কবি শিবদাস বন্দ্যোপাধ্যায়ের গান ও কবিতা
*
কথা - শিবদাস বন্দ্যোপাধ্যায়
সুর - রামানুজ দাশগুপ্ত
শিল্পী - রুমা গুহঠাকুরতার পরিচালনায় ক্যালকাটা ইয়ুথ কয়্যার

এই     পৃথিবীর থেকে ঐ আকাশ বড়
.         আকাশের থেকে বড় সূর্য-তারা
,         সূর্যের থেকে আরও অনেক বড়
.         মানুষের শাশ্বত স্রোতের ধারা
.                    সেই মানুষের গান মোরা গাই
.                    মোরা মানুষের জয়গান গাই ||

এই     পৃথিবীর থেকে ঐ সাগর বড়
.         নীল সাগরের বুকে জলের ধারা
.         নীল সাগরের থেকে অনেক বড়
.         হৃদয়ে প্রেমের এই ফল্গুধারা
.                    এই হৃদয়েতে প্রেম আছে
.                    মোরা মৈত্রীর দু’হাত বাড়াই ||

জানি    সুখ ছোট দুঃখ সে অনেক বড়
.          দুঃখের চেয়ে বড় এ’ মহা-জীবন
.          জীবনের চেয়ে আরও অনেক বড়
.          ভালোবাসা দিয়ে গড়া মানুষের মন
.                           সেই জীবনের গান মোরা গাই
.                           মোরা জীবনের গান গেয়ে যাই ||

.                   *************************  

.                                                                                          
সূচিতে . . .   


মিলনসাগর
*
কথা - শিবদাস বন্দ্যোপাধ্যায়
সুর - সলিল চৌধুরী
শিল্পী - রুমা গুহঠাকুরতার পরিচালনায় ক্যালকাটা ইয়ুথ কয়্যার

জীবন যদি জীবন হয়
.        ‘জয়’ কে তুই আপন কর
স্বর্গ যদি কোথাও থাকে
.         নামাও তাকে মাটির ‘পর |

এই দুঃখ তো নয় চিরদিন
এই কষ্ট তো নয় চিরদিন
এ’দিন যাবেই যাবে এ-আজ
যেমন গেছে হঠাৎ এ-দিন
আবার হবে পৃথিবীটা
.        বসন্তেরই এ-জীবন |
( স্বর্গ যদি কোথাও থাকে নামাও তাকে মাটির ‘পর )

সকাল-সন্ধ্যা রঙিন করে
.        সুনীল আকাশ রূপকার
এ-গান শোনায় পৃথিবী শোন
.         বাতাসে তার এ ঝংকার
এ দেশটাকে আবার পরাও
.         নতুন সাজের অলংকার |
( স্বর্গ যদি কোথাও থাকে নামাও তাকে মাটির ‘পর )


মরণ আসে নানান্ বেশে
.         বসনে তার অন্ধকার
মানাতে হার সে কি পারে
.         নিজেই সে তো মেনেছে হার
নতুন প্রভাত জেগে ওঠে তার
.         নব জীবন হল রে ভোর |
( স্বর্গ যদি কোথাও থাকে নামাও তাকে মাটির ‘পর )

.                   *************************  

.                                                                                          
সূচিতে . . .   


মিলনসাগর
*
কথা - শিবদাস বন্দ্যোপাধ্যায়
সুর - অংশুমান রায়
শিল্পী- ভূপেন হাজারিকা

শরৎবাবু,
খোলা চিঠি দিলাম তোমার কাছে
তোমার  ‘গফুর’  এখন
.        কোথায় কেমন আছে ?
.            তুমি জানো না
হারিয়ে গেছে কোথায় কখন
.        তোমার ‘আমিনা’  |
শরৎবাবু, এ’  চিঠি পাবে কি-না জানি না ||

গত বছর বন্যা হল, এ-বছর খরা
ক্ষেতের ফসল পুড়িয়ে দিল মাঠ শুকিয়ে ‘মরা’
একমুঠো ঘাস পায় না ‘মহেশ’     
.        দুঃখ ঘোচে না
.         তুমি জানো না  ||

বর্গীরা আর দেয় না হানা নেইতো জমিদার        
তবু এ-দেশ জুড়ে নিত্য হাহাকার ||

ভাবছো তুমি দেশ তো স্বাধীন
.          আছে ‘ওরা’ বেশ      
তোমার ‘গফুর’ ‘আমনা’ আর
.          তোমারই মহেশ
এক মুঠো ভাত পায় না খেতে
.          গফুর আমিনা
.          তুমি জানো না ||

.        *************************  

.                                                                                          
সূচিতে . . .   


মিলনসাগর
*
কথা - শিবদাস বন্দ্যোপাধ্যায়
সুর - ভূপেন হাজারিকা
শিল্পী- রুমা গুহঠাকুরতা

একখানা মেঘ ভেসে এল আকাশে
একঝাঁক বুনো-হাঁস পথ হারালো
একা একা বসে আছি জানালা পাশে
সে কি আসে, যারে আমি বেসেছি ভালো ||

এলোমেলো হাওয়া চোখে স্বপ্ন আনে
শর্মিলা মনে আজ কেন কে জানে
ভালোবেসে চুপি চুপি দিয়েছে দোলা
একমুঠো অনুরাগ মন ভরালো ||

আমি একা যক্ষ এই শহরের
যারে ডাকি কেন তার পাই না সাড়া
চোখে তাই ঝরো ঝরো বৃষ্টি ধারা |

ছায়া ছায়া নিভু নিভু আলোর রেখা
এ সময়ে ভালো আর লাগে না একা
বাতাসের হাতে আজ পেলাম চিঠি
বিরহের কথা মেঘ লিখে পাঠালো ||

.        *************************  

.                                                                                          
সূচিতে . . .   


মিলনসাগর
*
কথা - শিবদাস বন্দ্যোপাধ্যায়
সুর ও শিল্পী- ভূপেন হাজারিকা

জীবন বাবু নমস্কার
তোমার মত বন্ধু এমন
কোথায় আমি পাব আর
এই জীবনের কান্না-হাসির
তুমিই চিত্রনাট্যকার ||

বাংলা দেশের মানুষ কোরে
নিয়ে এলে দু’হাত ধরে
হলুদ নদী সবুজ বনের
ছায়ায় ঢাকা এ-প্রান্তরে |
রবিঠাকুর নজরুলের এই
দেশ যে আমার অহংকার ||
কন্ঠে আমার দিয়েছো সুর
তোমার কাছে অনেক ঋণ
জীবনেরই গান গেয়ে যাই
আনন্দে তাই প্রতিদিন |

মায়ের বুকের আদর স্নেহ
অন্তবিহীন আশীর্বাদ
ভায়ের ভালবাসা পেয়ে
মিটেছে এই মনের সাধ
এই জীবনের দুঃখ মুছে
পেলাম যে সুখ পুরস্কার ||
.        জীবনবাবু নমস্কার ||

.        *************************  

.                                                                                          
সূচিতে . . .   


মিলনসাগর
*
কথা - শিবদাস বন্দ্যোপাধ্যায়
সুর ও শিল্পী : অংশুমান রায়
কিউবা যুব সম্মেলনে পরিবেশিত


কারও কেনা নয় এই পৃথিবী
আমাদের-জেনে রেখো বন্ধু
ঘাম আর রক্তকে ঝরিয়ে
পৃথিবীকে সাজিয়েছি বন্ধু ||

হাতের মুঠোয় করে পৃথিবী
যারা চায় অধিকার রাখতে
পৃথিবী তাঁদের কেনা নহে তো
পদতলে পারবে না রাখতে ||

ঈগলের ডানা-মেলা ছায়াতে
আমদানী করে যারা যুদ্ধ
আরবে,  ইরাকে, ইরানে
নিজেরাই হবে অবরুদ্ধ ||

আমাদের সুন্দর পৃথিবী
ভাসমান রক্ত-সমুদ্রে
লালসা-লালিত থাবা মাটিতে
ওঠাও ওঠাও হাত ঊর্ধ্বে ||

স্বাধীনতা, শান্তির শত্রু
আসে ওই চিনে রাখো, বন্ধু
জনতার একতার হাতিয়ার
প্রস্তুত করে রাখো বন্ধু  ||

.     *************************  

.                                                                                          
সূচিতে . . .   


মিলনসাগর
*
কথা - শিবদাস বন্দ্যোপাধ্যায়
সুর - অভিজিৎ বন্দ্যোপাধ্যায়
শিল্পী- সনৎ সিংহ

এই পৃথিবীটা যে এক মস্ত বড়
বায়োস্কোপের এক বাক্স
চোখ রেখে দেখে যাও নানা দৃশ্য
লাগবে না কানাকড়ি ট্যাক্ সো  ||

যার, হাত নেই তার নাম জগন্নাথ
সে-যে, রাতকেই দিন করে, দিনকেই রাত
মুখোশেতে মুখ ঢেকে
নিজেকে আড়ালে রেখে
কাজ করে যেন একা-এক্ শো ||

আহা, দিন নেই রাত নেই বাজার কালো
কিছু, চাইলেই নেই, তাই, না-চাওয়া ভালো
যেন ফুস্ মন্তরে
পাখা মেলে যায় উড়ে
জীবনকে নিয়ে করে মক্ সো ||

.     *************************  

.                                                                                          
সূচিতে . . .   


মিলনসাগর
*
কথা - শিবদাস বন্দ্যোপাধ্যায়
সুর ও শিল্পী- ভূপেন হাজারিকা

ও বেহুলা বাংলা
আমার দুখিনী বাংলা
তোর কপালের সিঁদুরে টিপ মুছিয়ে দিল ঝড়
বানভাসি তোর নদীর বুকে আমরা লখিন্দর ||

চোখের জলে বুক ভেসে যায়
ঘর ভেসে যায় বানে
তুল্ সী তলায় পিদিম জ্বেলে
কে দেবে উঠোনে
তোর ভবিষ্যৎ এমন করে
দিল দ্বীপান্তর ||

রূপসী বাংলা আমার শ্যামলী বাংলা
ও তোরা ফুলেশ্বরী ধানের খেতে নেই তো সোনা রং
নদীর জলে ভাসছে হাজার লখিন্দরের শব ||

লক্ষ্ণী পেঁচা, চড়ুই পাখি বসে না আর ঘরে
চন্ডীতলার, আটচালা তোর ভেঙে গেছে ঝড়ে
চূর্ণী নদীর ঘূর্ণী জলে ভাসছে তেপান্তর ||

.           *************************  

.                                                                                          
সূচিতে . . .   


মিলনসাগর
*
কথা - শিবদাস বন্দ্যোপাধ্যায়
সুর ও শিল্পী- ভূপেন হাজারিকা

সবার হৃদয়ে রবীন্দ্রনাথ
.       চেতনাতে নজরুল
যতই আসুক বিঘ্ন-বিপদ
.       হাওয়া হোক্ প্রতিকূল
এক হাতে বাজে অগ্নিবীণা
.       কন্ঠে গীতাঞ্জলি
হাজার সূর্য চোখের তারায়
.       আমরা যে পথ চলি  ||

এই সেই দেশ একদা যেখানে উপনিষদের ঋষি
সমতার গান গেয়েছিল আর শুনেছিল দশ-দিশি
প্রপিতামহের ভাষাতে আজো আমরা যে কথা বলি
হাজার সূর্য চোখের তারায় আমরা যে পথ চলি  ||

এই সেই দেশ এখনও এখানে শুনি আজানের ধ্বনি
গীতা বাইবেল ত্রিপিটক আর শোনা যায় রামায়ণী
কবি কালিদাস ইকবাল আর গালিবের পদাবলি
হাজার সূর্য চোখের তারায় আমরা যে পথ চলি ||

.               *************************  

.                                                                                          
সূচিতে . . .   


মিলনসাগর
*
কথা - শিবদাস বন্দ্যোপাধ্যায়
সুর ও শিল্পী- ভূপেন হাজারিকা
( বাংলাদেশের মুক্তি আন্দোলনের সমর্থনে রচিত  )

গঙ্গা আমার মা
পদ্মা আমার মা
আমার, দুই চোখে দুই জলের ধারা
.                     মেঘনা, যমুনা ||

একই আকাশ  একই বাতাস
একই হৃদয়ে একই তো শ্বাস
দোয়েল কোয়েল পাখির মুখে
.                          একই মূর্ছনা ||

আমি এ-পার ও-পার কোন্ পারে জানি না
ও     আমি সবখানেতে আছি
শংখচিলের ভাসিয়ে ডানা দুই নদীতে নাচি |

একই আশা ভালবাসা
কান্না-হাসির একই ভাষা
দুঃখ-সুখের বুকের মাঝে
.                একই যন্ত্রণা ||

.               *************************  

.                                                                                          
সূচিতে . . .   


মিলনসাগর