কবি স্বর্ণকুমারী দেবীর কবিতা

উপকূলে থরে থরে
বায়ু ভরে দুলি দুলি,
হরষে সরসে মুখ
দেখিতেছে তরু-গুলি!

শ্যাম শষ্য দূর্ব্বাদল
ভক্তিভরে ন্যুয়ে ন্যুয়ে,
প্রণমে তাহারে সুখে,
ধরাতল ছুঁয়ে ছুঁয়ে।

শুভ্র অভ্র জ্যোতির্ম্ময়
অরুণ-কিরণ মাখা,
গাহিয়া উড়িছে পাখী
বিছায়ে পেলব পাখা।

এসেছে তুলিতে ফুল
বালিকা সাজিটি হাতে!
ভুলে গেছে ফুল তোলা
চেয়ে আছে নভ-পাতে!

বালিকা দেখিছে চেয়ে,
ফুল তোলা গেছে ভুলে,
প্রতিধ্বনি গাহিতেছে
সপ্তমে লহরী তুলে!

কোমল অমৃত সুরে
বিভু নামে ওঠে তান,
প্রভাত আনন্দে মগ্ন
সে গীত করিয়ে পান!

.    ****************                  
.                                                                            
সুচিতে...   




মিলনসাগর
জানিনাত
(কবিতা ও গান কাব্যগ্রন্থ থেকে নেওয়া)
স্বর্ণকুমারী দেবী

জানিনাত ভালবাসি
একটি অব্যক্তভাবে
একটি পরশে দেখি
একটি পরাণে দেখি
স্বর্গের সৌন্দর্য্য আলো
ঈশ্বরের প্রেমরূপ এ
আত্মায় আত্মায় হে
মঙ্গল সুন্দর সত্য আ
দেহের সীমাতে এ যে
জন্ম জন্মান্তরের পূণ্য
এই যদি ভালবাসা ভা
অনাদরে আদরে এ

.           ****************                  
.                                                                                      
সুচিতে...   




মিলনসাগর

.            ****************                  
.                                                                                      
সুচিতে...   




মিলনসাগর
নীরব বীণা
(কবিতা ও গান কাব্যগ্রন্থ থেকে নেওয়া)
স্বর্ণকুমারী দেবী

আমি নীরব বী
.                
আমার ছেঁড়া তা
.                
প্রাণের কথা যত,
.                        
মনে নাই যার,
.                        
গান যাহে যারা,
.                
আমার নাহি ভা
.                
সবাই বোঝে হে
.        কে বো
কেহ কি বুঝিবে
.                       

.            ****************                  
.                                                                                      
সুচিতে...   




মিলনসাগর
সন্ধ্যা সঙ্গীত
সন্ধ্যা
(কবিতা ও গান কাব্যগ্রন্থ থেকে নেওয়া)
স্বর্ণকুমারী দেবী

সুনীরব সন্ধ্যাকালে পূরব গ
জ্বল জ্বল তারা দুটি চাহে
বায়ু বহে মৃদু মন্দ মধুর চাঁ
পাতার বিতান হতে আসে

নিভৃত নিকুঞ্জ বাটী, বসে আ
নয়নে আঁধার জাগে স্নিগ্ধ অ
নবপটে ছায়া ছায়া স্পন্দহী
ধ্যেয়ায় একাগ্রচিত্তে কি রহ

বকুল শাখাটি ন্যুয়ে দুলে দু
দু একটি ফেলে কোলে ফুল
প্রশান্ত সরসী তলে ঘনাইছে
গভীর প্রাণেতে তার কি যে

মালতীর লতা গাছে ফুলে ফু
আঁধারে রূপের আলো চমকে
সুদূরে মন্দির মাঝে পূরবী রাগিণী
তুলিয়া প্রাণের প্রাণে অনন্তে

.            ****************                  
.                                                                                      
সুচিতে...   




মিলনসাগর
প্রভাত
(কবিতা ও গান কাব্যগ্রন্থ থেকে নেওয়া)
স্বর্ণকুমারী দেবী
বঙ্গের বিধবা
(কবিতা ও গান কাব্যগ্রন্থ থেকে নেওয়া)
স্বর্ণকুমারী দেবী