কবি সুধীন্দ্রনাথ দত্ত - আধুনিক বাংলা কবিতার অন্যতম শ্রেষ্ঠ ব্যক্তিত্ব। তিনি রবীন্দ্র যুগের রবীন্দ্র
প্রভাবমুক্ত অন্যতম বিশিষ্ট কবি, সমালোচক ও সাংবাদিক। পিতা হীরেন্দ্রনাথ দত্ত, মাতা ইন্দুমতী, মাতুল
রাজা সুবোধ চন্দ্র বসুমল্লিক।

প্রথমে, অ্যানি বেসান্ত প্রতিষ্ঠিত, বারানসীর থিওসফিকাল হাই স্কুলে পড়ে পরে কলকাতার ওরিয়েন্টাল
সেমিনারি স্কুল থেকে ১৯১৮ সালে ম্যাট্রিক পাশ করে, কলকাতার স্কটিশ চার্চ কলেজ থেকে ১৯২২ সালে
স্নাতক হন। ইংরেজীতে এম.এ. এবং আইন ক্লাসে ভর্তি হলেও তা তিনি মাঝপথে ছেড়ে দেন।

তাঁর দ্বিতীয়া স্ত্রী রাজেশ্বরী দেবী প্রখ্যাত রবীন্দ্র সংগীত গায়িকা ছিলেন।

কবি, ১৯২৯ সালের প্রথম বিদেশ যাত্রায় আমেরিকা ও জাপান ভ্রমণ করেন
রবীন্দ্র নাথ ঠাকুরের সঙ্গে।
যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ে তুলনামূলক সাহিত্যের বিভাগ শুরু হবার পর অধ্যাপক
বুদ্ধদেব বসুর আমন্ত্রণে
তিনি সেখানে অধ্যাপক হিসেবে যোগ দেন। তিনি "পরিচয়" পত্রিকার সম্পাদনাও করেছেন। ফরওয়ার্ড ও
সবুজপত্র পত্রিকার সঙ্গেও তাঁর ঘনিষ্ঠ যোগাযোগ ছিল।

দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সময়ে ১৯৪২ - ১৯৪৫ সাল সময়কালে কবি এ.আর.পি. তে
( Air Raid Precaution ) যোগদান
করেছিলেন। ১৯৪৫ সালে তিনি কলকাতার স্টেটসম্যান পত্রিকার সঙ্গে যুক্ত ছিলেন।

শিশিরকুমার দাশ তাঁর বাংলা সাহিত্য সঙ্গী গ্রন্থে লিখেছেন --- তাঁর কাব্যে আধ্যাত্মিক মুক্তির কথা নেই,
আছে সর্বব্যাপি নাস্তিকতা। বিংশ শতকের মানুষের নানা সংশয় ও বিশ্বাসহীনতা তাঁর কবিতার
আর একটি প্রধাণ সুর। দার্শনিক চিন্তা, সামাজিক হতাশা এবং তীক্ষ্ণ বুদ্ধিবাদ তাঁর কবিতার ভিত্তিভূমি।
তাঁর কবিতা আবেগের জটিলতার নিরিখে কঠিন কবিতা-র অন্তর্ভুক্ত।

তাঁর কাব্যগ্রন্থের মধ্যে রয়েছে "তন্বী" (১৯৩০), "অর্কেষ্ট্রা" (১৯৩৫), "ক্রন্দসী" (১৯৩৭), "উত্তর ফাল্গুনী" (১৯৪০),
"সংবর্ত" (১৯৫৩), "দশমী" (১৯৫৬) | তাঁর দুটি প্রবন্ধ গ্রন্থ হল "স্বগত" (১৯৩৮) এবং "কুলায় ও কালপুরুষ"
(১৯৫৭) |

আমরা
মিলনসাগরে  কবি সুধীন্দ্রনাথ দত্তর কবিতা তুলে আগামী প্রজন্মের কাছে পৌঁছে দিতে পারলে এই
প্রচেষ্টার সার্থকতা।


উত্স: ডঃ শিশির কুমার দাশ, সংসদ বাংলা সাহিত্য সঙ্গী ২০০৩।
.          সুবোধচন্দ্র সেনগুপ্ত ও অঞ্জলি বসু সম্পাদিত সংসদ বাঙালি চরিতাভিধান, প্রথম খণ্ড, ১৯৭৬।


      
কবি সুধীন্দ্রনাথ দত্তর মূল পাতায় যেতে এখানে ক্লিক করুন



আমাদের ই-মেল -
srimilansengupta@yahoo.co.in     


এই পাতা প্রথম প্রকাশ - ২০০৬
এউ পাতার পরিবর্ধিত সংস্করণ - ৪.৩.২০১৬

দুটি কবিতার সংযোজন - ৩.৯.২০১৬


...