কবি ভবানী বেনে-র গান
যে কোন কবিতার উপর ক্লিক করলেই সেই কবিতাটি আপনার সামনে চলে আসবে।
*
বোঝা গেল না হরি, তোমার কেমন করুনা |
.  জানা গেল নাহি নারীবধের ভাবনা |
. ত্যজে ব্রজেতে কিশোরী, এলে মধুপুরী,
.         পুরাতে কুবুজার মনোবাসনা |
সকলই বিস্মৃত, ব্রজনাথ, হলে কি এককালে
. তোমার দোষ নাই, গোপীর ছিল কপালে |
. ভেবে দেখোহে গোকুলে, করিলে কী লীলে,
.         কতা কি তোমার পড়ে না মনে |
.           শ্যাম, নন্দ ঊপানন্দ সুনন্দ,
.                আরো রানি যশোমতি|
.     হা কৃষ্ণ যো কৃষ্ণ কোথা প্রাণকৃষ্ণ
.                বলে লোটায় ক্ষিতি||
আরো শুনো হরি, নিবেদন করি, ব্রজের সমাচার
.     কী কব মাধব, সে অতি চমত্কার |
.    ব্রজ-গোপিকা সকলের নয়নের জলে,
.         কেবল প্রবল হেরি যমুনা ||



.                   ****************                                                       
উপরে


মিলনসাগর
*
সখি কও শুনি সমাচার আসিবেন সে হরি পুন
.                  কি ব্রজে আর |
.   হবে কি আমার হেন কপাল আবার ||
.     মথুরা নগরে মাধবের দেখে এলে
.                  কীরূপ ব্যবহার |
না হেরে নবীন জলধর-রূপ, আকুল চতকী জ্ঞান,
.    দিবা নিশি আমার সেই শ্যাম-ধ্যান |
জীবন যৌবন ধন প্রাণ, হরি বিনে সকলই আঁধার |
.          হায় ভূপতি নাকি হয়েছে হরি,
.                  মধুপুর-সুখবিলাসী,
.  স্বরূপ কহো না সেখানে রাজার কোন মহিষী ||
.   ব্রজের চূড়া-ধরা নাকি ত্যজেচেন শ্যাম রায়|
.                কুবুজা নাকি বামে শোভা পায় ||
.          ব্রজের দুখের কথা শুনে হরি
.                   কী দিলেন উত্তর তার ||


.                   ****************                                                       
উপরে


মিলনসাগর
*
একবার কুঞ্জবনে কৃষ্ণ বলে ডাক্ রে কোকিলে |
.   মধুর কুহুধ্বনি শুনে, তাপিত প্রাণ,
.   জুড়াবে গোপীগণে|
.   নীরব হয়ে বসে কেন রইলি তমাল-ডালে ||
.   জুড়াবে গোকুলবাসী গোপী সকলে,
.   শুনাও মধুমাখা মধুস্বর, ওরে পিকবর,
.          রাধার কর্ণকুহরে |
.    সুমধুর স্বরে কৃষ্ণ কৃষ্ণ কৃষ্ণ বলো|
.   জানি দুঃসহ বিরহ ও নামে নির্বাণ হয়,
.  কৃষ্ণ-প্রেমের জ্বালা যাবে কৃষ্ণনাম নিলে ||
.  বসন্ত সময় ব্রজে হল না বসন্তের অভ্যুদয়,
দূতী কৃষ্ণ-বিচ্ছেদ মনের খেদে কোকিলেরে কয়,
.    সেই বৃন্দাবনচন্দ্র শ্যাম বৃন্দাবনে নাই,
.    দুঋখের কী দিব সংখ্যে, কৃষ্ণপদপঙ্কে,
.          অঙ্গ ফেলে আছে রাই ;
.         জুড়ায় কমলিনীর জীবন,
.         ব্যথার ব্যথী এমন কে---
.      ওরে পক্ষ, হও সাপক্ষ, দুখিনী বলে ||
.     আমরা দুখিনী গোপী বিরহিণী কৃষ্ণবিরহে,
.   দেখোরে বিহঙ্গ, বনে ত্রিভঙ্গ, অনঙ্গের অঙ্গ দহে,
.           কৃষ্ণ হয়েছে রাধার কলেবর,
.             শোনোরে ওরে পিকবর,
.    সে পায় জীবন এমন ওরে কৃষ্ণনাম শুনালে ||



.                   ****************                                                       
উপরে


মিলনসাগর
*
মানিনী শ্যামচাঁদে রাধে কী অপরাধে |
কে গেল বলো গো শুনি এ বাদ সেধে ||
ঠেকিলাম আজু এ কী প্রমাদে |
ম্লান শশীমুখ কেন লো রাই,
হেরি গো আজু এত আহ্লাদে ||
.        এই দেখে এলাম,
শ্রীকৃষ্ণ সহিতে হাস্যকৌতুকে,
ছিলে গো রাই অতি পুলকে;
ইতিমধ্যে বিচ্ছেদ-অনল
উঠিল কী বাদানুবাদে ||



.                   ****************                                                       
উপরে


মিলনসাগর