কবি হিরণ্ময়ী দেবী   - জানকীনাথ ঘোষাল ও স্বর্ণকুমারী দেবীর কন্যা। প্রেসিডেন্সী  কলেজের
বোট্যানির অধ্যাপক ফণিভূষণ মুখোপাধ্যায়ের সঙ্গে তিনি বিবাহসূত্রে আবদ্ধ হন।
রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর তাঁর
মামা ছিলেন।

কবি কলকাতার বেথুন কলেজের ছাত্রি ছিলেন। তিনি থিওসফিক্যাল সোসাইটি ও তাঁর মাতা স্বর্ণকুমারী দেবী
দ্বারা স্থাপিত সখী সমিতির সদস্যাও ছিলেন। হিরন্ময়ী দেবীর আদর্শে অনুপ্রাণিত হয়ে শশিপদ  
বন্দ্যোপাধ্যায় বরানগরে একটি বিধবা আশ্রম চালু করেন। এই আশ্রমের নাম ছিল "মহিলা বিধবা আশ্রম"।
এই আশ্রমের পরিচালিকা ছিলেন হিরন্ময়ী দেবীর কন্যা কল্যাণী মল্লিক। তাঁরই লেখা থেকে জানা যায় যে
১৯৪৯ সালেও এই আশ্রম সফলভাবে চালু ছিল। হিরন্ময়ী দেবীর মৃত্যুর পরে এই আশ্রমের নামকরণ
করা হয় “হিরন্ময়ী বিধবা আশ্রম”।

স্বর্ণকুমারী দেবীর অসুস্থতার কারণে কবি তাঁর ছোটো বোন  
সরলা দেবীচৌধুরাণীর  সাথে মিলে "ভারতী"
পত্রিকার সম্পাদনা করেন ১৮৯৫ সাল থেকে ১৮৯৭ সাল পর্যন্ত। আমরা "ভারতী" এবং "ভারতী ও বালক"
পত্রিকার বিভিন্ন সংখ্যা থেকে তাঁর কবিতা এখানে তুলে দিয়েছি।  ছোটদের  পত্রিকা "সখা"-তেও তাঁর
কবিতা প্রকাশিত হতো।  

আমরা  
মিলনসাগরে  তাঁর কবিতা  তুলে আগামী প্রজন্মের কাছে পৌঁছে দিতে পারলেই এই প্রয়াসের
সার্থকতা।

উত্স :  ডঃ শিশির কুমার দাশ, সংসদ সাহিত্য সঙ্গী ২০০৩।    
.          
বেথুন কলেজ সম্মিলনী ওয়েবসাইট।            
.          
বাংলা উইকিপেডিয়া       



কবি হিরন্ময়ী দেবীর মূল পাতায় যেতে এখানে ক্লিক্ করুন

আমাদের যোগাযোগের ঠিকানা :-   
srimilansengupta@yahoo.co.in      



এই পাতার প্রথম প্রকাশ - ৮.২০১৩     
পরিবর্ধিত সংস্করণ - ১৪.৯.২০১৫

.
হিরন্ময়ী দেবী নামের দুজন কবি পাই।
এই পাতা প্রথমা হিরন্ময়ী দেবীর কবিতার পাতা
দ্বিতীয়া হিরন্ময়ী দেবীর পাতায় যেতে এখানে ক্লিক্ করুন
প্রথমা হিরন্ময়ী দেবী, স্বর্ণকুমারী দেবীর কন্যা, জন্মগ্রহণ করেন ১৮৭০ সালে।
দ্বিতীয়া হিরন্ময়ী দেবীর জন্ম ও মৃত্যুদিন আমাদের জানা নেই। তিনি ছিলেন ঢাকার
সেরপুরের প্রসিদ্ধ জমিদার রায় বাহাদুর হেমাঙ্গচন্দ্র চৌধুরীর পত্নী। দুজনের কাব্য
প্রকাশের সময় কাল বিচার করলে মনে হয় যে তাঁরা সমসাময়িকই ছিলেন।