রূপরাম চক্রবর্তীর ধর্মমঙ্গল কাব্য
কবি রূপরাম চক্রবর্তীর ধর্মমঙ্গলের পরিচিতির পাতায় . . .
রূপরামের ধর্মমঙ্গল কাব্যের সূচি
পাত্র বলে মহারাজা বাক্যে দিবে মন |
মনে চিন্তা নাই কর ঢেকুর ভুবন ||
সোমঘোষ গুয়ালা ছিল গোউড় ভুবনে |
শাক মাগ্যা কদলী বেচিত রাত্রিদিনে ||
অভয় চরণে রায় মোর নিবেদন |
বত্সরের কড়ি দিত পঞ্চাশ কাহন ||
পঞ্চাশ কাহন দিত সাত কাহন কানা |
সেই হেতু সর্বকাল আছিল ধরণা ||
অবশেষে আপনি হইলে তারে সহা |
সংহতি রাখিলে তারে ঢাল খাঁড়া বহা ||
সানকি করিতে দিলে ঢেকুরের গড় |
তবে কেন নাঞি আইসে তোমার নিয়ড় ||
শ্যামরূপা সেবনে বাড়িল অহঙ্কার |
অতঃপর ঘুচিল তোমার অধিকার ||
বলবন্ত ইছাই ঘোষ হৈল অতিশয় |
রিপু বলবন্ত হৈলে ভাল কথা নয় ||
সুরপতি সহস্রলোচন স্বর্গপুরে |
দিনে দেখা নাই দিত তারকের ডরে ||
অজয়ার এ পারে ইছাই নিল থানা |
কালি আমি শুন্যাছি গোউড়ে দিব হানা ||
আমার বচন রাজা শুন মন দিয়া |
লাউসেন রাউত তথা দেহ পাঠাইয়া ||
অনেক দিবস হৈল তোমার চাকর |
দক্ষিণ মাহিনা খায় ময়না নগর ||
লুট কব়্যা খায় লক্ষ তঙ্কার বিলাত |
একবার নাই আইসে তোমার সাক্ষাত ||
বত্সর অবধি তার নাহি দরশন |
কোন কার্যে দেখা নাই চাকর কেমন ||
অজয়া ঢেকুর তারে দেহ পাঠাইয়া |
আমার বচন তুমি শুন মন দিয়া ||
পাথের বচন শুনি রাজা দিল সায় |
আপনি পরোনা পত্র লিখিছে সভায় ||
তিন স্বস্তি লিখে আগে পত্রের বিধান |
লাউসেন রাউত বীর কর অবধান ||
কলেবর পরম পবিত্র গঙ্গাজল |
রূপে গুণে প্রমাণ করিতে পারি নল ||
গুণবান গুণিন সকল গুণধাম |
সভামধ্যে কেবা করে সভাকার নাম ||
ভাগ্যহীন জনের জীবনে কিবা কাজ |
সভাসদ লোক তুমি রাউতের রাজ ||
না জানিলে পূর্বের বচনে বলে নিম |
এবার আপনি যাবে ঢেকুর মহিম ||
ঢেকুর জিনিলে তোরে নানা ধন দিব |
লাউসেন রাউত বলি নাম জাগাইব ||
পত্র দরশনে আস্য গৌড়ের দরবার |
অপরন্ত বারতা লিখিব কিবা আর ||
তারপর মহামদ লিখিছে নাবড়ি |
ময়না ইনাম খাহ নাহি দেহ কড়ি ||
তবে যদি বিলম্বন পত্র দরশনে |
উভদলে ময়না সাজিব ভূঞাগণে ||
কাগজ বুঝিয়া নিব ময়নার কর |
বুকে তুল্যা দিব ষোল সাঙ্গের পাথর ||
ধন কুড়ি তুরঙ্গ লিখিব বাজে সন |
অন্ডির পাখর নিব গুণাগ্যা রতন ||
তের দিন মাসের তারিখ দিল তায় |
মনে করে ময়না নগর কেবা যায় ||
রাজা বলে শুন রে ধাবক ইন্দ্রজাল |
আন গিয়া লাউসেন ময়নার মহীপাল ||
এক দন্ড তোমার বিলম্ব নাহি সয় |
অবিলম্বে আন গিয়া রঞ্জার তনয় ||
নিজালয় যাত্যে নাই রাজার আরতি |
আজ্ঞা পায়্যা ইন্দ্রজাল সাজে শীঘ্রগতি ||
মাথায় করিয়া নিল রাজার পরোনা |
ধাবক বিদায় হৈল দক্ষিণ ময়না ||
তরিবরে পার হৈল ভৈরবীর জল |
ধাইল দক্ষিণ মুখে মাহিনার বল ||
বামদিগে তারাদীঘি বেউশ্যা শাসন |
কালুত্তকে আসিয়া দিলেক দরশন ||
কর্জনা সরাইখানি করি পাছুয়ান |
দেখাদেখি ছাড়াইল শ্রীবর্ধমান ||
সত্যের গঙ্গা দামুদের নাএ পার হয়্যা |
উড়্যার গড় কামালপুর দক্ষিণে রাখিয়া ||
বন্দিল দব়্যার পীর সমুখে প্রণাম |
বারবাকপুর রাখে সৈয়দ মোকাম ||
মুন্ডমালা মহাস্থান দক্ষিণে রাখিয়া |
উচালন দীঘির পশ্চিম পাড় দিয়া ||
রাঙ্গামেট্যা সুরধুনী সমুখে নিয়ড় |
ডানদিগে মান্দারণ পীর সিমালির গড় ||
চৌবেড়ে প্রতাপপুর পশ্চাত করিয়া |
ধূলাভাঙ্গা ব্রহ্মপুর উত্তরিল গিয়া ||
একদন্ড নাহি বৈসে সাক্ষাত অনিল |
উভ ষোল কোশ রাখে পাদুমার বিল ||
কালিনী গঙ্গার ঘাটে পসারিল পা |
পাটনি আছিল ঘাটে যোগাইল না ||
কালিনী গঙ্গার ঘাটে নাএ পার হয়্যা |
ময়না নগরে শীঘ্র উত্তরিল গিয়া ||
ইন্দ্রজাল ময়নায় দিলেক দরশন |
দ্বিজ রূপরাম গান সখা নিরঞ্জন ||

.      ******************      

.                                                 
নুমৃতা পালার পরের পৃষ্ঠায় . . .  
.                                                                      
পাতার উপরে . . .   


মিলনসাগর
রূপরামের ধর্ম্মমঙ্গল
অনুমৃতা পালা
পৃষ্ঠা -              
১    বন্দনা  পালা     
.          
গনেশ বন্দনা    
.          
ধর্ম্ম বন্দনা    
.          
ঠাকুরাণী বন্দনা     
.          
চৈতন্য বন্দনা    
.          
সরস্বতী বন্দনা     
.          
বিপ্র বন্দনা      
.          
দিগ্ বন্দনা    
২   
আত্মকাহিনী    
৩   
স্থাপনা পালা    
৪    
আদ্য ঢেকু পালা    
.           
গজেন্দ্র মোক্ষণ    
৫    
রঞ্জার বিবাহপালা     
৬   
লুইচন্দ্র পালা     
৭   
শালেভর পালা    
৮   
লাউসেনের জন্মপালা      
.            
পরিশিষ্ট, জন্মপালা      
৯   
লাউসেন চুরিপালা    
১০
আখড়া পালা     
১১
ফলানির্মাণ পালা     
১২
মল্লবধ পালা      
১৩
বাঘজন্মপালা     
১৪
বাঘবধ পালা      
১৫
জামতি পালা      
১৬
গোলাহাটপালা      
১৭
হস্তিবধপালা      
১৮
কাঙুরযাত্রাপালা      
১৯
কলিঙ্গাবিভাপালা     
২০
লৌহগন্ডারপালা       
২১
কানড়াবিভাপালা      
২২
অনুমৃতাপালা     
২৩
ইছাইবধপালা     
২৪
অঘোরবাদলপালা     
২৫
জাগরণপালা     
২৬
স্বর্গারোহণপালা