ও নদীরে
গীতিকার - গৌরিপ্রসন্ন মজুমদার
সুরকার ও শিল্পী - হেমন্ত মুখোপাধ্যায়
ছায়াছবি - নীল আকাশের নিচে

ও নদীরে, একটি কথা শুধাই শুধু তোমারে |
বলো কোথায় তোমার দেশ
তোমার নেই কি চলার শেষ! ও নদীরে...
তোমার কোনো বাঁধন নাই তুমি ঘর ছাড়া কি তাই,
এই আছো ভাটায় আবার এই তো দেখি জোয়ারে ||
এ কূল ভেঙে ও কূল তুমি গড়ো
যার একূল ওকূল দুকূল গেল তার লাগি কি করো?
আমায় ভাবছো মিছেই পর, তোমার নেই কি অবসর,
সুখ দুঃখের কথা কিছু কইলে না হয় আমারে ||
.          *************************                                                         
সূচিতে . . .    


মিলনসাগর
কবি গৌরিপ্রসন্ন মজুমদারের গান
*
*
*
*
*
*
পথের ক্লান্তি ভুলে
(ছায়াছবিঃ মরুতীর্থ হিংলাজ, সুর ও শিল্পীঃ হেমন্ত মুখোপাধ্যায়)

পথের ক্লান্তি ভুলে স্নেহ ভরা কোলে তব
মাগো, বলো কবে শিতল হবো |
কত দূর আর কত দূর বল মা?
আঁধারের ভ্রুকুটিতে ভয় নাই,
মাগো তোমার চরণে জানি পাবো ঠাঁই,
যদি এ পথ চলিতে কাঁটা বেঁধে পায়
হাসিমুখে সে বেদনা সবো ||
চিরদিনই মাগো তব করুণায়
ঘর ছাড়া প্রেম দিশা খুঁজে পায়
ঐ আকাশে যদি কভু ওঠে ঝড়
সে আঘাত বুক পেতে লবো ||
যতই দুঃখ তুমি দেবে দাও
জানি কোলে শেষে তুমি টেনে নাও,
মাগো তুমি ছাড়া এ আঁধারে গতি নাই
তোমায় কেমনে ভুলে রবো ||

তোমার ভূবনে মাগো এত পাপ,
একি অভিশাপ, নাই প্রতিকার?
মিথ্যারই জয় আজ, সত্যের নাই তাই অধিকার ||
কোথায় অযোধ্যা কোথা সেই রাম
কোথায় হারালো গুণধাম,
একি হলো একি হলো,
পশু আজ মানুষেরই নাম |
সাবিত্রী সীতার দেশে দাও দেখা তুমি এসে
শেষ করে দাও এই অনাচার ||
তোমার কঠিন হাতে বজ্র কি নাই
হিংসার করো অবসান,
তোমার এ পৃথিবীতে যারা অসহায়
তুমি মা তাদের করো ত্রাণ |
চরণতীর্থে তব এবার শরণ লবো
দুর্গম এই পথ হব পার ||

.          *****************                                                                    
সূচিতে . . .    


মিলনসাগর
এই পথ যদি না শেষ হয়
(ছায়াছবিঃ সপ্তপদী, শিল্পীঃ হেমন্ত মুখোপাধ্যায় ও সন্ধ্যা মুখোপাধ্যায়)

এ পথ যদি না শেষ হয়
তবে কেমন হোতো তুমি বলোতো
যদি পৃথিবীটা স্বপ্নের দেশ হয়
তবে কেমন হোতো তুমি বলোতো ||
কোন রাখালের এই ঘর ছাড়া বাঁশীতে,
সবুজের ওই দোল দোল হাসিতে
মন আমার মিশে গেলে বেশ হয়
যদি পৃথিবীটা স্বপ্নের দেশ হয় ||
নীল আকাশের ওই দূর সীমা ছাড়িয়ে,
এই গান যেন যায় হারিয়ে
প্রাণে যদি এ গানের রেশ হয়,
পৃথিবীটা যদি এ স্বপ্নের দেশ হয় ||

.          *************************                                                        
সূচিতে . . .    


মিলনসাগর
এই রাত তোমার আমার
(ছায়াছবিঃ দীপ জ্বেলে যাই, সুর ও শিল্পীঃ হেমন্ত মুখোপাধ্যায়)

এই রাত তোমার আমার
ওই চাঁদ তোমার আমার, শুধু দুজনের |
এই রাত শুধু যে গানের
এই ক্ষণও এ দুটি প্রাণের কুহু কুজনের ||
তুমি আছো আমি আছি তাই,
অনুভবে তোমারে যে পাই, শুধু দুজনের |
এই রাত তোমার আমার ||

.          *************************                                                          সূচিতে . . .    


মিলনসাগর
তোমাদের আসরে আজ
(ছায়াছবিঃ প্রক্সি, সুরঃ হেমন্ত মুখোপাধ্যায়, শিল্পীঃ লতা মঙ্গেশকর)

তোমাদের আসরে আজ এই তো প্রথম গাইতে আসা
বিনিময় চাই তোমাদের প্রশংসা আর ভালবাসা
একদিন তানপুরাটার যে তার গুলো নীরব ছিল
কে যেন আজ তার গুলো কে নতুন সুরে জাগিয়ে দিল
প্রাণে যে সুর লাগিয়ে দিল, মনে যে সুর লাগিয়ে দিল
গানই আমার জীবন ওগো, গানই আমার ভালবাসা
তোমাদের আসরে আজ এই তো প্রথম গাইতে আসা
তোমাদের এ গান শুনে একটু যদি ভাললাগে
তবে হব ধন্য আমি তোমাদের প্রশংসারই চেয়ে
ওগো কিছুই তো আর নয়কো দামী
এ হৃদয় ভালবাসার গানেরই এক স্বরলিপি---
জীবনেরই বাঁশীতে যে - এ গান আমি বাজিয়ে যাবো
সুরে যে মন সাজিয়ে যাবো
এগান আমার ফুলের কাছে, ভ্রমরেরই ভাষা
তোমাদের আসরে আজ এই তো প্রথম গাইতে আসা
বিনিময় চাই তোমাদের প্রশংসা আর ভালবাসা
তোমাদের আসরে আজ এই তো প্রথম গাইতে আসা

.          *************************                                                      
সূচিতে . . .    


মিলনসাগর
রিনিক ঝিনিক ছন্দে
(ছায়াছবিঃ অসমাপ্ত, সুরঃ নচিকেতা ঘোষ, শিল্পীঃ লতা মঙ্গেশকর)

রিনিক ঝিনিক ছন্দে যমুনায় কে যায়
কনক কনক কাঁখে কলস অলস পায় পায় |
রিনি ঝিনি রিনি ঝিনি বাজে কিঙ্কিনী চিনি চিনি
অপরূপ মরি কিবা শ্রীমতীর রূপবিতা
ময়ূরী দোলায় গ্রীবা তারি পানে চায় |
তার নয়নকমল কলি, তারি পায়ে দুটি অলি
অকারণে শুধু চলি, কি যে সুখ পায় |
তার শিথিল করবী হতে গরবী করবী ঝরে
বাঁশরীর তালে তালে নাগরী গাগরী ভরে
নীল শাড়ী নিঙাড়িয়া চলিছে মাধবপ্রিয়া
দুরু দুরু করে হিয়া, হায় একি দায় |
আর জাগে হাসি আঁখি কোণে, অভিসার সুখ মনে
কান পেতে শুধু শোনে, পিককুল গায় |

.          *************************                                                         
সূচিতে . . .    


মিলনসাগর
*
কথা- গৌরীপ্রসন্ন মজুমদার
সুর - দীপালি ঘোষ
শিল্পী - অখিল বন্ধু ঘোষ

শ্রাবণরাতি বাদল নামে, কোথা তুমি এসো ফিরে---
কেতকী ঝরে পথের ‘পরে বাঁধন ছিঁড়ে ||
বেতস বনে বাতাস কাঁদে সে শুধু সুরে বেদন সাধে,
অকূল আঁধার জাগিয়ে মম পরাণ ঘিরে  ||
হে মেঘ, জানো কি তুমি প্রিয়া কোথায় আছে,
বিরহ ব্যথা কহিব বলো কাহার কাছে |
বোঝেনা সে কি কেন যে কাঁদি,
মালায় বলো কাহারে বাঁধি---
স্মরণে জ্বালা প্রদীপখানি নিভিল ধীরে ||

.          *************************                                                         
সূচিতে . . .    


মিলনসাগর
*
কথা- গৌরীপ্রসন্ন মজুমদার
সুর - শ্যামল মিত্র
শিল্পী- আরতি মুখোপাধ্যায়
ছবি - দেয়া নেয়া

মাধবী মধুপে হল মিতালী
এই বুঝি জীবনে মধু গীতালি---
জ্বলে দেখি জোনাকি, মন হল আনমনা কি ?
তাই কী বাতাস ফুলের গন্ধে ভরানো ?
তাই কী নয়ন মধুর স্বপ্নে জড়ানো  ?
যদি চুপি চুপি কথা বলে মন ----
সেই কথা বলো কভু যায় শোনা কি ?
এই যে এত আলো হাসি কখনো আগে জাগেনি,
নিজেরে তো আর কোনো দিন এমন করে ভালো লাগেনি |
ওগো পরাণের কবি মোর আজ হাতে বাঁশি তুলে নাও,
উত্সব এ লগন সুরে সুরে দাও ভরে দাও---
আজ চোখে চোখে চেয়ে সারারাত
হবে শুধু আকাশের তারা গোনা কি ?


.          *************************                                                          
সূচিতে . . .    


মিলনসাগর
*
কথা- গৌরীপ্রসন্ন মজুমদার
সুর - শ্যামল মিত্র
শিল্পী- আলপনা বন্দ্যোপাধ্যায়

আকাশ আর এই মাটি ওই দূরে যেথায় মেশে,
চলো সেথা যাই ওগো কোনো বাধা নাই
সেথা কেটে যাবে দিন শুধু হেসে ||
সেথা পাখি ভ্রমরের গীতালি শুধু প্রাণে প্রাণে রচে মিতালি
সেথা নীল নীল তারা ঝিলমিল
মন যায় গো সেথায় ভেসে ||
কুহু আর কূজনে সেথা ওগো দুজনে আলাপন হবে,
আঁখির পলকে স্বপন ঝলকে জানি গো তুমি কাছে রবে |
সেথা ঘুম ঘুম রাত নিঃঝুম
মন ভরে গো কি আবেশে ||

.          *************************                                                        
সূচিতে . . .    


মিলনসাগর