কবি মোহিনী চৌধুরীর কবিতা ও গান
যে কোন গানের উপর ক্লিক করলেই সেই গানটি আপনার সামনে চলে আসবে।
*
মুক্তির মন্দির সোপানতলে
কথা - মোহিনী চৌধুরী, সুর - কৃষ্ণচন্দ্র দে

মুক্তির মন্দির সোপানতলে
কত প্রাণ হলো বলিদান
লেখা আছে অশ্রুজলে |

কত বিপ্লবী বন্ধুর রক্তে রাঙা
বন্দীশালায় ঐ শিকল ভাঙা
তারা কি ফিরিবে আর
তারা কি ফিরিবে এই সুপ্রভাতে
যত তরুণ অরুণ গেছে অস্তাচলে |

যারা স্বর্গগত তারা এখনো জানে
স্বর্গের চেয়ে প্রিয় জন্মভূমি
এসো স্বদেশব্রতের সহদীক্ষালোভী
সেই মৃত্যুঞ্জয়ীদের চরণভূমি |

যারা জীর্ণজাতির বুকে জাগালো আশা
মৌন মলিন মুখে জাগালো ভাষা
সাজি রক্তকমলে গাঁথা মাল্যখানি
বিজয়লক্ষ্মী দেবে তাঁদেরি গলে ||

.         ******************                 
.                                                                                         
সূচিতে . . .   




মিলনসাগর
*
আমি দুরন্ত বৈশাখী ঝড়
কথা : মোহিনী চৌধুরী সুর : কমল দাশগুপ্ত
কণ্ঠ - জগন্ময় মিত্র

আমি দুরন্ত বৈশাখী ঝড়, তুমি যে বহ্নিশিখা।
মরণের ভালে এঁকে যাই মোরা দীবনের জয়টিকা।
আমি দুরন্ত বৈশাখী ঝড়, তুমি যে বহ্নিশিখা।

মোদের প্রেমের দীপ্ত দীপক রাগে,
দিকে দিকে ঐ সুপ্ত জনতা জাগে।
মুক্তি আলোকে ঝলমল করে আঁধারের যবনিকা
আমি দুরন্ত বৈশাখী ঝড়, তুমি যে বহ্নিশিখা।

দু’শো বছরের নিঠুর শাসনে গড়া যে পাষাণ বেদী,
নতুন প্রাণের অঙ্কুর জাগে তারই অন্তর ভেদি।
তোমার পূণ্য মিলনব্রতে
আশার কমল ফোটে অশ্রুর স্রোতে,
নব ইতিহাস রচিব আমরা মুছিব কলঙ্ক লেখা।
আমি দুরন্ত বৈশাখী ঝড়, তুমি যে বহ্নিশিখা।

.            ******************                 
.                                                                                         
সুচিতে . . .   




মিলনসাগর
*
পৃথিবী আমারে চায়
কথা - মোহিনী চৌধুরী, সুর - কমল দাশগুপ্ত,

পৃথিবী আমারে চায়, রেখো না বেঁধে আমায়,
খুলে দাও প্রিয়া, খুলে দাও বাহুডোর।
প্রণয় তোমার মিছে নয় মিছে নয়,
ভালবাসি তাই মনে জাগে এত ভয়।
চাঁদ ডুবে যাবে, ফুল ঝরে যাবে, মধুরাতি হবে ভোর।
খুলে দাও প্রিয়া, খুলে দাও বাহুডোর।
সবার মনের দীপালী জ্বালাতে যে দীপ আপনি জ্বলে,
কেন আর তারে ঢেকে রাখ বলো তোমার আঁচল তলে।
শান না কি ওই আজ দিকে দিকে হায়,
কত বঁধু কাঁদে, কাঁদে কত অসহায়,
পথ ছেড়ে দাও নয় সাথে চলো, মুছে নাও আঁখিরোল,
খুলে দাও প্রিয়া, খুলে দাও বাহুডোর।

.            ******************                 
.                                                                                         
সূচিতে , , ,   




মিলনসাগর
*
ভালবাসা মোরে ভিখারী করেছে
কথা - মোহিনী চৌধুরী, সুর - কমল দাশগুপ্ত, কণ্ঠ - জগন্ময় মিত্র

ভালবাসা মোরে ভিখারী করেছে তোমারে করেছে রাণী
তোমারই দুয়ারে কুড়াতে এসেছি ফেলে দেওয়া মালাখানি
নয়নের জলে যে কথা জানাই, সে ব্যথা আমার কেহ বোঝে নাই
মেঘের মরমে যে মিনতি কাঁদে চাঁদ বুঝিবে না জানি
ভালবাসা মোরে ভিখারী করেছে তোমারে করেছে রাণী

মাধবীলতা গো আজ তুমি আছ ফুলের স্বপন সুখে
একদিন যবে ফুল ঝরে যাবে লুটাবে ধূলির বুকে
খেয়ালী প্রেমের খেলা বোঝা দায়, কখনো হাসায় কখনো কাঁদায়
মুক হয়ে যায় কারও মুখরতা, কারও মুখে জাগে বাণী
ভালবাসা মোরে ভিখারী করেছে তোমারে করেছে রাণী

.                  ******************                 
.                                                                                         
সূচিতে . . .   




মিলনসাগর
*
কেন এ হৃদয় চঞ্চল হোলো
কথা - মোহিনী চৌধুরী, সুর - হেমন্ত মুখার্জী
কণ্ঠ - সন্ধ্যা মুখোপাধ্যায়

কেন এ হৃদয় চঞ্চল হোলো।
কে যেন ডাকে বারে বারে, কেন, বল কেন ?
আমি ফুল দেখেছি, ফুল ফুটতে কখনো দেখিনি
আজ মনে হয় শিহরণ এই বুঝি ফুটেছে আমার হাসি
কেন এ কণ্ঠে এলো গান, কেন, বল কেন ?  
এল এ মধুর নেশা যেন,
আমি সুর শুনেছি, সুর ভুলতে এখনো পারিনি
গান হয়ে তাই বুঝি ফুটেছে কথার কলি ||

.          ******************                 
.                                                                                         
সূচিতে . . .   




মিলনসাগর
*
এনেছি আমার শত জনমের প্রেম
কথা - মোহিনী চৌধুরী,
সুর - শৈলেশ দত্তগুপ্ত,

এনেছি আমার শত জনমের প্রেম,
আঁখিজলে গাঁথা মালা ;
ওগো সুদূরিকা, আজও কী হবে না শেষ
তোমারে চাওয়ার পালা ||
স্বপনে আমার সাথীহারা রাতে
চেয়েছি তোমায় পলকে হারাতে
তোমারে খুঁজিতে যে দীপ জ্বেলেছি হায়
বিফলেতে দীপ জ্বালা  ||
মনে মনে তবু স্বপন বাসর গড়ি
নিয়েছি হৃদয় মিলনের গানে ভরি |
দূরে আছ তুমি তবু দূরে নহ
স্মরণ সুধায় ভরে তো বিরহ----
প্রেম যেন তব সুদূর গগন হতে
চাঁদের জোছনা ঢালা ||

.       ******************                 
.                                                                                         
সূচিতে . . .   




মিলনসাগর
*
কত মধুরাতি এলো, এলো আর চলে গেল
কথা - মোহিনী চৌধুরী,
সুর - শৈলেশ দত্তগুপ্ত,

কত মধুরাতি এলো, এলো আর চলে গেল
জীবনে জোয়ার এলো না  |
সাথীহারা মন আজও সাথী পেল না ||
চাঁদের আলোয় লেখা যত কবিতা
আমার জীবনে সবই হলো যে বৃথা  |
কুহু কুহু কুহুতানে কোয়েলিয়া আমার প্রাণে
সুরের আগুন জ্বেলো না ||
মধুমালতীর মালা কত না লুটালো ধূলিতে,
আমারই বেদনা দোলে শিশির কণিকাগুলিতে |
স্বপন ছড়ায়ে এলো মাধবী নিশা
মিটিল না আজও তবু মিলনতৃষা |
যারে খুঁজি আসে না সে আমার হিয়ার পাশে,
দুরাশা তবু যে গেল না ||

.       ******************                 
.                                                                                         
সূচিতে . . .   




মিলনসাগর
*
কেন পিয়া পিয়া বলে ডাকে পাপিয়া
কথা - মোহিনী চৌধুরী,
সুর - শৈলেশ দত্তগুপ্ত,

কেন পিয়া পিয়া বলে ডাকে পাপিয়া
হায় অভিমানে চলে যেছে তারও কি প্রিয়া ||
চলে গেছে প্রিয়া মম কত দূরে হায়,
সুরে সুরে হিয়া সে তো উড়ে যেতে চায়-----
আমি কাঁদি তারই ভাঙা বীণা বুকে চাপিয়া  ||
জাগে এ মাধবী রাতে মাধবী কুসুম,
সুখ নাহি জাগে মনে, চোখে নাহি ঘুম |
দোলে মন ক্ষণে ক্ষণে মিলনমায়া,
প্রিয়া নাই তবু দেখি প্রিয়ারই ছায়া-----
মনে দীপশিখা সম এ কি ওঠে কাঁপিয়া ||

.       ******************                 
.                                                                                         
সূচিতে . . .   




মিলনসাগর
*
ঝরা ফুলে ভরা এই যে সমাধিতল
কথা - মোহিনী চৌধুরী,
সুর - শৈলেশ দত্তগুপ্ত,

ঝরা ফুলে ভরা এই যে সমাধিতল---
এই তো আমার মাটির বাসর প্রেমের তাজমহল ||
কে বলে আমার প্রিয়তমা নাই,
পাই না দেখিতে তবু সাড়া পাই------
চোখে ঝরে জল হায় মনে তবু দোলে মিলনের শতদল ||
আধোরাতে যবে ঘুম ভেঙে যায় সেথায় নীরবে আসি,
দেখি জোছনায় ছড়ানো রয়েছে হারানো প্রিয়ার হাসি |
বউ-কথা-কও পাখি দূরে গায়
সুরে সুরে সে যে প্রিয়ারে জাগায়,
মরণ ঘুমেরে স্মরণ মায়ায় মনে হল শুধু ছল ||

.                ******************                 
.                                                                                         
সূচিতে . . .   




মিলনসাগর
*
ভুলি নাই ভুলি নাই ভুলি নাই ভুলি নাই
কথা - মোহিনী চৌধুরী,
সুর - কমল দাশগুপ্ত,

ভুলি নাই ভুলি নাই ভুলি নাই ভুলি নাই
নয়নে তোমারে হারায়েছি প্রিয়া স্বপনে তোমারে পাই ||
বনজোছনার ছায়াতে মধুমালতীর মায়াতে
কে যেন আমায় আজও পিছু ডাকে বারে বারে তাই ফিরে চাই ||
নভোনীলিমার মণিহার হতে যে তারাটি গেল ঝরিয়া,
তারই আঁখিজল ঝিনুকেরই বুকে রেখেছে মুকুতা গড়িয়া |
যে ফুল ধূলায় ঝরালে তার সুরভি যে প্রাণে ভরালে,
যে বীণা বাজালে তারই সুরে আজও গানের মালাটি গেঁথে যাই ||

.                ******************                 
.                                                                                         
সূচিতে . . .   




মিলনসাগর
*
জেগে আছি একা, জেগে আছি কারাগারে
কথা - মোহিনী চৌধুরী,
সুর - সত্য চৌধুরী,

জেগে আছি একা, জেগে আছি কারাগারে---
কুয়াশায় ঘেরা নবমীর চাঁদ জাগিছে আকাশ পারে ||
বাতাসে জাগিছে বাতাবি ফুলের গন্ধ
বনে বনে জাগে ঝিল্লি নূপুর ছন্দ------
জোনাকিরা গাঁথে আলোকের মালা বাহিরে অন্ধকারে ||
তুমিও কী প্রিয়া রয়েছ জাগিয়া শূন্য শয়নতলে ?
সারা পৃথিবীর বেদনা ঝরিছে তোমার নয়নজলে  ?
পরাধীন দেশে প্রেম চির অভিশপ্ত
মুক্তির পথে কত বাধা, কত রক্ত !
মহামিলনের স্বপ্ন আমার ভেঙে যায় বারে বারে ||

.                ******************                 
.                                                                                         
সূচিতে . . .   




মিলনসাগর