কবি মহারাণী সুচারু দেবী – ভারতবর্ষীয় ব্রাহ্মসমাজের প্রতিষ্ঠাতা কেশবচন্দ্র সেনের তৃতীয়া কন্যা।
মাতা
কবি জগন্মোহিনী দেবী।  ১৯০৪ সালে কবির বিবাহ হয় ময়ৃরভঞ্জের রাজা রামচন্দ্র ভঞ্জদেবের সঙ্গে।

কবি বিদূষী শিক্ষানুরাগী ছিলেন। তিনি কিছুদিন “পরিচারিকা” পত্রিকাটি পরিচালনা করেছিলেন। তাঁর রচিত
গ্রন্থ “ভক্তি অর্ঘ প্রণতি”। সমাজকল্যাণমূলক কাজের সঙ্গেও তিনি যুক্ত ছিলেন। ১৯০৮ সালে তিনি এবং তাঁর
দিদি
কোচবিহারের মহারাণী সুনীতি দেবী মিলে শুরু করেন দার্জ্জিলিং-এর মহারাণী গার্লস স্কুল।

তিনি ১৯৩১ সালে বেঙ্গল উয়োমেন্স এডুকেশন লীগ এর সভাপতি নির্বাচিত হয়েছিলেন।

আমরা
মিলনসাগরে  কবি সুচারু দেবীর কবিতা তুলে আগামী প্রজন্মের কাছে পৌঁছে দিতে পারলে এই
প্রচেষ্টার সার্থকতা।

কবির একটি ছবি ও তাঁর জীবন সম্বন্ধে আরও তথ্য যদি কেউ আমাদের পাঠান তাহলে আমরা, আমাদের
কৃতজ্ঞতাস্পরূপ প্রেরকের নাম এই পাতায় উল্লেখ করবো।


উত্স --- নমিতা চৌধুরীঅনিন্দিতা বসু সান্যাল সম্পাদিত “মহিলা কবিদের কবিতা সংকলন ১৪০০-২০০০
দামিনী”।    


কবি সুচারু দেবীর মূল পাতায় যেতে এখানে ক্লিক করুন


আমাদের ই-মেল -
srimilansengupta@yahoo.co.in     


এই পাতা প্রথম প্রকাশ - ০৮.১১.২০১৪
...