কবি শ্যামল গুপ্তর গান ও কবিতা
www.milansagar.com
*
কথা - শ্যামল গুপ্ত
সুর ও কণ্ঠ - মানবেন্দ্র মুখোপাধ্যায়

আরও একটুখানি কাছে থাকো না,
আরও কিছু কথা বলো না ;
এখনও যা বলা হলো না-----
আধোলাজে তারে ঢেকে রেখো না ||
দু’টি চোখে ঝরো ঝরো জোছনারই স্বপ্ন,
দুরু দুরু হিয়া ঘিরে মাধবীর লগ্ন ;
চুপি চুপি হাওয়া বলে, না,  না, যেও না ||
আছে গান, আছে প্রাণ, আছে ভালোবাসা-----
হাসি আর বাঁশি জুড়ে শুধু আলো আশা |
দু’টি হাতে রিনিঝিনি কাঁকনের ছন্দ,
ভেসে আসে করবীর বনযূথী গন্ধ------
কানে কানে বলি শোনো, না, না, যেও না  ||

.       ************************     
.                                                                                           
সূচিতে . . .    




মিলনসাগর
*
কথা - শ্যামল গুপ্ত
সুর ও কণ্ঠ - মানবেন্দ্র মুখোপাধ্যায়

ভালো লাগে না তুমি না এলে---
কি যে করি বলো দূরে গেলে  ||
যত ভাবি কাজে ভুলে থাকি
তত মনে পড়ে দু’টি আঁখি |
তুমি বলো তুমি তো আমারই,
সবই বুঝি বোঝাতে না পারি,
মন ভেসে চলে দূরে দূরে
মরমীয়ারে কাছে না পেলে ||
চেয়ে চেয়ে দেখি ভরা সাঁঝে
হাওয়া ছুঁয়ে গেল চেনা কূলে ;
একে একে কত তারা ওঠে
তবু নিজেরে রয়েছি ভুলে |
যত বলি তুমি তো আমারই
কোনো সাড়া মেলে না গো তারই---
আসিয়া ঘরেতে একা একা
দাও ভালোবেসে আলো জ্বেলে ||

.       ************************     
.                                                                                           
সূচিতে . . .    




মিলনসাগর
*
কথা - শ্যামল গুপ্ত
সুর - প্রভাস দে

আমি আজ আকাশের মতো একলা---
কাজল মেঘের ভাবনায়
বাদলের এই রাত ঘিরেছে ব্যথায় ||
সজল উদাস বায়ে বুকের কাছে
স্মরণের তারাগুলি ঘুমায়ে আছে---
বিলাপের ভাঙা সুর থেমে গেছে আঁধার বীণায় ||
দুটি গান দুটি প্রাণ দুটি মন
এই নিয়ে দু’জনের এ ভুবন---
এ জীবন দেখেছিল শরতের সোনার স্বপন |
সে সাধ কি আজ কাঁদে নিরালা
নিয়ে শুধু বিজলীর দহনজ্বালা,
চকিত আলোয় তার আঁখি মোর দিশা য়ে হারায়  ||

.              ************************     
.                                                                                           
সূচিতে . . .    




মিলনসাগর
*
কথা - শ্যামল গুপ্ত
সুর প্রভাস দে

এই ক্ষণটুকু কেন এত ভালো লাগে
সে কি জীবনে প্রথম প্রেম এসেছে বলে,
আকাশ দিয়েছে ধরা আঁখির কোলে ||
আমারই মনের যেন পরশ পেয়ে
আলোয় আলোয় গেছে ভুবন ছেয়ে
আমারই প্রাণের রাগে গোলাপ রাঙা হয়ে দুয়ার খোলে  ||
কে জানে কোথায় ছিল এত যে কথা
কাকলি কূজনে যারা এনেছে ওগো আজ এ অধীরতা
আমারই নিঝর হল আঝোর ঝরা,
আমারই হাসির মায়া বনের সবুজ ওই স্বপনে দোলে  ||

.              ************************     
.                                                                                           
সূচিতে . . .    




মিলনসাগর
*
কথা - শ্যামল গুপ্ত
সুর ও কণ্ঠ - যূথিকা রায়

মন্দিরে নয়, সেথায় যাব প্রাণের কুসুম লয়ে
যেথায় তুমি লুকিয়ে আছ জন্মভূমি হয়ে  ||
ধূলার ধরণীতে
তোমার কাছে নিয়ে গেছি, পারি নি আর দিতে-------
ঋণী হয়েই সারা জীবন সেথায় গেলাম রয়ে ||
চেয়েছিলাম হতে তোমার মনের মতো হায়,
ভাগ্য আমার নিঠুর এমন তাও কি হওয়া যায় !
সব অপরাধ জেনে
জানি তবু করবে ক্ষমা নেবে মোরে মেনে------
এই আশাতেই যায় গো চোখের অশ্রুধারা বয়ে  ||

.              ************************     
.                                                                                           
সূচিতে . . .    




মিলনসাগর
*
কথা - শ্যামল গুপ্ত
সুর ও কণ্ঠ - শচীন গুপ্ত

তুমি নেই শুধু এই আর কিছু নয়, তবু মনে হয়
ফুল যেন আর ফোটা চায় না
পাখি যেন আর গান গায় না ||
সারারাতি নিঃঝুম চোখে আর নেই ঘুম
দিন যেন যেতে গিয়ে যায় না  ||
আঁখিজলটুকু হায় গেছে বুঝি শুকায়ে
সব কথা ব্যথা বয়ে আছে বুকে লুকায়ে |
কেঁদে ওঠা হাহাকার থেমে যায় বারে বার,
কেউ যে গো সাড়া কারও পায় না  ||

.              ************************     
.                                                                                           
সূচিতে . . .    




মিলনসাগর
*
কথা - শ্যামল গুপ্ত
সুর ও কণ্ঠ - সতীনাথ মুখার্জী

না যেও না গো চলে যেও না
ওগো মধুরাতি মোর সাথিরে লয়ে  |
ঝরামালা বুকে নিয়ে জানো নাকি হায়
সারাবেলা যাবে শুধু বেদনা বয়ে ||
গানে গানে বাঁশি মোর মিনতি জানায়
তারাজাগা ছায়ামেশা গগন কোনায় |
কাছে পেয়ে হারাতে যে মনে জাগে ভয়
দূরে গেলে আঁখি ঝুরে উদাসী হয়ে  |

.              ************************     
.                                                                                           
সূচিতে . . .    




মিলনসাগর
*
কথা - শ্যামল গুপ্ত
সুর ও কণ্ঠ - সতীনাথ মুখার্জী

বনের পাখি গায় বোলো না বোলো না,
ফাগুন মায়া শুধু ছলনা ছলনা |
কনকচাঁপা ডাকে আয় আয় রে -----
মাধবী রাতি চলে যায় রে |
তমাল তলে ওই বেণু বাজে
শিহর লাগে হিয়া মাঝে----
চাঁদের দোলায় মেঘের দোলনা  ||
যে মধু তিথি বিফলে হারায়
কভু সে ফিরে আসে না হায় |
দাও না সাড়া গানে গানে
মনের মুকুল রাঙায়ে তোলে না তোলে না |

.              ************************     
.                                                                                           
সূচিতে . . .    




মিলনসাগর
*
কথা - শ্যামল গুপ্ত
সুর - সতীনাথ মুখার্জী

এই বসন্ত জানালে বিদায়, ওগো জীবনের অলস বেলায়
কোনো নিরালা ক্ষণে বলো আর মনে হবে কি গো আমায় ||
আর কোনোদিন
ভুলে থাকা স্মরণের বীণ
জানি নাকো বাজাবে কিনা তুমি মোর সুরের মায়ায় ||
জানি এ তো দুরাশা আমার----
কত গান শুনে ভালো লেগেছে তোমার,
তার মাঝে এ গানের দাম বলো কতটুকু আর |
জাগে তবু সাধ
ক্ষমা করো মোর এই অপরাধ ;
আজ বুকে কি ব্যথা কাঁদে পারি না তো বোঝাতে তোমায় ||

.              ************************     
.                                                                                           
সূচিতে . . .    




মিলনসাগর
*
কথা - শ্যামল গুপ্ত
সুর - সতীনাথ মুখার্জী

যেথায় গেলে হারায় সবাই ফেরার ঠিকানা গো,
আজ ডাক এসেছে আমার সে দেশ থেকে |
বিদায় নেব একটিবার শুধু তোমায় দেখে ||
অনেক ভেবে বুঝেছি হায় থাকলে আমি কাছে,
দেখব শুধু কন্ঠ তোমার নীরব হয়ে আছে |
আমায় সরিয়ে দিয়ে নিয়তি তাই তোমার গানের ডালা
যাবে মুখর করে রেখে ||
মনে আমার ভয় ছিল গো ভেবে যে সেই কথা-----
তুমি সইতে কি আর পারবে আমার চলে যাওয়ার ব্যথা  ?
আজ হার মেনেছি নিজেই আমি বিদায় নেবার দুখে,
বুঝি নি তা বাজবে এমন আমার ভাঙা বুকে  |
তবু এ প্রেম আমার যেমন করে তোমায় পেতে চায়------
তাই শুনিয়ে গেলাম ডেকে ||

.              ************************     
.                                                                                           
সূচিতে . . .    




মিলনসাগর