কবি ও গীতিকার তুলসী লাহিড়ীর গান
*
শোন্ রে শোন্  বাংলা দেশের কাঙ্গাল চাষী ভাই
রচনা – তুলসী লাহিড়
সুর – তুলসী লাহিড়ি
শিল্পী – কমলা ঝরিয়া, ১৯৪৬

শোন্ রে শোন্  বাংলা দেশের কাঙ্গাল চাষী ভাই |
( কেন ) ফলিয়ে চাষে সোনার ফসল
গ্রাসের বেলায় জোটেরে ছাই ||
( কেন ) ভাঙা কুঁড়েয় বাস
কপালে নিত্য উপবাস------
( যাদের ) খাওয়াই তারাই চাষা বলে করে উপহাস,
( তারা ) আসল নিয়ে দেয়রে মেকী,
শুনিয়ে সব ন্যায়ের ফাঁকি,
নেবার বেলায় হাঁকাহাঁকি দেবার বেলায় নাই-রে নাই  ||
( পরে ) পরে হ্যাট বুট আর স্যুট,
বলে বিলকুল সব ঝুট,
মোদের বলে হল বলী মোদের করে লুঠ
( দিয়ে ) মিছে আশার ফাঁকা বুলি
ভয়ে মোদের ভিখের ঝুলি
( মোরা ) ধোঁকা খেয়েও বোকার মতন তাদের মুখ চাই |
( ও ভাই ) দিন যায় হেলায়
ঐ দ্যাখ বীরেরা সব ধায়---
নূতন সহজ সরল পথে নূতন দুনিয়ায় |
ভরসা রেখে আপন বলে,
এগিয়ে চল সবাই মিলে,
আঁধার শেষে আলোর দেশে মিলবে সুখের ঠাঁই ---
ও ভাই চল্ চল্ চল্ রে---

.             *************************  
           
.                                                                                        
সূচিতে . . .   



মিলনসাগর   
*
এসেছিল সে যে চৈতী সাঁঝে আমার মনের দুয়ারে
রচনা – তুলসী লাহিড়ী
শিল্পী –মিস অনিমা  ( বাদল ) ১৯৩৩

এসেছিল সে যে চৈতী সাঁঝে আমার মনের দুয়ারে |
নিরালা পথে ছিনু একেলা শরমে হেরিনি তারে  |
.           সহজ গলার সরল গানে
.           গরল ভরা সে মায়া তানে
বিফল মম কানে কানে কি যে কয়ে গেল বারে বারে |
.            কত বসন্ত এসে চলে যায়
.            কত ফুল কলি হেসে ঝরে যায়
আকুল প্রাণ আজি তারে চায় কাঁদে নিরাশার বেদনা-ভারে |
.            তিমির ঘন আজি বরষায়
.            বাদল বায়ে দীপ নিভে যায় -----
অবুঝ পরাণ তবু আজি হায় কাঁদে তারি লাগি ঘন আঁধারে ||

.         
      *************************             
.                                                                                        
সূচিতে . . .   



মিলনসাগর   
*
শুনি কাননপারে মুরলীধ্বনি
রচনা – তুলসী লাহিড়ী
শিল্পী –প্রফেসর  জ্ঞান গোস্বামী, ১৯৩৩

শুনি কাননপারে মুরলীধ্বনি |
মনেরি তারে তারে বাজে রাগিনী |
.          সুরের মদির নিয়া
.          বিভোর অবশ হিয়া
ভাসায় অকূল পানে স্মৃতি-তরণী  |

.        *************************             
.                                                                                        
সূচিতে . . .   



মিলনসাগর   
*
নবমী নিশি পোহালে উমা আমার যাবে চলে
রচনা – তুলসী লাহিড়ী
সুর --   তুলসী লাহিড়ী
শিল্পী –  কমলা ঝরিয়া, ১৯৩৬

নবমী নিশি পোহালে উমা আমার যাবে চলে
( হবে ) শূন্য ভবন, শূন্য ভুবন শূন্য নয়ন ভাসবে জলে |
নিশিশেষে কাল বেশে মহাকাল এসে দাঁড়াবে,
হয়ে বিমুখ ভেঙে এ বুক উমা নিধি কেড়ে লবে |
চির দুঃখ যার কপালে এত সুখ তার কেন সবে |
( শুধু ) কাকের মতো পালি আমি কোকিল-শিশু আপন ব’লে |
আমার মতো মেয়ে কে পায় পেয়ে বা কে এমন হারায়,
ত্রিজগতের মা হয়ে কে আপন মায়ে এমন কাঁদায় |
স্বামী ঘর তো সবাই করে কোন্ মা মেয়ে রাখে ধরে
মা পাবে তিন দিনের তরে এ কোন্ বিধি বল্ না মোরে |
মেয়ে আর যাবে কি কেউ মেয়ের মায়ের দশা হেরে
তোরা বলিস মায়াময়ী হাসান কাঁদান মায়ার ছলে ||

.      
         *************************             
.                                                                                        
সূচিতে . . .   



মিলনসাগর   
*
তোমারি তরে সে তোমারি দ্বারে ভিখারী
রচনা – তুলসী লাহিড়ী
সুর  -- তুলসী লাহিড়ী
শিল্পী – মিস কমলা ( ঝরিয়া ), ১৯৩৩
ছবি --  যমুনা পুলিনে

তোমারি তরে সে তোমারি দ্বারে ভিখারী
.                     তব মনের বনের শিকারী |
যার রূপে তব নয়নে লেগেছে ধাঁধা
যার তরে তব টুটেছে সকল বাধা
যার লাগি নিতি নীরবে লুকায়ে কাঁদা
.                      সেই শ্যামল বংশীধারী ||

.            *************************             
.                                                                                        
সূচিতে . . .   



মিলনসাগর