কবি রত্নেশ্বর হাজরার কবিতা
*
নাগরদোলা
কবি রত্নেশ্বর হাজরা
অসিতকুমার বন্দ্যোপাধ্যায় সম্পাদিত বাংলা কবিতা সমুচ্চয়, ২য় খণ্ড থেকে নেওয়া।


দেখতে পেলেই ঘুরে বলব নেই তো                তুমি এখানে নেই
ওখানে নেই সেখানে নেই তুমি এখন নাগরদোলায় এখন তোমার
বাঁ দিকের হাত ডান দিকের পা বাঁ দিকের চোখ ডান দিকের কান
উঠছে নামছে হৃদয় টিদয় এখন তোমার
ছায়া উঠছে ছায়া নামছে
.                     ছায়া উঠবে ছায়া নামবে
.                                           নামতে নামতে উঠে গিয়েই
বলে উঠবে এই যে আমি এই যে আমি এই যে আমি-ই-ই-ই-
.                                                 এখানে নেই
.                       ওখানে নেই
ওখানে  না-| - |- | -|
এখান থেকে ওখান থেকে সেখান থেকে তখন কেবল
শব্দ কেবল এই যে আমি শব্দ কেবল ওই যে তুমি ওই যে তুমি
ওই যে তুমি শব্দ কেবল উঠছে নামছে উঠছে নামছে দেখতে পেলেই
ছায়া কেবল
ছায়াটায়া
শব্দটব্দ
.     উঠছে নামছে
.     উঠছে নামছে
.              শব্দ কেবল
.              শব্দ কেবল
.                       তুমি কোথায়
.                       তুমি কোথায়
.                           তুমি কোথা--  |  -  | -   | - |

.                 **************************  
.                                                                                
সূচিতে . . .    


মিলনসাগর
*
ঘরের অস্তিত্ব         
কবি রত্নেশ্বর হাজরা
উত্তম দাশ ও মৃত্যুঞ্জয় সেন সম্পাদিত, ‘আধুনিক প্রজন্মের কবিতা’ থেকে নেওয়া।

হঠাৎ ঘুরতেই দেখি----ঘ          ঢুকছে ঘরে
খুঁজছে আমাকে ---- আমি আছি
.                 উঠোনের অন্য পাশে ছায়ার ভিতর
দাঁড়িয়ে দেখছি             হাওয়া এলোমেলো করে
ঘ-এর শরীর                একটু দূরে
সে এসেছে একা--- খুঁজছে ঘর |     আমি
দাঁড়িয়ে দেখলাম তাকে ---ঘ
.                         ফিরে যাচ্ছে ঘুরে---

ঘ  ফিরে গেলেই আমি ঢুকে পড়ি---- খুঁজি
ঘরের অস্তিত্ব ---- ঘর----নেই ---
চারদিকে ছড়িয়ে তার বিরক্তি  ও ঘৃণা
প্রতিজ্ঞার চিঠিপত্র
.                 অঙ্গুরীয়
.                       বিবর্ণ উত্তাপ---
.                 সে গেল কোথায় !
ঘরের সন্ধানে ঘোরে ঘ---চেয়েছিল
.                 কিছু পুণ্য --- কিছু যৌথ পাপও---

.                 **************************  
.                                                                                
সূচিতে . . .    


মিলনসাগর
*
সহজ       
কবি রত্নেশ্বর হাজরা
উত্তম দাশ ও মৃত্যুঞ্জয় সেন সম্পাদিত, ‘আধুনিক প্রজন্মের কবিতা’ থেকে নেওয়া।


কঠিন শিখেছ কিছু      সহজ রয়েছে পড়ে দূরে
কিছুটা রোদ্দুরে আর
.                     কিছুটা ছায়ায়
বাগানে পাতারা পড়ে --- কিছু উড়ে যায়
দ্যাখে      যারা পড়ে আছে তাদের কঠিন অবয়ব
.                   কঠিন শিখেছ প্রায় সব
.                           সহজ পালাচ্ছে
.                                 ঘুরে ঘুরে ---

যেন কিছু পাখি        কিছু পোষা      কিছু
.                                     সম্পূর্ণ বিবাগী
অরণ্যে আকাশে      যায় আসে      দেখা যায়
.                সকালে বিকেলে --- ধরা পড়েও পড়ে না
অনেকেই চেনা ---- কিন্তু অনেক অচেনা---
পুষেছ কঠিন কিছু                 সহজ নিয়মে
.                                            সহজ কোথায় !

.                 **************************  
.                                                                                
সূচিতে . . .    


মিলনসাগর
*
আসছি
কবি রত্নেশ্বর হাজরা
উত্তম দাশ ও মৃত্যুঞ্জয় সেন সম্পাদিত, ‘আধুনিক প্রজন্মের কবিতা’ থেকে নেওয়া।


আসছি             ঝোড়ো হাওয়ার শব্দ ডাইনে রেখে
আসছি             বাঁয়ে নদীর শব্দ এবং প্রাচীন
পাহাড়গর্ভ জীবাশ্মময়                 লুপ্ত গুহা
আদিম পথের চড়াই ভেঙে             আসছি         একা
দিন কেটে যায় রাত কেটে যায় লামার গুম্ফা
.                 একলা ঘুমায়
.                        আসছি               আমি
যাচ্ছি হাহা যাচ্ছি হুহু----- কিন্নরেরা
যাচ্ছি হে কাম            যাচ্ছি কামুক             গন্ধর্বগণ
যাচ্ছি বরফ যাচ্ছি শৃঙ্গ যাচ্ছি হে খাদ
.                             সূর্যাস্ত আর সূর্যোদয়ের বিশ্লেষিত
.                              আলোক কণা          এবং রাত্রি
তুষারমানব নির্জনতা যাচ্ছি              আমি
আসছি সবুজ তরাই এবং পার্বত্যগ্রাম
.                            চোরবাটুতে একলা পথিক সন্ধেবেলা
পাখ পাখালির ঝরণা হিংস্র যুবক চিতা
আসছি হরিণ             হে রোগ ব্যাধি          হে আরোগ্য
আসছি               হে ধূপ --- শংখ---- উলুধ্বনির শব্দ
ভিড়ের রাস্তা --- জেব্রালাইনে ব্যস্ত মানুষ
.                       দুর্ঘটনা
.                       আসছি ক্ষুধায় ক্ষিপ্ত মানুষ
হৈ হুল্লোড়ে মাতাল মানুষ শোকের ছায়ায় স্তব্ধ মানুষ
আসছি           মৌন শবের শরীর বহনকারী
আসছি           পলির গন্ধ         নিদ্রা       জাগার শব্দ
ছাতিমতলায় ছায়ার বৃত্ত
.                             আসছি----

.                 **************************  
.                                                                                
সূচিতে . . .    


মিলনসাগর
*
নিজের মতো ক’রে
কবি রত্নেশ্বর হাজরা
উত্তম দাশ ও মৃত্যুঞ্জয় সেন সম্পাদিত, ‘আধুনিক প্রজন্মের কবিতা’ থেকে নেওয়া


ওকেও দাও নিজের মতো থাকতে একটু
ওকেও দাও থাকতে একটু একা
একটুখানি সব কিছু দাও দেখতে ওকে
.         নিজের সঙ্গে নিজেই করুক দেখা---
জন্মদিনের উঠোনটা ও দেখুক
.                 শ্মশানঘাটের কলসিটাও দেখুক |

কেমন করে কবর খুঁড়ে নামানো হয় নিচে
মৃতদেহ
.                 কেমন করে আগুনকে দেয় সবাই
.                         সমস্ত সন্দেহ
জলের শিথিল অঙ্গ কেমন ---চিনুক
অনেক দামেই খোলামকুচি কিনুক
ওকেও দাও জিততে এবং হারতে
.                 গাছগাছালি নাড়ুক ওকে
.                      ওকেও দাও নাড়তে---
নিজের মতো করেই সবটা চিনুক
জন্মদিনের উঠোনটাও দেখাও
.                       শ্মশানঘাটের কলসিটাও দেখুক----

.                 **************************  
.                                                                                
সূচিতে . . .    


মিলনসাগর