, সম্পাদক, দার্শনিক, কবি,
বেশ্যা, উকিল গন্ডার হ’য়ে গেল |

আমরা হাহাকার ক’রে উঠলুম, আর হাহাকার ক’রতে ক’রতে লক্ষ্য করলুম
আমাদের গলার স্বর দ্রুত কর্কশ ও জান্তব হ’য়ে উঠেছে, আর ক্রমশই
অসম্ভব ভারী হ’য়ে উঠছে শরীর--------

.                   ******************     
.                                                                                                
সুচিতে...   


মিলনসাগর
*
আমাদের অভিজ্ঞতা কালো দিনগুলির সঙ্গে মিশে থেকেছে বারবার----
আমরা কোলাহল করে উঠেছি কিন্তু কথা বলতে পারিনি একটিও |

আমাদের পাপপুণ্যহীন জীবন এভাবেই কেটে গেছে, রাস্তায়, যৌনতার
.                   বোধে, শব্দ খুঁজে, হিমে, শীতের সন্ধ্যায় |

.                     ******************     
.                                                                                                
সুচিতে...   


মিলনসাগর
*

.                 ******************     
.                                                                                                
সুচিতে...   


মিলনসাগর
*
গন্ডার       
কালীকৃষ্ণ গুহ
(ইউজেন আইওনেস্কোর রাইনোসেরাস নাটকটি মনে রেখে)
উ গন্ডার হ’তে চাই নি |
কিছু বুঝতে চেষ্টা করেছি---- ব্যবহার করেছি পরিচ্ছন্ন যুক্তি এবং জ্ঞান |
ভ্যতা কে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার জন্য আমরা মেধা এবং
ধ ব্যবহার করেছি |
র হ’য়ে এসেছি হিমযুগ, প্রস্তর যুগ,
শব্দ খুঁজে, হিমে       
কালীকৃষ্ণ গুহ
একদল বধির মানুষ       
কালীকৃষ্ণ গুহ
’য়ে এলে কিছুই আর করার থাকে না আমার |
একা হাঁটি, আর বুঝতে চেষ্টা করি, মানুষের কোলাহল
.                                কোন্ শূন্যতার সঙ্গে মিশে থাকে |
পাশে যতো ধূলো ওড়ে, যত পাপ কোন্
র সঙ্গে মিশে থাকে |

ন সন্ধ্যা ঘনিয়ে এলো, দেখলুম, কার্জন পার্কে
.                                                শূন্যে হাত মেলে
ক’রে উঠছে একদল বধির মানুষ |