রাজেশ দত্তর গান ও কবিতা
যে কোন কবিতার উপর ক্লিক করলেই সেই কবিতাটি আপনার সামনে চলে আসবে।   www.milansagar.com
*
তেভাগা আর তেলেঙ্গানা
ভুলে গেলে নাকি?
(তাই) জোট বেঁধে আয়, করব লড়াই
করছি কবুল জান |

.       ***********  
.                                                                              
সূচিতে . . .     


মিলনসাগ
*
তাই জীবনটা পাল্টায় না |

প্রসাধনী পাল্টায় |
বিকিকিনি পাল্টায় |
পাল্টায় শেয়ারের দর |
সকালটা পাল্টায় |
বিকালটা পাল্টায় |
পাল্টায় রাতের শহর |

দিনক্ষণ পাল্টায় |
মাস সন পাল্টায় |
পাল্টায় ক্যালেণ্ডার |
রাজা আসে রাজা যায় |
লাল-নীল জামা গায় |
পাল্টায় রঙ ঝাণ্ডার |
শুধু সমাজটা পাল্টায় না |
তাই জীবনটা পাল্টায় না |

শতকটা পাল্টায় |
চটকও তো পাল্টায় |
পাল্টায় মিলেনিয়েম |
কত গান পাল্টায় |
স্লোগানও পাল্টায় |
পাল্টায় পার্টির নাম |
শুধু সমাজটা পাল্টায় না |
তাই জীবনটা পাল্টায় না |

এসো পাল্টাতে পাল্টাতে শিখি,
আর শিখতে শিখতে পাল্টাই |
পাল্টা স্রোতে ভেসে গিয়ে
দিনবদলের গান গাই |

.       ***********  
.                                                                              
সূচিতে . . .     


মিলনসাগ
*
রথের সমুখে কেউ আটকায় পথ |
মহাজনি সুতো নিয়ে কেউ তাঁত বোনে,
মদন তাঁতিরা তবু খালি তাঁত টানে |
কেউ দরাদরি করে বিকোবার ছলে |
চিনে নাও কমরেড, তুমি কোন দলে |

.       ***********  
.                                                                                 
সূচিতে . . .     


মিলনসাগ
*
পড়বি ধরা শেষটা |

খোকা গেছে কোনখানে?
যেথা বিল সাহেব জাল বোনে |
সেথায় খোকন কী করে?
মুখ ঢেকে যায় ডলারে |

ওরে খোকা যাস নে ভুলে
সাত সাগরের খালে বিলে,
ডলার পাউণ্ড যতই কামাস
মিটবে না এ তেষ্টা |
তোর ঘুমের ঘোরে বর্গি এসে
লুটবে সোনার দেশটা |

.       ***********  
.                                                                               
সূচিতে . . .     


মিলনসাগ
*
মার্কিন সওদাগর |
লুইট্যা নিল স্বদেশ ভূমি,
জল-জঙ্গল-খেতের জমি |
নিজঘরে পরবাসী
হইলাম রে বেঘর |

উন্নয়নের ঢাকে কাঠি |
গরিব হারায় ভিটা মাটি |
কারখানায় ঝুললো তালা
চাষির গলায় দড়ি |

চলবে না আর মিছিল সভা |
আমজনতা থাকবে বোবা |
চলবে ছাঁটাই, জ্বলবে আগুন |
ভাঙবে রে ঘরবাড়ি |

চলবে কি তা বলবে ওরাই |
চলবে না আর হকের লড়াই |
সন্ত্রাসবাদী বইল্যা পরায়
হাতে হাতকড়া |
রাজা এখন অস্তর শানায় |
আই এস আই-এর গপ্পো শোনায় |
চলছে ভারত মার্কিন সেনায়
যৌথ মহড়া |

.       ***********  
.                                                                              
সূচিতে . . .     


মিলনসাগ
*
মুখ ঢাকা কালো কাপড়ের নিচে
শ্বাপদের মতো যে চোখগুলো
নির্বস্ত্র নারীদেহে হেনেছিল দৃষ্টি বিষের
সেই চোখগুলো চোখ নয়,
মৃণাল, রাজা সেনের ক্যামেরার লেন্স |

নেপখ্যে যে ঘাতকের দল
হাঁক দিয়ে বলেছিল ---
"এবার ঝাঁপিয়ে পড় পোষা হায়নারা
চারদিক থেকে ঘিরে ফেল |
করে দে হতভাগাদের লাইফ হেল্ |
এইভাবে শিশুর ধর-মুণ্ডু চিরে ফেলে
ভাসিয়ে দে তালপাটি খালে |"
সেইসব প্রম্পটারেরা দলে দলে
ভীড় করে উষা গাঙ্গুলীদের
নাটকের উইংয়ের আড়ালে |

উত্পলেন্দু, অমর, শুভেন্দু, ইন্দ্রনীল সেন
হে নগর গাইয়ের দল, ক্ষমা করবেন |
আপনাদের গান শুনতে পারি না তো আর |
কানে বাজে ইমদাদুলের মার হাহাকার |
ছাপিয়ে সুরের মূর্ছনা
সারিন্দা, সিন্থেসাইজার, গিটার
সন্তানহারা মা ডুকরে কাঁদেন |

বলুন কী করে থাকি নিরপেক্ষ আমি ?
নিরপেক্ষতা মানে কপটতা, মিথ্যে, ভণ্ডামি |
রক্তাক্ত বিকালে
এই ক্রান্তিকালে
অহর্নিশ আমার কলম করে রক্তবমি |


.      **************                                                        
উপরে
.                  সিঙ্গুর-নন্দীগ্রামের অন্যান্য কবিদের সূচির পাতায় ফেরত
.                               সিঙ্গুরের কবিতার মূল সুচির পাতায় ফেরত       

এই কবিতাটি চাকদহ, নদীয়া থেকে প্রকাশিত, ত্রৈমাসিক 'হুল' সাহিত্য পত্রিকার চতুর্থ বর্ষ,
শ্রাবণ ১৪১৪ এর বর্ষা সংখ্যায় প্রকাশিত হয়েছিল |

মিলনসাগ
*
গুনগুন করে আজো হেমাঙ্গ গায় |
শরীর ভেঙেছে, ভাঙন ধরে নি মনে |
অমলকান্তি জীবনে বাঁচতে জানে |

ইশ্ তেহারের প্রুফ দেখে মাথা গুঁজে |
সূর্য উঠেছে কোন দিকে তাই খোঁজে |
কবিতার খাতা হারিয়ে গিয়েছে কবে |
স্বপ্ন দেখছে রাত পোহাচ্ছে পুবে |

.               **************               
.                                                                          
উপরে    
.                   
সিঙ্গুর-নন্দীগ্রামের অন্যান্য কবিদের সূচির পাতায় ফেরত
.                                সিঙ্গুরের কবিতার মূল সুচির পাতায় ফেরত       


মিলনসাগ
*
রক্তে ঘামেতে লেখা হবে ইতিহাস |
মুখোমুখি বসিবার নেই অবকাশ |
অধিকার বুঝে নিতে বাকি লেনদেন ---
আমাকে ডেকো না তুমি, বনলতা সেন |

.               **************       
.                                                                          
উপরে            
.                   
সিঙ্গুর-নন্দীগ্রামের অন্যান্য কবিদের সূচির পাতায় ফেরত
.                                সিঙ্গুরের কবিতার মূল সুচির পাতায় ফেরত       


মিলনসাগ
*
গাইবে কবে বাঁধন ছেঁড়ার গান

.      **************               
.                                                                           
উপরে    
.                    
সিঙ্গুর-নন্দীগ্রামের অন্যান্য কবিদের সূচির পাতায় ফেরত
.                                  সিঙ্গুরের কবিতার মূল সুচির পাতায় ফেরত       


মিলনসাগ
*
বই পড়াটা অপরাধের
এমন কথা কেমন তরো ?

বেণীমাধব, বেণীমাধব
বুকের মাঝে আগুন জ্বলে |
তোমরা যারা শহরবাসী
দুখের ভাগী নাইবা হলে |

বেণীমাধব, বেণীমাধব
লড়তে পারি এখন একা |
ভবছ বুঝি নষ্ট হব ?
নইতো আমি এতই বোকা |

.      **************                   
.                                                                   
উপরে   
.            
সিঙ্গুর-নন্দীগ্রামের অন্যান্য কবিদের সূচির পাতায় ফেরত
.                         সিঙ্গুরের কবিতার মূল সুচির পাতায় ফেরত       


মিলনসাগ
কোনও গণসংগীত সংস্থা বা শিল্পী, এই কবির এই গানগুলি অথবা তাঁর অন্যান্য গানের সুর ও স্বরলিপি পেতে আগ্রহী
হলে নীচের চলভাষে যোগাযোগ করতে পারেন -
চলভাষ - ৯৪৩৪৫১৬৮৯৮ / ৯৩৩০৪৬২৬২০ / ৯৪৩৩৫৬৬৩০২
অথবা ই-মেল করুন-
rajeshdattain@yahoo.com / rajeshdattain@gmail.com    
অথবা এই ওয়েব-সাইটে মেল করুন -
srimilansengupta@yahoo.co.in     
মাটি আমাদের প্রাণ
কবি রাজেশ দত্ত

মাটি আমাদের প্রাণ |
মাটি আমাদের মান |
মাটির মানুষ আমরা গাই
আবহাওয়া পাল্টায়
কবি রাজেশ দত্ত

আবহাওয়া পাল্টায় |
দাবিদাওয়া পাল্টায় |
পাল্টায় মিছিলের মুখ |
এ যুগটা পাল্টায় |
কারো মনে সংশয়, কারো মনে ভয়
কবি রাজেশ দত্ত

কারো মনে সংশয়, কারো মনে ভয় |
কারো মনে উদ্দাম ঝোড়ো হাওয়া বয় |
আপোসের খিদেটাই কারো কাছে বড়ো,
আপোস খাবে না বলে ভুখা পেট কারো |
মাকড়সাতে জাল বিছাল
কবি রাজেশ দত্ত

মাকড়সাতে জাল বিছাল,
লুটতে স্বদেশ বর্গি এল |
মাথার ভেতর ঘুরঘুর ঘুরঘুর
ঘুণপোকার বাস রে |

খোকা তুই ঘুমোস না
পাড়াটা জুরোস না |
তোর ঘুমের ঘোরে বর্গি এসে
খাল কাইট্যা আনলি কুমির
কবি রাজেশ দত্ত

খাল কাইট্যা আনলি কুমির |
কুমিররে বানাইলি আমির |
খাইতে দিলি, পরতে দিলি
নাগরিক হার্মাদেরা
রাজেশ দত্ত

ওরা বিশিষ্ট, বিশেষ রূপে শিষ্ট!
ওঁদের শিষ্টাচারে উত্ফুল্ল শাসকের দল |
ওঁদের মস্তক লুটায় রাজ পদতলে,
উষ্ণীষের নিচে শুধু ধড় সম্বল |
আরও অর্থ, আরও খ্যাতি, আরও যশ
রাজার বাহবা কুড়াতে কুঞ্চিত আপোস |
বিনিময়ে বাজারে বিকোক সততা,
নিলামে চড়ুক যা কিছু সত্য, মানবিক |
অমলকান্তি
রাজেশ দত্ত

অমলকান্তি রোদ্দুর হতে পারে নি |
অমলকান্তি তবুও তো হাল ছাড়ে নি |
অমলকান্তি সূর্যকে চায় ছুঁতো |
আমরা পারি নি অমলকান্তি হতে |

অমলকান্তি রোদ্দুর হতে চেয়েছিল |
বনলতা সেন ২০০৮
রাজেশ দত্ত

পৃথিবী পড়েছে নুয়ে অস্ত্রের ভারে |
রক্ত ঝরেছে কত হাজার বছরে |
বেলা বোস ২০০৭
রাজেশ দত্ত ২২ সেপ্টেম্বর ২০০৭

বেলা তোমায় লিখছি আজকে চিঠি
হারিয়েছিলে হঠাৎ যেমন আগে
সন্ধে নামে ধুলোয় ধোঁয়ায়
গড়িয়াহাটের মোড়ে
আকাশ রঙিন সিঁদুর অস্তরাগে

টু ফোর ফোর ওয়ান ওয়ান খ্রি নাইন
নম্বরটা পড়ছে আজো মনে
পাল্টে গেছে অনেক কিছুই
পাল্টে গেছো তুমি
পাল্টায় নি ভালোবাসার মানে

এই চিঠিটা ফেলবো না তো ডাকে
থাকবে পড়ে ম্যাগাজিনের ভাঁজে
তবুও তোমায় লিখছি চিঠি
হাজার কাজের ফাঁকে
লিখছি কেন কেউ তা জানে না যে

আমার কথা তোমায় কি আর বলি
কসবা ছেড়ে কেষ্টপুরে আছি
বুকের ভেতর স্বপ্ন নিয়ে
একলা পথে চলি
লাল নীল সেই স্বপ্ন নিয়েই বাঁচি

টু ফোর ফোর ওয়ান ওয়ান খ্রি নাইন
নম্বরটা পাল্টে যাচ্ছে রোজ
দিনরাত্তির পাবলিক বুথে
ব্যস্ত ফোনের লাইন
বেলা বোসদের তবু মেলে না তো খোঁজ

সেদিন ফোনের জবাব দাও নি বলে
বেলা তোমায় দিচ্ছি না তো দোষ
এই সমাজে মন নিয়ে আজ
দেখছি সবাই খেলে
নওতো তুমি একলা বেলা বোস

আমরা সবাই খুঁজছি ভালো বাসা
সাতশো কিংবা হাজার স্কোয়ার ফিট
হারিয়ে ফেলছি অবহেলায়
সম্পর্কের ভাষা
আলগা হচ্ছে ভালোবাসার ভিত

টু ফোর ফোর ওয়ান ওয়ান খ্রি নাইন
হাতের মুঠোয় সব টেলিফোন
শুনতে পেয়েও তোমরা বেলা
দিচ্ছ না তো সাড়া
ডাকছে কত সবুজ অবুঝ মন

ধর্ম সমাজ রাষ্ট্র পুলিশ থানা
চোখ রাঙিয়ে করছে চৌকিদারী
বেণীমাধব
রাজেশ দত্ত ১৪ ফেব্রুয়ারি ২০০৬

বেণীমাধব, বেণীমাধব
তোমার বাড়ি আর যাবো না |
বেণীমাধব, বেণীমাধব
আমার কথা আর ভেবো না |

বেণীমাধব, বেণীমাধব
তোমার সাথে করছি আড়ি |