কথা- গৌরীপ্রসন্ন মজুমদার
সুর - হেমন্ত মুখোপাধ্যায়
শিল্পী- রাণু মুখোপাধ্যায়
ছবি - বাদশা

লাল ঝুঁটি কাকাতুয়া ধরেছে যে বায়না
চাই তার লাল ফিতে চিরুনি আর আয়না ||
জেদ বড়ো লালপেড়ে টিয়ারঙ শাড়ি চাই,
মনভরা রাগ নিয়ে হলো মুখ ভারী তাই---
বাটাভরা পান দেবো, মান কেন যায় না ||
ছোট থেকে কোনোদিন বড়ো যদি হতে চাও,
ভালো করে মন দিয়ে পড়াশুনা করে যাও---
দুষ্টুমি করে যে, কেউ তারে চায় না ||

.          *************************                                                         
সূচিতে . . .    


মিলনসাগর
কবি গৌরিপ্রসন্ন মজুমদারের গান
*
কথা- গৌরীপ্রসন্ন মজুমদার
সুর - হেমন্ত মুখোপাধ্যায়
শিল্পী- রানু মুখোপাধ্যায়
ছবি - বাদশা

শোন্ শোন্ শোন্ মজার কথা ভাই----
আমায় বাঁদর শুধায়, কুত্তা শুধায়, ছাগল শুধায় হায়,
সকলেরই মা আছে রে, আমার কেন নাই ||
সব ছেলেকেই দেখি আমি ‘মানিক সোনা’ বলে
আদর করে মা যে এসে নেয় রে টেনে কোলে----
কি হবে আর দুঃখ করে, আয় আয় আয়, সেই ব্যথা ভুলে যাই ||
মা না থাকুক, তোরা আছিস, তোরাই আমার সাথী,
তোদের নিয়েই সুখে দুখে কাটে দিবস রাতি----
আমি তোদের সাথে জীবনটা যে কাটিয়ে দিতে চাই  ||

.          *************************                                                         
সূচিতে . . .    


মিলনসাগর
*
কথা- গৌরীপ্রসন্ন মজুমদার
সুর - নচিকেতা ঘোষ
শিল্পী- মান্না দে

না না আজ রাতে আর যাত্রা শুনতে যাবো না |
শুনেছি চৌধুরী বাড়িতে নাকি বসেছে আসর ,
এসেছে কলকাতারই নাম করা সেই নট্ট কোম্পানি-----
যে পালাটি করছে ও তার নাম যে ‘তাসের ঘর’ ||  ( বুঝলে নটবর ? )
মুখে রঙ মেখে আর মুখোশ পরে, পরি যে পরচুলো,
আমরা যা নয় তাই সেজে সবার চোখে যে দিই ধুলো----
ছক-বাঁধা এই জীবন পালায় নেই যে অবসর  ||
এই যাত্রাই দেখছি রোজই খোঁজ রাখে কে তারই-----
( আমার ) জীবনটা যে সেই যাত্রা দলের অধিকারী  |
আমার মনটা যদি সিরাজ সাজে,  ভাগ্য মিরজাফর  ||

.          *************************                                                         
সূচিতে . . .    


মিলনসাগর
*
কথা- গৌরীপ্রসন্ন মজুমদার
কথা ও সুর - শচীন দেববর্মণ

কথা দিয়ে এলে না,
ডেকে সাড়া মেলে না----
তুমি কোথায়, তুমি কোথায়  |
ঝরি ঝরি করি মিলনের মালা
তবুও এখনো ঝরেনি,
পথ চেয়ে চেয়ে নিরাশায় তবু
আঁখি দু’টি জলে ভরেনি  |
আসিবে কি তুমি এই পথে আর
শুধায় হৃদয় শুধু বারে বার----
তবে কি গো তুমি ঠিকানা আমার----
বলো পেলে না, এলে না এলো না
বারে বারে তবু মনে হয় শুধু
এখনি বুঝি বা আসিবে,
হয়তো আবার আগের মতই
মুখপানে চেয়ে হাসিবে |
মেঘের আড়ালে ডুবে গেল চাঁদ,
শেষের প্রহরে এলো অবসাদ-----
যদি সেই শেষ দেখা---- কেন গো আমায়
বলে গেলে না, এলে না এলে না  ||

.          *************************                                                         
সূচিতে . . .    


মিলনসাগর
*
কথা- গৌরীপ্রসন্ন মজুমদার
সুর ও শিল্পী - শচীন দেববর্মণ


খুলিয়া কুসুম সাজ শ্রীমতী যে কাঁদে
অলখে রহিয়া কানু, ফুল বেণু সাধে----
আহা বিনোদিনী কাঁদে ||
সুরভি ঝরানো মালা দিল প্রাণে এ কি জ্বালা,
যার লাগি হারালো কূল তারে কি দিয়ে গো বাঁধে---
বিরহিনী কাঁদে, শ্রীরাধিকা কাঁদে ||
অঙ্গের লাবণি হল নয়নের জল,
প্রেমের যমুনা কূল হয়েছে কি ছল  ?
সে যে শুধু ফুলবাণে পরান বিঁধিতে জানে
বিষভরা ফুলবাণে এ কি জ্বালা দিল প্রাণে  |
কলঙ্কিনী হল যে নাম কি বা অপরাধে ------
হায় বিনোদিনী কাঁদে, বিরহিনী কাঁদে -----
মরমী যে কাঁদে, শ্রীমতী যে কাঁদে |

.          *************************                                                         
সূচিতে . . .    


মিলনসাগর
*
কথা- গৌরীপ্রসন্ন মজুমদার
সুর ও শিল্পী - শচীন দেববর্মণ

ঘুম ভুলেছি নিঝুম এ নিশীথে জেগে থাকি,
আর আমারই মতো জাগে নীড়ে দু’টি পাখি ||
কথা দিয়েছিলে আসিবে গো ফিরে,
চাঁদ জাগে দূরে আকাশের তীরে----
তাই তোমারেই আমি বারে বারে পিছু ডাকি ||
একে একে ওই ডুবে গেল তারা,
তবু তুমি ওগো দিলে না তো সাড়া----
হায়, আলেয়া যেন আলো হয়ে দিল ফাঁকি ||

.          *************************                                                         
সূচিতে . . .    


মিলনসাগর
*
কথা- গৌরীপ্রসন্ন মজুমদার
সুর ও শিল্পী - শচীন দেববর্মণ

দূর কোন্ পরবাসে তুমি চলে যাইবারে
বন্ধুরে, কবে আইবারে ||
এ পোড়া কপাল সোনার কাঁকন হানি
ফাগুন আমার হইবে বিফল জানি
দূর কোন্ পরবাসে তুমি চলে যাইবারে ||
পদ্মপাতায় রাতের শিশির সম
যাইবে শুকায়ে হায় রে পিরিতি মম  |
তুমি ফিরে এলে আমার আমার করবী খুলি’
দিব যে মুছায়ে তোমারই পায়ের ধূলি |
দূর কোন্ পরবাসে তুমি চলে যাইবারে ||

.          *************************                                                         
সূচিতে . . .    


মিলনসাগর
*
কথা- গৌরীপ্রসন্ন মজুমদার
সুর ও শিল্পী- সতীনাথ মুখোপাধ্যায়

ওই ঝিরি ঝিরি পিয়ালের কুঞ্জে
ওই গুন্ গুণ মৌমাছি গুঞ্জে,
সেই সে বনছায় পাখি যে গান গায়
মন যে চায় সেথা হাসিতে ||
আকাশের ওই দূরে নীল রং লেগেছে
অন্তরে আজি মোর এ কী সুর জেগেছে |
জানিনা কে ডাকে অলখে সে থাকে
শুধু সে সাড়া দেয় বাঁশিতে ||
তারই পথ চেয়ে দিন যেন চলে য়ায়, এ কি ব্যথা পেয়ে হায়.
মালা হতে ফুলগুলি ঝরে যেতে চায় |
মিছে কি আমি তবে দিন শুধু  গুনেছি-----
পলকে কে জানে এ ব্যাথা সে আনে
চায় না সে কাছে আসিতে ||

.          *************************                                                         
সূচিতে . . .    


মিলনসাগর
*
কথা- গৌরীপ্রসন্ন মজুমদার
সুর ও শিল্পী - শ্যামল মিত্র

যদি ডাকো এপার হতে এই আমি আর ফিরবে না,
আমার খেয়া তোমার কূলে আর কখনো ভিরবে না ||
নিরুদ্দেশে যাত্রা করে কবে বলো কেই বা ফেরে,
মিলনমালা ছেঁড়েই যদি মায়ার বাঁধন ছিঁড়বে না ||
কাছে আছি তাই তো আমার নেই তো কতোনো দাম,---
তোমার ব্যথায় মুখর হবে তোমার দেওয়া নাম  |
যায় যদি যাক্ প্রহর বয়ে মর্মে স্মৃতির অশ্রু লয়ে
তবু এ প্রেম আঁধার হয়ে প্রদীপ তোমার ঘিরবে না ||

.          *************************                                                         
সূচিতে . . .    


মিলনসাগর
*
কথা- গৌরীপ্রসন্ন মজুমদার
সুর ও শিল্পী- শ্যামল মিত্র

সারাবেলা আজি কে ডাকে
বাঁশরীর সুরে মন রাখে ?
চমকি থমকি করবী গরবী
আমার পথে কেন ঝরে থাকে ?
বারে বারে পিছু ফিরে চাই,
চেয়ে দেখি কেউ কোথা নাই ---
কেন সে অকারণে ডাকে গো আমায়
জানিনা সে কি বলিতে চায় |
তারই সুরে আজ যেন গাহিছে পাখি
ফুলে ফুলে দুলে দুলে কারে যে অলি ফিরিছে ডাকি |
মন নিয়ে এ কি খেলা তার
ছলনাতে কত ভুলি আর |
পথে যেতে যেতে আমারে সে কেন গো কাঁদায়
তারই খোঁজে দিন চলে যায়  ||

.          *************************                                                         
সূচিতে . . .    


মিলনসাগর
*