রাজেশ দত্তর গান ও কবিতা
যে কোন কবিতার উপর ক্লিক করলেই সেই কবিতাটি আপনার সামনে চলে আসবে।   www.milansagar.com
*

.                       --রাজেশ দত্ত, ২২ আগস্ট ২০১১

.             ***************************                    
.                                                                                     
উপরে      




মিলনসাগর     
কোনও গণসংগীত সংস্থা বা শিল্পী, এই কবির এই গানগুলি অথবা তাঁর অন্যান্য গানের সুর ও স্বরলিপি পেতে আগ্রহী
হলে নীচের চলভাষে যোগাযোগ করতে পারেন -
চলভাষ - ৯৪৩৪৫১৬৮৯৮ / ৯৩৩০৪৬২৬২০ / ৯৪৩৩৫৬৬৩০২
অথবা ই-মেল করুন-
rajeshdattain@yahoo.com / rajeshdattain@gmail.com    
অথবা এই ওয়েব-সাইটে মেল করুন -
srimilansengupta@yahoo.co.in     
*
ফিরে এসো প্রাণে প্রাণে
পরে গণবাউলের বেশটা।


.       ****************                    
.                                                                                     
উপরে      




মিলনসাগর     
*

.                রাজেশ দত্ত, ৫ ফেব্রুয়ারি ২০১১

.       ****************                    
.                                                                                     
উপরে      




মিলনসাগর     
*
লালনের গানে গানে
মনের মানুষ নাও গো চিনে।
সুরের মাঝেই সুরের গুরুর
হয় অন্বেষণ।।

.                -- রাজেশ দত্ত, ৯ জুলাই ২০০৯


.       ****************                    
.                                                                                     
উপরে      




মিলনসাগর     
*
বেচাকেনায় মন ভরে না।

তবু সাধ থাকে, আশা থাকে
প্রেম-ভালোবাসা থাকে।
বৈঠারও ভাষা থাকে,
কেউ তা বুঝতে পারে না।।

.                -- রাজেশ দত্ত, ১৬ জুলাই ২০০৯

.       ****************                    
.                                                                                     
উপরে      



মিলনসাগর     
*
উদাস বাউল খুঁজে ফেরে আকুল পরানে।
মন জানালা খুলে রেখে
পথের পানে চেয়ে থাকে
পাগলপারা উতল চোখে,
কেউ তা বোঝে না।।

.                -- রাজেশ দত্ত, ১৫ জুলাই ২০১০

.       ****************                    
.                                                                                     
উপরে      




মিলনসাগর     
*
আমি তোমার প্রাণের গান।
দু’জনাতে সুখের খোঁজে
চলো না যাই বাউল-বাগান।
অমাবস্যায় চাঁদ লেগেছে,
আকাশ জুড়ে পূর্ণমাসী।।

.                -- রাজেশ দত্ত, ১০ আগস্ট ২০০৯

.       ****************                    
.                                                                                     
উপরে      




মিলনসাগর     
*
মোদের ঘাটে আজও ভেসে আসে।
সেই মেয়েটি চোরা স্রোতের বাঁকে
ভেসে গেছে কোন সে নিরুদ্দেশে।

তাদের গাছে আজও দোয়েল ডাকে,
কাঁপন লাগে শূণ্য এই বুকে।
রঞ্জনারা হারিয়ে যায় কোথায়,
রঞ্জনাদের কেই বা খোঁজ রাখে।


- রাজেশ দত্ত, চন্দননগর

.                  **************       
.                                                                            
উপরে
.                      সিঙ্গুর-নন্দীগ্রামের অন্যান্য কবিদের সূচির পাতায় ফেরত
.                                   সিঙ্গুরের কবিতার মূল সুচির পাতায় ফেরত       


মিলনসাগর
*
নারী, তুমি "মানুষ" হও।

.        **************       
.                                                                               
উপরে         
.                        
সিঙ্গুর-নন্দীগ্রামের অন্যান্য কবিদের সূচির পাতায় ফেরত       
.                                     
সিঙ্গুরের কবিতার মূল সুচির পাতায় ফেরত       


মিলনসাগর
*
যাহারা তোমার বিষাইছে বায়ু, নিভাইছে তব আলো,
তাদের রুখতে হাতে হাত রেখে ব্যারিকেড গড়ে তোলো।

.                    **************       
.                                                                            
উপরে         
.                      
সিঙ্গুর-নন্দীগ্রামের অন্যান্য কবিদের সূচির পাতায় ফেরত
.                                   সিঙ্গুরের কবিতার মূল সুচির পাতায় ফেরত       


মিলনসাগর
তাহার নামটি রঞ্জনা
কবি রাজেশ দত্ত

আমাদের সেই খঞ্জনা গ্রামে
আজো বয়ে চলে অঞ্জনা নদী।
শুধু সাড়াটুকু দেয় না তো কেউ আর
রঞ্জনা বলে ডাকি আজ তারে যদি।

তাহার দুটি পালন করা ভেড়া
নারী
কবি রাজেশ দত্ত

নারী, তুমি তুলসীতলার পিদিম?
জীবন্ত এক টেরাকোটার মূর্তি দামি?
নারী, তুমি বছর বছর
ভ্রূণ হত্যার সালতামামি?

নারী, তুমি রামকেষ্টর নরক-দুয়ার?
শাস্ত্র বচন, বিধান শরিয়তি?
নারী, তুমি পণের টাকায় ফ্রিজ কি গাড়ি,
হিসেব কষা লাভ আর ক্ষতি?
নারী, তুমি দশটি মাস আর দশটি দিনে
গোপন সুখ যত্নে ধরা?
নারী, তুমি রঙিন শাড়ি নিপাট যেন
আলনাতে ভাজ করা?

রী, তুমি নখের পালিশ, চোখের কাজল
ঠোঁট রাঙানো লাল লিপস্টিক?
নারী, তুমি ফেমিনিজমের ঝোড়ো হাওয়ায়
পথ হারানো মূল্যবোধের ঠিকবেঠিক?

নারী, তুমি ভিড়ের বাসে
লেডিস সীটের সন্ধানী মন?
নারী, তুমি পার্ক হোটেলে
বিলাস সুখে রাত্রিযাপন?
নারী, তুমি চড়া সাজ আর
কড়া মেকাপ আলগা চটক?
নারী, তুমি বাঈজি নাচা
কলকাতাতে তিনটি শতক?

নারী, তুমি কলকাতাতে সিক্ত বসনা
হেমেবাবুর তুলির টানে আঁকা ছবি?
নারী, তুমি বনলতা কি নীরা কিংবা
হরেক কবির মনগড়া রূপকথা?
নারী, তুমি চিতার আগুনে রূপ কানোয়ার?
উপাখ্যানের সাবিত্রী বা সীতা?
নারী, তুমি সলীল চৌধুরীর সুরে
একুশ শতকের ‘প্রশ্ন’
রাজেশ দত্ত

আমেরিকা, তুমি যুগে যুগে দূত পাঠায়েছো বারে বারে
এই ভারতের দ্বারে --
তারা বলে গেল, ‘কাঁচামাল দাও’,
বলে গেল, ‘খোলো বাজার’---
বেগার খাটিতে গরিব মজুর জোগাও হাজার হাজার।
দেবব্রত বিশ্বাস স্মরণে : জন্মশতবর্ষের শ্রদ্ধার্ঘ্য
কবি রাজেশ দত্ত

‘ব্রাত্য’ তবু সত্য তুমি গানের ভুবনে সুরের গুরু।
গনশিল্পী সুরেশ বিশ্বাসে’র স্মৃতির উদ্দেশে শ্রদ্ধার্ঘ্য
রাজেশ দত্ত, (সুরেশ বিশ্বাসের গান “আমি তোমাদের অতি চেনা বন্ধু”-এর মূল সুরে সুরারোপিত)

তুমি আমাদের অতি চেনা বন্ধু,
জন্মদিনের গান
রাজেশ দত্ত

বয়স বাড়ছে, বাড়ুক।
শীতের পাতা ঝরুক।
মনটা তো নয় আলসে।
মনের দরজা খুলে
লালন স্মরণে
রাজেশ দত্ত

কাঁটাতারের বেড়া দিয়ে
উজানি নাওয়ের মাঝি
রাজেশ দত্ত

জীবন নদীর ধারা
আল-বাঁধে বাঁধা পড়ে না।
উজানি নাওয়ের মাঝি
হাটের সওদা করে না।

বাতাস লেগেছে পালে,
দরিয়ায় ঢেউ তুলে
বাউলের দুঃখ সাজে না
রাজেশ দত্ত

বাউলের দুঃখ সাজে না।
ওগো বাউলিনী
রাজেশ দত্ত

ওগো বাউলিনী,
হোও না আমার চরণদাসী।