কবি অমর পোদ্দার এর সিঙ্গুর-নন্দীগ্রামের কবিতা
যে কোন কবিতার উপর ক্লিক করলেই সেই কবিতাটি আপনার সামনে চলে আসবে।   www.milansagar.com
১।  নন্দীগ্রাম        
২।  
মার্ক্সবাদীর আড়ালে          
৩।  
শিল্পায়ন      
৪।  
ঘোড়ার ডিম                       
৫।  
দিকালের বাদ্যি   
৬।  
ড়াই এখন     
৭।  
গণতন্ত্র             
৮।  
নাকে দাও খৎ        
৯।  
মারতে এলে            
১০।
তেংশিয়াপিং-র নাতি      
১১।
উচ্ছেদ     
১২।
চিমটি         
             
*
চিমটি

১)
কাকে বলে গণ আর কাকে বলে তন্ত্র
বুদ্ধের কাছে যাও পাবে তার মন্ত্র
ধনিক বনিক সেবা তার পায়ে হাত
সেবাদাস না হলে মিলবে না ভাত ?

২)
আইন দিয়ে বাঁধবো তোদের
পুলিশ দিয়ে গুলি
আইন মেনে এসব হবে
ঘুঁচিয়ে দেবো
মাওবাদের বুলি
যা বলছি শুনতে হবে
চোখে পর ঠুলি

৩)
গণতন্ত্র পুঁজির হাতে মোওয়া
পুলিশ তার রক্ষাকর্তা
যায়না যেন খোওয়া
গরীবের ক্ষমতা কি
পাবে তার ছোওয়া
তার জন্য আর কি চাই
খাবে শুধু হাওয়া
হাওয়া খেয়ে স্বর্গে যাবে
স্বর্গে খাবে মোওয়া |

.     **************    
.                                                                    
উপরে
.                                         অন্যান্য কবিদের সূচির পাতায়
.                        সিঙ্গুর নন্দীগ্রামের কবিতার মূল সুচির পাতায়

মিলনসাগর
[ একটি অনুরোধ - এই সাইট থেকে আপনার ব্ লগ্ বা সাইটে, আমাদের কোন লেখা, কবিতা
বা তার অংশবিশেষ নিলে, আমাদের মূল পাতা
http://www.milansagar.com/index.html
দয়া করে একটি ফিরতি লিঙ্ক দেবেন আপনার ব্ লগ্  বা সাইট থেকে, ধন্যবাদ ! ]
রাডিক্যাল পাবলিকেশান দ্বারা বইমেলা ২০০৭ এ প্রকাশিত, "সিঙ্গুর থেকে নন্দীগ্রাম"
কাব্যগ্রন্থ থেকে কবির কয়েকটি কবিতা এখানে আমদের সংগ্রহে তুলে রেখেছি |
*
মার্ক্সবাদীর আড়ালে     

হুমকি ধমকি
.        যতই দেখাও
দেখাও দলবল
.        মাপা তোদের হয়েই গেছে
কোথায় গ্যাঁড়াকল
.        গ্যাঁড়াকলে মানুষ ভজাও
দেখাও খুড়োর কল
.        দিনের পরে দিন চলে যায়
পায় না হাতে ফল
.        ফলটা জানাই আছে
মিথ্যের কোলাহল
.        মিথ্যের ছলে ঢেকে রাখো
আমজনতার বল
.        মিথ্যে দিয়ে সত্য ঢাকা
চলে কত দিন
.        শ্রেণী লড়াইয়ে ধরা পড়ে
মিথ্যে কত হীন
.        ৬৭-এর নকশালবাড়ি
দেখিয়ে দিল ঠিক
.         কোথায় কার লক্ষ
কোথায় কার দিক
.         শোধনবাদীর চেহারাটা
ভাঙ্গল হাটে হাড়ি
.         গুলির তোড়ে মেরে দিল
পাঁচ কৃষক রমণী
.         মার্ক্সবাদীর আড়ালে
শোষক শ্রেণীর ঢালী
.         প্রমাণ তার মিলছে আজও
মাখাও ওদের মুখে কালি
.         মিথ্যে দিয়ে সত্য ঢাকা
সত্যের নেই ভয়
.         মরিচঝাপি, সিঙ্গুর হয়ে
নন্দীগ্রামে, কারা হচ্ছে ক্ষয়
.         ক্ষয়ে ক্ষয়ে ভরে যাবে
ভয় কাটিয়ে শোষিতরা
.         আনবে তারই জয় |


.       **************                                       
উপরে
.                              অন্যান্য কবিদের সূচির পাতায়
.              সিঙ্গুর নন্দীগ্রামের কবিতার মূল সুচির পাতায়

মিলনসাগর
*
শিল্পায়ন    

শিল্পায়ন নয় কথার কথা
.         আনতে হবে তাকে
দিতে হবে চাষের জমি
.         যখন যা তার লাগে
নারাজ হলে চলবে না
.         মানতে হবে দাবী
টাটার জন্য সিঙ্গুর চাই
.         ভাঙর সালেমের
জিন্দালেরও জমি চাই
.         লাগবে আরও ঢের
চাষের জমি চলে যাবে
.         রুজি যাবে মরে
ওসব ভাবলে চলবে কি আর
.         শিল্প আসবে ঘরে?
গরীব, গরীব অনের হলো
.         আরতো গরীবের নয়
দেশের কথা ভাবতে হবে
.         শিল্পায়নের জয় |

.       **************                                        
উপরে
.                                অন্যান্য কবিদের সূচির পাতায়
.               সিঙ্গুর নন্দীগ্রামের কবিতার মূল সুচির পাতায়

মিলনসাগর
*
ঘোড়ার ডিম     

হাট টিমা টিম টিম
.           চাষের জমি কেড়ে নিয়ে
পাড়ায় ঘোড়ার ডিম
.           ডিমে হচ্ছে তা
বুদ্ধ বিমান উঠে বলে
.           বাঃ বাঃ বাঃ
বাঃ-এর তায়ে বেরুল এক ছাঁ
.           বুদ্ধ বিমান তল্পী গোটায়
হয়ে যায় ধাঁ
.           আমজনতা তেড়ে ওঠে
বাগিয়ে তারা লাঠি
.           পেছু পেছু ধাওয়া করে
ভাঙতে ওদের-ঘাঁটি |

.       **************         
.                                                           
উপরে
.                                অন্যান্য কবিদের সূচির পাতায়
.               সিঙ্গুর নন্দীগ্রামের কবিতার মূল সুচির পাতায়
   
মিলনসাগর
*
আদিকালের বাদ্যি     

আদিকালের বাদ্যি বাজায়
.                বাধায় গণ্ডগোল
চাষী ক্ষেপায়
.                মজুর ক্ষেপায়
গড়ে আন্দোলন
.                আসল কথা বুঝবে কবে
নিজের আগে চাই
.                ঢাক বাজিয়ে পরের জন্য
কোন লাভ নাই
.                লাভের গুড় পিঁপড়ে খাবে
পরবে পাতে ছাই |

.       **************    
.                                                          
উপরে
.                               অন্যান্য কবিদের সূচির পাতায়
.              সিঙ্গুর নন্দীগ্রামের কবিতার মূল সুচির পাতায়

মিলনসাগর
*
লড়াই এখন     

জাগছে কৃষক ছুটছে লড়াই
সিঙ্গুর হয়ে নন্দীগ্রামে
কাটছে মোহ ফুটছে মানুষ
উঠছে লড়াই ডানে বামে
ছুটছে জীবন গ্রামে গ্রামে
উঠছে লড়াই ভাঙছে শোষন দুর্গটাকে
হটতে নারাজ মিষ্টি কথায়
মানতে নারাজ শোষন শাসন যন্ত্রটাকে
বদলা এবার ফিরিয়ে দিতে
তৈরী মানুষ ফন্দি আঁটে
চলছে না আর জারিজুরি
বেইমানী আর দুষমনীর ভাঙছে হাঁড়ি হাটে
জান কবুল আর মান কবুল
লড়াই এখন ব্যরিকেড আর মাঠে ঘাটে |

.            **************                                              
উপরে
.                                          অন্যান্য কবিদের সূচির পাতায়
.                         সিঙ্গুর নন্দীগ্রামের কবিতার মূল সুচির পাতায়

মিলনসাগর
*
গণতন্ত্র     

.     (১)
আজব গুজব নয়তো বাবা
.           যা পাবি তাই খা
না পেলেও বলতে হবে
.           বাঃ বাঃ বাঃ

.     (২)
সর্ষের মধ্যে ভুতের বাসা
.        বোম্ বোমা বোম
গণতন্ত্রের ওম্
.        গাঁজায় টেনে দম
দম দমে দেখতে পাবে
.        দেশের উন্নয়ন |

.            **************                                              
উপরে
.                                          অন্যান্য কবিদের সূচির পাতায়
.                         সিঙ্গুর নন্দীগ্রামের কবিতার মূল সুচির পাতায়

মিলনসাগর
*
নাকে দাও খৎ     

শিল্পায়নের চাবি কাঠি
.            টাটার জন্য জমি
সালেমকেও দিতে হবে
.            যা হবে তার দাবী
এমন করেই এগিয়ে যাবে
.            উন্নয়নের রথ
বেকাররা আকার পাবে
.            পাবে চলার পথ
একর একর চাষের জমি
.            লক্ষ চাষার ঘর
ভাঙ্গে ভাঙ্গুক
.            শিল্প আসুক
শিল্পায়নের বর
.            তারই জন্য তৈরী হও
নাকে দাও খৎ
.             শিল্প ভবিষ্যত
লক্ষ টাকায় টাটার গাড়ী
.             কিনবে চাষি ভাই
শিল্পায়নে ভাত না জুটুক
.             আরামটাতো চাই

.            **************      
.                                                                     
উপরে
.                                          অন্যান্য কবিদের সূচির পাতায়
.                         সিঙ্গুর নন্দীগ্রামের কবিতার মূল সুচির পাতায়

মিলনসাগর
*
মারতে এলে     

মারতে এলে মরতে হবে
কেউ পাবে না পাড়
দিকে দিকে অস্ত্রে তাই
দিচ্ছে সবাই ধার
পাল্টা মারে বুঝবে ঠেলা
জনগণের ঝাড়
গুঠিয়ে খাবে কুটকচালী
ভাঙবে বুকের হাড়
এমন দালালী করলি তোরা
হাড়ি ভাঙলো হাটে
শয়তানী কি যখন তখন
সবখানেতে খাটে?

.     **************     
.                                                                     
উপরে
.                                          অন্যান্য কবিদের সূচির পাতায়
.                         সিঙ্গুর নন্দীগ্রামের কবিতার মূল সুচির পাতায়

মিলনসাগর
*
তেংশিয়াপিং-র নাতি     

খুশ্চেভের দোসর যারা
তেংশিয়ায়ের নাতি
মার্কিনীদের দালালিতে
বাড়ছে এদের খ্যাতি
সাইন বোর্ডে মার্ক্সবাদী
শোষক শ্রেণীর ঢালি
পুঁজিপতির জুতো বয়
করে গোলামী
থুথু চাটে ওদের ওরাই
কেউ কি আছে জুড়ি
প্রমাণ তার মিলিয়ে নাও
সিঙ্গুর আর নন্দীগ্রামে আছে ভুরিভুরি

.     **************     
.                                                                     
উপরে
.                                          অন্যান্য কবিদের সূচির পাতায়
.                         সিঙ্গুর নন্দীগ্রামের কবিতার মূল সুচির পাতায়

মিলনসাগর
*
উচ্ছেদ     

কৃষি উচ্ছেদ শ্রমিক উচ্ছেদ
উচ্ছেদ হকার, বস্তি
বিশ্বায়নের গোলক ধাঁধাঁয়
গরীবের নেই স্বস্তি
এদির ওদিক যেদিকে যাও
উন্নয়নের ঢেউ
ঢেউয়ের তলে মরছে মানুষ
পার পাবে না কেউ
সাইন বোর্ডে রাখছে যারা সর্বহারার দল
শাসক হয়ে ধরছে তারাই পুঁজিবাদের বোল
আসল কথা পুঁজির শাসন পুঁজিপতির কল
সেই কলে তেল দিতে হাজার রকম ছল |
হাজার হাজার কারখানাতে ঝুলছে যখন তালা
লক্ষ লক্ষ বেকার শ্রমিক কি যে তাদের জ্বালা!
উত্সবে মন্ত্রিরা মাতেন গলায় পড়ে মালা
হচ্ছে, হবে, ঝুলছে খুড়োর কল
বেকারের দুঃখে মন্ত্রির চোখে কত জল
একর একর চাষের জমি কেড়ে নিচ্ছে
পুলিশ, শাসক পার্টির দল

.     **************     
.                                                                     
উপরে
.                                          অন্যান্য কবিদের সূচির পাতায়
.                         সিঙ্গুর নন্দীগ্রামের কবিতার মূল সুচির পাতায়

মিলনসাগর
*
নন্দীগ্রাম     

.         (১)
আমরা হলাম
.        ছাই ফেলতে ভাঙা কুলো
এর বেশি তো নই
.        অভাব আছে
ক্ষিদে আছে নেই মাথা গোঁজার ঠাঁই
.        শিক্ষা স্বাস্থ কোথায় মেলে
সামনে খুড়োর কল
.        কলের জোরে লুঠ করে নেয়
আমজনতার বল
.        কল ভাঙ্গতে চলছে লড়াই
সিঙ্গুর দিচ্ছে ডাক
.        চলছে লড়াই নন্দীগ্রামে
শত্রুর দিকে তাক


.          (২)
মারটা বুঝি তুমিই জানো
.        আর জানে না কেউ
নন্দীগ্রামে জবাব তার
.        আসছে ধেয়ে ঢেউ
ঢেউয়ের তালে ফুসছে মানুষ
.        বদলা নেবার পালা
এই পালাতে শেষ হবে
.        দুঃখ ভয়ের জ্বালা


.           (৩)
গণতন্ত্র পুঁজিবাদের মেওয়া
.        পায় না গরীব ছোঁওয়া
গরীবের আর কি চাই
.        খাবে শুধু হাওয়া
মানতে নারাজ
.         লড়ছে লড়াই
ভাঙছে বড়াই
.         গড়বে নতুন রাজ
শোষণের মূল ছেদনে
.         চলছে তারই কাজ


.            (৪)
ও পুঁজিবাদের মন্ত্রিমশাই
.          থাকেন কোথায় শুনি?
না দেখতে পেলে মুখ
.           বুশ সাহেবের থরকম্প
ছুটে যায় তার সুখ
.           সিঙ্গুর যখন জানান দিলো
নন্দীগ্রামের জোট
.           জোটের তোড়ে যাচ্ছে ভেসে
বেইমানদের ঘোঁট
.           ও পুঁজিবাদের মন্ত্রিমশাই
থাকেন কোথায় শুনি
.            নন্দীগ্রাম জোয়ার তোলে
কোথায় তোমার খুনি
.            পয়সা দিয়ে কোনা গোলাম
গোলামী তুই কর
.            আমজনতা আসছে তেড়ে
এবার তুই মর |

.     **************     
.                                                                     
উপরে
.                                          অন্যান্য কবিদের সূচির পাতায়
.                         সিঙ্গুর নন্দীগ্রামের কবিতার মূল সুচির পাতায়

মিলনসাগর