মানিক মণ্ডলের কবিতা
যে কোন কবিতার উপর ক্লিক করলেই সেই কবিতাটি আপনার সামনে চলে আসবে।  www.milansagar.com
১।     হাতছানি           
২।     
স্টেশন        
৩।     
নীলপাখি         
৪।     
প্রত্যাবর্তন          
৫।     
একদিন         
৬।     
তবু বেঁচে আছি          
৭।     
কিছুতেই শুনতে চাই না          
৮।     
তোমাকে বলছি          
৯।     
আলিঙ্গন        
১০।    
আমি      
১১।    
নিভন্ত আকাশ           
১২।    
বেঁচে আছি          


সিঙ্গুর নন্দীগ্রামের কবিতা
১।     
মা মাটি মানুষ  (উপন্যাস "ভালো নেই" থেকে )    
২।     
য়েই গেছে      
৩।     
তবুও আবার   

মানিক মণ্ডলের মূল পাতায় যেতে
এখানে ক্লিক করুন
সিঙ্গুর নন্দীগ্রামের কবিতার মূল সূচির পাতায় যেতে এখানে ক্লিক করুন
সিঙ্গুর নন্দীগ্রামের অন্যান্য কবির সূচির পাতায় যেতে এখানে ক্লিক করুন


[ একটি অনুরোধ - এই সাইট থেকে আপনার ব্ লগ্ বা সাইটে, আমাদের
কোন লেখা, তথ্য, কবিতা বা তার অংশবিশেষ নিলে, আমাদের মূল পাতা
http://www.milansagar.com/index.html এ দয়া করে একটি ফিরতি লিঙ্ক দেবেন
আপনার ব্ লগ্  বা সাইট থেকে, ধন্যবাদ ! ]
        
*
মা মাটি মানুষ     
(সিঙ্গুর নন্দীগ্রামের কবিতা)  
.                                                              
কবি কণ্ঠে আবৃত্তি শুনুন
মাগো তুই কাঁদিসনেকো আর,
বর পাবি তুই ঘর পাবি তুই
     টোকা ভরা খই
বর্ষাকালে পুঁইয়ের মাচায় বান আসছে ওই
আসুক বান আসুক খরা ধরুক এসে জীর্ণ জরা
তবু যে মা প্রাণের টানে নিজের ভিটেয় রই
মাগো তুই কাঁদিসনেকো আর, বর পাবি তুই, ঘর পাবি তুই
টোকা ভরা খই

পুলিস এসে ছিঁড়ছে মা তোর কাপড়খানি
ভাঙছে বুকের পাঁজর,
তবু তুই মা দুখের জ্বালায় যাসনা ফেলে কালঅবেলায়
আমরা শুধু আকাশ পানে চেয়ে চেয়ে রই |
মাগো তুই কাঁদিসনেকো আর, বর পাবি তুই, ঘর পাবি তুই
টোকা ভরা খই

আকাশ মানে বজ্রনিনাদ ঝড়ের পূর্বাভাস
সেই ঝড়ে মা নতুন বেশে নতুন রণসাজ |
তাপসীরা রক্ত দিল, সেই আগুনে জ্বলছে মাগো
জ্বলছে মাটি জ্বলছে আকাশ
নন্দীগ্রামে দামাল যুবক আত্মহুতি তোমার তরে, ভাঙ্গর সিঙ্গুর হরিপুরে
যেথায় সেথায় মেঘ করেছে, মেঘ করেছে বাংলা জুড়ে ওই
মাগো তুই কাঁদিসনেকো আর, বর পাবি তুই, ঘর পাবি তুই
টোকা ভরা খই |

.                      ***********                                                   
উপরে
.                                        সিঙ্গুরের কবিতার মূল সুচির পাতায় ফেরত
.                                              অন্যান্য কবিদের সূচির পাতায় ফেরত
*
বয়েই গেছে   
(সিঙ্গুর নন্দীগ্রামের কবিতা)
.                                                    
কবি কণ্ঠে আবৃত্তি শুনুন
বয়েই গেছে আমলাশোলের
ভুখার বেটা মৃত্যুবরণ
রাজার দাপে পালটি খেলে
বয়েই গেছে |

বয়েই গেছে নন্দীগ্রামের মুণ্ডুকাটা শিশুর খুনে
দিল্লী থেকে ধর্ম এনে...
হাভাতেরা পাল্টি খেলে,
বয়েই গেছে |

বয়েই গেছে ডিমের দামে
বুদ্ধিজীবী বিক্রী হলেও
জ্ঞানপাপিরা রাজার ছলে,
পাল্টি খেলে, বয়েই গেছে |

বয়েই গেছে সিঙ্গুর ভাঙ্গর নন্দীগ্রামে
কৃষক বাঁচাও আওয়াজ তুলে
বিদ্রোহী কেউ পাল্টি খেলে,
বয়েই গেছে |

বয়েই গেছে রুকবানুরা
ভাইয়ের খুনে জ্বলতে গিয়ে
রাজার কথায় ভিমরি খেয়ে
পাল্টি খেলে, বয়েই গেছে |

পাল্টি খেলে, পাল্টি খেলে,
রাজার মুখোশ ছিড়লো ঝড়ে,
হাজার চোখের তীক্ষ্ণ বাণে,
চোখ গুলো সব দেখলো এবার

রাজা তুই
ভণ্ডরাজা, খুনি রাজা, মিখ্যা রাজা, শোষক রাজা,
ধনীর রাজা, পুলিশ রাজা, রক্তচোষা হাড়গিলে তুই |
তোর ঘরের মানুষ পাল্টি খেলে ?
--- বলিস কিরে?

বয়েই গেছে |


.        ***********                                                      
উপরে
.                             সিঙ্গুরের কবিতার মূল সুচির পাতায় ফেরত
.                                    অন্যান্য কবিদের সূচির পাতায় ফেরত  
*
তবুও আবার   
(সিঙ্গুর নন্দীগ্রামের কবিতা)
.                                               
কবি কণ্ঠে আবৃত্তি শুনুন
কে যেন কে যেন বলেছে লিখে
মিথ্যা বলো, মিথ্যা বলো বার বার
বার বার আরও---আরও---
মিথ্যা সত্যি হবে আবার |

আজ প্রতিবাদ প্রতিরোধে যারা-
মাথা তুলে আছে,
যেখানে সত্য চাপা পড়ে থাকে
জোরে আরও বেশি জোরে |

তবু---তবুও আবার, তবুও আবার  


.        ***********         
.                                                                   
উপরে
.                         সিঙ্গুরের কবিতার মূল সুচির পাতায় ফেরত
.                               অন্যান্য কবিদের সূচির পাতায় ফেরত  
*
হাতছানি   
.                                                          
কবি কণ্ঠে আবৃত্তি শুনুন
টেবিলের এপার আর ওপারের খেলা চলে অবিরত
এপারে যখন আমি, ওপারে তোমার চোখ জবা |
ওপারে যখন আমি চলে যাই,
আমার শরীর মন ফুলতে ফুলতে দানব তখন
কিন্তু যাদেক এপার ওপার নেই,
নেই নেই শুধু নেই, এই সময়টুকুতে তারা গান গায়
সাঁতার কাটে, ভেসে যায় দিগন্তে,
এপার ওপার খেলায় মেতে আছে আমার মন, তোমারও
তবু তুমি আর আমি ভাবি শুধুই ভাবি
           নেই নেই শুধু নেই
কিন্তু ওদের মত নেই হ'তে পারি না কখনো, তাই তো
নীলাকাশ, সমুদ্রের ঢেউ, পলাশ ফুল
শ্মশানের নিস্তব্ ধতা  ডাকে...
হাতছানি দেয় আয়... আয়...


.        ***********         
.                                                                   
উপরে
.                         সিঙ্গুরের কবিতার মূল সুচির পাতায় ফেরত
.                               অন্যান্য কবিদের সূচির পাতায় ফেরত  
*
স্টেশন   

.                                                          
কবি কণ্ঠে আবৃত্তি শুনুন

জোড়া শিশু খেলা করে মৃত্যুর পরিখায়
কাদা ছোঁড়ে আর হাসে খিলখিল
বুড়ি ফতেমা পিসি রান্না করে, সাধু গান গায় জুবুথুবু হয়ে
ছোট্ট ঘরের খাটের তলায় রমণ করে ছেলেবউ
উপরে মা-বাবা, তাদের চাওয়া পাওয়া
শরীরে শরীরে মেশে, শিশু খেলা করে |


রেল লাইনের তিনহাত দূরে ঘর, শুধু ঘর
শিশু খেলা করে লাইনের ওপর
জোড়া শিশু ট্রেন দেখে খেলা করে, ট্রেন যায়-আসে
ঝগড়া বাঁধে ঘরে ঘরে, প্রেম হয়, দেবশিশু হাসে |
এ'রকম শিশু যদি আমিও হ'তাম, সাধু হয়ে ফতেমাকে
জড়িবুটিতে বশ করে পালাতাম দূরে |
দূরে মানে তেপান্তরে, তেপান্তর কতদূর?
ট্রেনে চেপে যাওয়া যায় বুঝি? নাকি শিশু হয়ে যেতে হয়ে


জোড়া শিশু খেলা করে মৃত্যুর পাশে
মৃত্যুকে লাথি মারে, ট্রেন ডাকে হুইসেল ছেড়ে
ঢাকুরিয়া স্টেশন, একটু দাঁড়াও মন, এখনও
অনেক কাজ আছে বাকি |
খেলা শেষ ক'রে শিশুদের সাথে আমি ড্রাইভার হবো
আমার সাথে বাসন মাজা লতা, খড়কাটা জুলেখা, মাছ
বিক্রির পারুল---স্টেশন কত দূর? ঢাকুরিয়া নয়
তেপান্তর নয় আরও আরও দূর |

.        ***********         
.                                                                   
উপরে
.                         সিঙ্গুরের কবিতার মূল সুচির পাতায় ফেরত
.                               অন্যান্য কবিদের সূচির পাতায় ফেরত  
নীলপাখি   
.                                                
কবি কণ্ঠে আবৃত্তি শুনুন
নীলপাখি খুঁজে ফেরে অনন্ত আকাশ
মেঘ আসে, মেঘ যায় তবু
নীলপাখিরই চোখের জলে বৃষ্টি নামে
শ্রান্ত হয় পৃথিবী
নদী মিশে যায় সমুদ্রের বুকে |

এই বর্ষায়, কৃষকেরা গান গেয়ে ফেরে
পুঁইয়ের মাচায় নীলপাখি নামে, তৃষ্ণার্তকে জল দিতে
ঘটি হাতে বধু, লজ্জামাখা মুখ
তবু ঝড় এসে ভেঙে দেয় সব
উলঙ্গ ক্ষেত, ভাঙা পুঁইয়ের মাচায় খেলা করে কীট
তাই নীলপাখি খুঁজে ফেরে আকাশ...
                    অনন্ত আকাশ...


.        ***********         
.                                                                    
উপরে
.                          সিঙ্গুরের কবিতার মূল সুচির পাতায় ফেরত
.                                অন্যান্য কবিদের সূচির পাতায় ফেরত  
*
প্রত্যাবর্তন   
.                                                
কবি কণ্ঠে আবৃত্তি শুনুন  
কম্বল নিয়ে শুয়ে আছি
তাতে
ঢাকা যায় না বুক
বরফের মত পাছা
মনুষ্যত্বের ঢাকনা দেওয়া শিকল |

কুঁকড়ে যায় ক্রমাগত
কোঁকড়াতে কোঁকড়াতে
ডিম হ'তে কতক্ষণ?

শরীরের সমস্ত রোমকূপ কি
ছিঁড়ে ফেলা যায়?
চাম উকুনে ছিঁড়ে খায় কর্ত্তব্য

তবু
সমুদ্রের নীল আকাশ
শুয়ে থাকে শঙ্খমাছের পাখনায়
ঘুরে যেতে চায় চাঁদ
পৃথিবী থেকে
ফতেমার কাঁথার ভেতর
ফিরে যেতে চায়
কোঁকড়ানো যৌবন হ'তে
ডিম হয়
স্তনঝরা শকুনির
পেটের ভিতর |


.        ***********         
.                                                                    
উপরে
.                          সিঙ্গুরের কবিতার মূল সুচির পাতায় ফেরত
.                                অন্যান্য কবিদের সূচির পাতায় ফেরত  
*
একদিন   
.                                                
কবি কণ্ঠে আবৃত্তি শুনুন  
একদিন আমাকে তাড়াব বলে
পাগলি ছিলে তুমি,
আমি বলতাম --- রোসো
পৃথিবীর নিয়ম মেনে
হারিয়ে যাবো একদিন
এখন আমি হারিয়ে গেছি
খুশি হয়েছ নিশ্চয়ই
নিশ্চয়ই নিশ্চিৎ করে জানি
তোমার কান্না ভাসে বাতাসে


.        ***********         
.                                                                    
উপরে
.                          সিঙ্গুরের কবিতার মূল সুচির পাতায় ফেরত
.                                অন্যান্য কবিদের সূচির পাতায় ফেরত  
*
তবু বেঁচে আছি   
.                                                
কবি কণ্ঠে আবৃত্তি শুনুন  
দরজা ভেঙে একে একে
চলে যাচ্ছে কোকিল
উষ্ণতা মেশানো হাস্নুহানা
ঢেউ, কাল যা ছিল জীবন্ত
আমি কি মমি হয়ে আছি?
সামনের মানুষগুলো পাথর
দিনটা পিছনের ঝাপসা

দরজা ভেঙে একঝাঁক আলো
কাঁঠালি চাঁপার গন্ধ তবে পথ ভুলে গেছে

.        ***********         
.                                                                    
উপরে
.                          সিঙ্গুরের কবিতার মূল সুচির পাতায় ফেরত
.                                অন্যান্য কবিদের সূচির পাতায় ফেরত  
*
কিছুতেই শুনতে চাই না    
.                                                
কবি কণ্ঠে আবৃত্তি শুনুন  
কিছুতেই শুনতে চাই না তার কথা
তার ইচ্ছায় কবিতা নিষ্ঠুরতায় হাসে
নোনা জলের ঝাপটা নামে মুখে
সহ্য করতে ভুলে গেছি বহুকাল |

আমাকে ধরতে বলো না বাজি
জীবন্ত দগ্ধ হ'য়ে থাকা
অমাবশ্যার রাতে চাঁদ খুঁজে পায়
পুতুলের চোখে জল
তবু বেঁচে আছি ব্যথা খুঁজে পেয়ে |

.        ***********         
.                                                                    
উপরে
.                          সিঙ্গুরের কবিতার মূল সুচির পাতায় ফেরত
.                                অন্যান্য কবিদের সূচির পাতায় ফেরত  
*
তোমাকে বলছি    
.                                                
কবি কণ্ঠে আবৃত্তি শুনুন  
মনে ক'রেও তোমার মুখটা পাথর
স্নিগ্ধতায় এঁটোমাখা হাত
হাতে হাতে মিলন হয় নি বহুদিন
কেন হয় নি
জানতে চাও নদীর কাছে
পোকা বেগুন ক্ষেতে, সবুজ লাউডগা
জবাব দেবে |
যদি ঠিক মতো মাটি খুঁড়ে
প্রশ্ন করতে পারো কবরের
শান্ত জীবনটাকে
ম্যাজিক দেখতে পাবে
মরুভূমি ঘোমটা দিয়ে
সমুদ্রে মিশে যায় |

.        ***********         
.                                                                    
উপরে
.                          সিঙ্গুরের কবিতার মূল সুচির পাতায় ফেরত
.                                অন্যান্য কবিদের সূচির পাতায় ফেরত  
*
আলিঙ্গন    
.                                                
কবি কণ্ঠে আবৃত্তি শুনুন  
যদি নিজের কাছে প্রশ্ন করো
অন্ধকার ক্যানো?
আলো এসে সরিয়ে দেবে তোমায়
যদি আলোর কাছে প্রশ্ন করো
আলো এসে পাশে বসে চুপিচুপি বলবে
ও আছে তাই আমি আছি
দু'জন জড়াজড়ি এক পৃথিবীতে
হামাগুড়ি দিতে ভূলে গেছি বহুকাল |

.        ***********         
.                                                                    
উপরে
.                          সিঙ্গুরের কবিতার মূল সুচির পাতায় ফেরত
.                                অন্যান্য কবিদের সূচির পাতায় ফেরত  
*
আমি    
.                                                
কবি কণ্ঠে আবৃত্তি শুনুন  

হতাশার চাবুক আর ঘোড়ার ডিমে গড়া
স্যান্ডউইচ খেয়েছ কোনোদিন?
আমার খাদ্য প্রতিদিনের |
পিত্তিটা ঝোলায় বেঁধে বাজার করি
মৈথুন করি আর হতাশাকে বলি
সামনে দিঘল মাঠ চলো নাচানাচি করি
চাঁদ এসে ডেকে নিয়ে যাবে আমাদের
খাবার সময় |

.        ***********         
.                                                                    
উপরে
.                          সিঙ্গুরের কবিতার মূল সুচির পাতায় ফেরত
.                                অন্যান্য কবিদের সূচির পাতায় ফেরত  
*
নিভন্ত আকাশ    
.                                                
কবি কণ্ঠে আবৃত্তি শুনুন  

শেষ যেদিন দেখা হ'লো আকাশের সাথে
বুকের ভিতর তখন টয়টম্বুর জল
ঘৃণা ছুঁড়ে বান ডেকেছিল লোকে মেয়েলি বলে
যন্ত্রণার শামুক হয়ে পথ ভুলে
হারিয়ে গেছিল সে বাষ্প হ'তে হ'তে

আজ বর্ষার দুপুরে আবার দেখেছি তোমায়
বুকদু'টো ইঞ্জেকশনে টয়টম্বুর
মাথার চুল মায়ের মতো,
হাতের চুড়ি, পরনে কাপড় সাক্ষাত মালতি

এবার মানুষের মনে আকাশের চকচকে শাড়ি
ধপধপে সায়া বিক্রিত যোনি খেলা করে
আকাশ, সাগরের বুকের ভেতর ঢেউ ওঠে
ফুল হ'য়ে ফুটে ওঠার মিছিল দেখেছিস কি?

.        ***********         
.                                                                    
উপরে
.                          সিঙ্গুরের কবিতার মূল সুচির পাতায় ফেরত
.                                অন্যান্য কবিদের সূচির পাতায় ফেরত  
*
বেঁচে আছি    
.                                                
কবি কণ্ঠে আবৃত্তি শুনুন  

এই বিষন্নতা আমার ভালোলাগে
এই সামাজিক নিষ্ঠুতায় প্রাণ ফিরে পাই
পড়ন্ত দুপুর বেলা |
হাজার বছর বাঁচব বলেছি তাই
বসে আছি আজ এসাইলেমের
তরুণী ডাক্তারের ভ্রুর দিকে চেয়ে
শিশু হয়ে |


এই বিষন্নতা আমার ভালোলাগে
এই সামাজিক বর্বরতা আমার ভালোলাগে
তাই বেঁচে আছি, বেঁচেই আছি পড়ন্ত দুপুরে |

.        ***********         
.                                                                    
উপরে
.                          সিঙ্গুরের কবিতার মূল সুচির পাতায় ফেরত
.                                অন্যান্য কবিদের সূচির পাতায় ফেরত  
*
Get your player!
Apple Quick
Time
Player
Windows
Media Player
Real Player