কবি মৃদুল শ্রীমানীর - শৈশব কাটে পশ্চিমবঙ্গের বরানগরে। পিতা শ্রী মধুসূদন শ্রীমানী এবং মাতা
শ্রীমতী সেবা শ্রীমানী।

কবি বরানগর রামকৃষ্ণ মিশন থেকে স্কুলের পড়া শেষ করে কলকাতার গোয়েঙ্কা কলেজ থেকে কমার্স এ
স্নাতক হন। ১৯৮৯ সালে পাবলিক সার্ভিস কমিশনের চাকরিতে যোগ দেন। কাজের সাথে পড়া চালিয়ে যান
এবং কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বাংলায় এম এ পাশ করেন। ১৯৯৩ সালে
WBCS পরীক্ষায় পাশ করে
পশ্চিমবঙ্গ সরকারের "ভূমি ও ভূমি সংস্কার বিভাগে" রেভিনিউ অফিসার হিসেবে যোগ দেন।

সরকারী চাকরির মধ্যে থেকেও তাঁর নানা বিষয়ে আগ্রহে কোনো ভাটা পড়ে নি। তিনি একজন রবীন্দ্র
বিশেষজ্ঞ হিসেবে বর্তমানে কলকাতার "টেগোর রিসার্চ ইন্স্টিটিউট" এর অনারারী অধ্যাপক। এখানে তাঁর
অধ্যাপনার বিষয় রবীন্দ্রনাথের "সে"। এ যাবৎ তাঁর দুটি বই প্রকাশিত হয়েছে  "সে - একটি পল্লবিত জীবন"
এবং "রক্তকরবী - নন্দিনীর খোঁজে" , প্রকাশক পত্রলেখা।

স্কুল থেকেই কবিতা লেখার শুরু। তাঁর প্রথম কবিতা প্রকাশিত হয় "সাহিত্য-সংহিতা" পত্রিকায়। কবি
সম্মেলন, রুদ্রাক্ষ, ক্ষুদ, দলছুট, চান্দ্রমাস প্রভৃতি পত্রিকায় তাঁর কবিতা নিয়মিত প্রকাশিত হয়ে আসছে। তিনি
মূলত প্রতিবাদী কবি কিন্তু রবীন্দ্রবোধ সম্পন্ন, অত্যন্ত মার্জিত। তাঁর নানা সময়ে লেখা প্রবন্ধে পরিবেশ এক
বিশেষ যায়গা করে নিয়েছে। একজন পরিবেশবিদ হিসেবেও তিনি আত্মপ্রকাশ করছেন।

সিঙ্গুর নন্দীগ্রাম এ পশ্চিমবঙ্গ সরকারের ভূমিকা তাঁকে অত্যন্ত বেদনা দিয়েছে। তাঁর প্রতিবাদী কবিতায়
তাঁরই প্রতিফলন। আমরা মিলনসাগরে তাঁর কবিতা প্রকাশিত করে আনন্দিত।



উত্স:  বিভিন্ন প্রতিবাদী মিছিলে আলাপ পরিচয়।



কবি মৃদুল শ্রীমানীর মূল পাতায় যেতে এখানে ক্লিক করুন।    


কবির সঙ্গে যোগাযোগ
চলভাষ  +৯১৯৮৩১৯৪৯৫৮১      
ফেসবুক -
https://www.facebook.com/mridul.srimany       



আমাদের যোগাযোগের ঠিকানা :-   
মিলনসাগর       
srimilansengupta@yahoo.co.in      


এই পাতার প্রথম প্রকাশ - ২০০৭
পরিমার্জিত সংস্করণ - ২৫.১১.২০১৬

.