কবি প্রতিভা ঘোষের কবিতা
*
লহ নতি দয়া করি
কবি প্রতিভা ঘোষ

(১)
পূজার মন্ত্র নাহি জানি দেব ত্রস্ত আমার বাণী!
ছন্দ-কুসুমে পারি নি সাজাতে অর্ঘ্যের ডালাখানি!
হৃদয় উজারি কর-পুটভ’রে
এনেছি ভকতি মন্দির-দোরে,
দীন উপচার ল’বে তুমি স্নেহে, করিবে না ঘৃণা জানি।
ভকতি-কুসুমে তাই তো ভ’রেছি অর্ঘ্যের থালাখানি।

(২)
বাঙালির ডাকে, সুর-পুরোহিত, বাণীর পূজারী বেশে,
নবীন মন্ত্র শুনালে যেদিন হিমাচল হ’তে এসে,
সেদিন তোমার আহ্বান শুনি
চমকিল সবে, হে নিপুণ গুণী
প্রসন্ন-চিতে তাহাদের তুমি নিলে বুকে ভালোবেসে।
তোমার স্নেহের ছায়ায় তাহারা দাঁড়াল পুলকে এসে।

(৩)
বঙ্গ-গগনে প্রকাশিয়া দেব, ঊষার উদয় সম,
আপন জ্যোতিতে বিনাশিলে তুমি-মানসে যত তমঃ।
নবীন মাল্যে গাঁথি ফুলদল
সাজালে বাণীর চরণ যুগল,
তব অর্চ্চনে মন্দির তাঁর হ’ল দেব, মনোরম।
আপন জ্যোতিতে প্রকাশিলে তুমি ঊষার উদয় সম।

(৪)
কত ঠাঁই হ’তে পূজা-সম্ভার আনিয়া চয়ন করি’
মুগ্ধ ভক্ত দিতেছে এদিকে তোমারি দেউল ভরি’।
বাণী নিজ হাতে, জানি তব ভালে
বিজয়ের টিকা আপনি পড়ালে
কণ্ঠে তোমার পুষ্পের হার রেখেছ তাঁহারি, ধরি,
রিক্ত যে আমি কি দিব দেবতা, লহ নতি দয়া করি’।

.                 *****************                 

.                                                                                          
সূচিতে . . .   


মিলনসাগর