কবি বেনোয়ারীলাল গোস্বামীর কবিতা
*
ভারতী-গাথা
কবি বেনোয়ারীলাল গোস্বামী
কালীপ্রসন্ন দাশগুপ্ত সম্পাদিত মাসিক মালঞ্চ পত্রিকার ফাল্গুন ১৩২৫ ( মার্চ ১৯১৯ ) সংখ্যা
থেকে নেওয়া |


নন্দন বনে আনন্দ বিলায়ে
.                        রাণী বুঝি ওই আসে গো,
পরশ পাইয়া শীত নিরদয়
.                        পালাইয়াছে দূরে ত্রাসে গো,
কনক কান্তি জিনিয়া শোণ
,                        পরমানন্দে হাসে গো,
হরিৎ ঊর্ম্মি-ছুটিছে তূর্ণ
.                        সবুজে বিশ্ব ভাসে গো ;
চূত-লতিকা মুকুল-স্মিতা
.                        কাঁপিছে ধীর সমীরে,
গর্ব্বী বাবরী হাসে লহু লহু
.                        বুকে ধরি মধু মদিরে ;
অলিনী সহ গুঞ্জরি অলি
.                        ঢলি ঢলি পড়ে কমলে
কুঞ্জ কাননে মুগ্ধ কোকিল
.                        কুহুরি কাঁপায়ে অচলে ;
দীর্ণ করিয়া সুষমা বক্ষ
.                        মূর্ত্তি ধরিয়া এল কে?
হস্তে শোভিছে অমর বীণ
.                        শুভ্র কান্তি ভূলোকে :

.            
      *************************             

.                                                                             
সূচীতে . . .      



মিলনসাগর