জ্যোতিরিন্দ্রনাথ ঠাকুরের গান
যে কোন কবিতার উপর ক্লিক করলেই সেই কবিতাটি আপনার সামনে চলে আসবে। www.milansagar.com
               দেশাত্মবোধক
১।    ল্ রে চল্ সবে         
২।    
ঠ, জাগ      

               
ব্রহ্মসঙ্গীত
৩।    জি বিশ্বজন গাইছে মধুর স্বরে    
৪।    
কেন ম্লান নিরানন্দ ? ডাক না প্রভু প্রেমময়ে !         
৫।     
ধন্য ধন্য ধন্য আজি দিন আনন্দকারী |                         
৬।    
পরব্রহ্ম, পরমেশ্বর, অলক্ষ্য নিরঞ্জন        
৭।    
বিমল প্রভাতে, মিলি এক সাথে, বিশ্বনাথে কর প্রণাম ||         
৮।    
জগতবন্দনে ভজ পবিত্র হবে জীবন |            
৯।    
অন্তরতর অন্তরতম তিনি যে, ভুলো না রে তাঁয় ;         
১০।   
প্রণমামি, অনাদি অনন্ত সনাতন পুরুষ           

[ একটি অনুরোধ - এই সাইট থেকে আপনার ব্ লগ্ বা সাইটে, আমাদের
কোন লেখা, তথ্য, কবিতা বা তার অংশবিশেষ নিলে, আমাদের মূল পাতা
http://www.milansagar.com/index.html এ দয়া করে একটি ফিরতি লিঙ্ক দেবেন
আপনার ব্ লগ্  বা সাইট থেকে, ধন্যবাদ ! ]
        
*
চল্ রে চল্ সবে

চল্ রে চল্ সবে
ভারত সন্তান
মাতৃভূমি করে আহ্বান!
বীর-দর্পে পৌরুষ-গ্রবে
সাধ্ রে সাধ্ সবে দেশের কল্যাণ
|
পুত্র ভিন্ন মাত্র-দৈন্য
কে করে মোচন ?
উঠ, জাগো, সবে বল --- মা গো !
তব পদে সঁপিনু পরাণ
|

এক তন্ত্রে কর তপ,
এক মন্ত্রে জপ্ ;
শিক্ষা দীক্ষা লক্ষ্য মোর এর,
এক সুরে গাও সবে গান |

দেশ-দেশান্তে যাও রে আনতে
নব নব জ্ঞান
নব ভাবে, নবোত্সাহে মাতো
উঠাও রে নবতর তান |

লোক রঞ্জন লোক গঞ্জন
না করি দৃকপাত
যাহা শুভ, যাহা ধ্রুব, ন্যায়
তাহাতে জীবন কর দান |

দলাদলি সব ভুলি
হিন্দু-মুসলমান ;
এক পথে এক সাথে চল
উড়াইয়ে একতা নিশান |


.             ***********                                           
উপরে
*
             ঠ, জাগ

ওঠ ! জাগ ! বীরগণ !             দুর্দান্ত যবনগণ
           গৃহে দেখ করেছে প্রবেশ
|
হও সবে এক প্রাণ             মাতৃভূমি কর ত্রাণ,
           শত্রুদলে করহ নিঃশেষ
||

এত স্পর্ধা যবনের,           স্বাধীনতা ভারতের,
           অনীয়ীসে করিবে হরণ |
তারা কি করেছে মনে,          সমস্ত ভারতভূমে,
            পুরুষ নাহিক এক জন ?
"বীর-যোনি এই ভূমি,          যত বীরের জননী",
            না জানে এ কথা তারা অবোধ যবন |
            দাও শিক্ষা সমুচিত দেখুক বিক্রম ||

স্বদেশ-উদ্ধার তরে,            মরণে যে ভয় করে,
            ধিক্ সেই কাপুরুষে শত ধিক্ তারে,
            পচুক্ সে চিরকাল দাসত্ব-আঁধারে |
স্বাধীনতা বিনিময়ে,        কি হবে সে প্রাণ লয়ে,
            যে ধরে এমন প্রাণ ধিক্ বলি তারে ||
যায় যাক্ প্রাণ যাক্,        স্বাধীনতা বেঁচে থাক্,
            বেঁচে থাক্ চির কাল দেশের গৌরব |
বিলম্ব নাহিক আর,         খোল সবে তলোয়ার,
            ঐ শোন ঐ শোন যবনের রব ||


.         
            ***********                                           উপরে
*
খাম্বাজ | সুরফাঁকতাল |

আজি বিশ্বজন গাইছে মধুর স্বরে,
সনাতন দুখহরণ বিশ্বম্ভর অনন্তে, আনন্দ ভরে !
পূর্ণ গগন অনাদি নাদ আলাপ করে,
গাইছে জলদল জলধির গভীরে ;
বিশ্বনাথ অমর সেবিত, তনুপম জ্যোতিতে বিরাজে ||



.           
                                     ***********                                          উপরে
*
মনকল্যাণ | ধামার |

কেন ম্লান নিরানন্দ ? ডাক না প্রভু প্রেমময়ে !
সব দুঃখ হবে না মোচন, জুড়াবে হৃদয় মন প্রাণ ||
যাঁর কৃপায় এই দেহ, পাইলে জননীস্নেহ,
কেন কর সন্দেহ, তিনি যে মঙ্গলনিদান ||
তিনি যে বিশ্ববন্ধু, অপার করুণাসিন্ধু,
প্রেমসুধা-ইন্দু, কত সুখ করেন বর্ষণ ;
শোভা বরণ গন্ধ, অযাচিত কত আনন্দ,
দেখেও কি তবু অন্ধ ? কর' তাঁরি যশোগান
||


.                                                ***********                                          
উপরে
*
ঝিঁঝিট | একতাল |

ধন্য ধন্য ধন্য আজি দিন আনন্দকারী |
সবে মিলি তব সত্য ধর্ম ভারতে প্রচারি
||
হৃদয়ে হৃদয়ে তোমারি ধাম,          দিশি দিশি তব পূণ্য নাম,
ভক্তজন সমাজ আজ স্তুতি করে তোমারি ||
নাহি চাহি ধন জন মান,          নাহি প্রভু অন্য কাম,
প্রার্থনা করে তোমারে আকুল নর-নারী ||
তব পদে প্রভু লইনু শরণ,          কি ভয় বিপদে কি ভয় মরণ,
অমৃতের খনি পাইনু যখন, জয় জয় তোমারি ||



.                                                ***********                                          
উপরে
*
মনকল্যাণ | চৌতাল |

পরব্রহ্ম, পরমেশ্বর, অলক্ষ্য নিরঞ্জন,
নিরাময় অবিনাশী, অনাদিকারণ, পূর্ণজ্ঞান
|
দীননাথ দয়াল, দারিদ্র-ভঞ্জন, শান্তি-সদন,
অন্তর্যামী, ভব-তারণ হৃদয়-স্বামী, প্রাণের প্রাণ
|
কে বা করিত হেথা বিতরণ,          কে বা করিত জীবন ধারণ,
যদি আকাশে না হইত তাঁহার অধিষ্ঠান |
তিনি লোক-ভঙ্গ, নিবারণ সেতু, তিনি আত্মার চির উন্নতি-নিদান
তিনি অমৃতের সোপান ||



.                                                ***********                                          
উপরে
*
ভৈরব | ত্রিতাল |

বিমল প্রভাতে, মিলি এক সাথে, বিশ্বনাথে কর প্রণাম ||
উদিল কনকরবি রক্তিম রাগে, বিহঙ্গকুল সব হরষে জাগে,
তুমি মানব, নব অনুরাগে, পবীত্র নাম তার কর রে গান ||



.                                                ***********                                          
উপরে
*
সোহিনী-বাহার | ঝাঁপতাল |

জগতবন্দনে ভজ পবিত্র হবে জীবন |
পাইবে অনন্ত ফল, লাভ হবে পরম ধন
||
অন্ধতম কে এমন, তাঁরে যে কভু দেখে না |
ধিক সে জীবন তার, পাপ-তাপে মগন ||
পরম করুণাধারার, সেই পতিতপাবন,
তাঁর পদে প্রণম, নাহি রহিবে মোহাবরণ |
সুগভীর নিশিথে চন্দ্র সুন্দর মধুর,
শোভয়ে যাঁর শোভায়, কেমন তিনি মনোহরণ ||



.                                                ***********                                          
উপরে
*
লাইয়া | ত্রিতাল |

অন্তরতর অন্তরতম তিনি যে, ভুলো না রে তাঁয় ;
থাকিলে তাহার সঙ্গে পাপ তাপ দূরে যায় ||
হৃদয়ের প্রিয় ধন তাঁর সমান কে ?
সেই সখা বিনে সুখ-শান্তি দিবে কে তোমায় ?|
ধন জন জীবন সব তাঁরি করুণা,
তাঁর করুণা মুখে বলা নাহি যায় ;
এত যার করুণা তারে কি ভুলিবে ?
তাঁরে ছাড়িয়ে ভবসাগরে ত্রাণ কোথায় ?
|


.                                                ***********                                          
উপরে
*
মাদ্রাজী ভজনের সুর | তাল ফেরতা |

প্রণমামি, অনাদি অনন্ত সনাতন পুরুষ,
নিখিল জগতপতি পরমগতি মহান্ ভকতজীবনধন |
|
ভূমা প্রভু পরমব্রহ্ম পরমায়ণ, কারণ শরণাগতবত্সল,
পূর্ণ সত্য, সকল দুখবারণ |
ভবজলধিতরণ শরণ, অতি পবিত্র শুভ নিধান,
অজর অভয় অবিনাশী ;
সুরনরবন্দন, জগচিতরঞ্জন, ভবভয়ভঞ্জন, বিতর কৃপা ;
দীননাথ করুণাময় সুন্দর প্রেমসিন্ধু মধুময়, নাহি উপমা ;
নামরূপগুণ অতীত চন্ময়, অন্তরে তোমার আসন ||



.                                                ***********                                          
উপরে